১২:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

আইসিএমএবি চট্টগ্রামের উদ্যোগে ইউএসটিসিতে ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের শিক্ষার্থীদের কাউন্সেলিং সেমিনার

রিপন চৌধুরী

 

ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনেলোজি চিটাগং (ইউএসটিসি) এর ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের শিক্ষার্থীদের জন্য ইউএসটিসি এর অডিটোরিয়ামে “প্রফেশনাল ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টিং এডুকেশান ইন বাংলাদেশ – ইমপ্লিকেশনস্ ফর বিজনেস গ্র্যাজুয়েটস্” বিষয়ক ক্যারিয়ার কাউন্সেলিং সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। আইসিএমএবি চট্টগ্রাম ব্রাঞ্চের উদ্যোগে সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন ইউএসটিসির উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহম্মদ সোলায়মান। বিশেষ অতিথি ছিলেন আইসিএমএবি প্রেসিডেন্ট আব্দুর রহমান খান এফসিএমএ, ইউএসটিসির উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. রঞ্জিত কুমার সাহা, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডীন ড. মোহাম্মদ সাহাবউদ্দিন।সেমিনার মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইসিএমএবির একাডেমিক এ্যাফায়ার্সের পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জাকারিয়া মাসুদ এফসিএমএ।
সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম ব্রাঞ্চ কাউন্সিলের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোজাম্মেল হোসেন এফসিএমএ এবং তাঁর স্বাগত বক্তব্যে সেমিনার শুরু হয়। আইসিএমএবি এর একাডেমিক এ্যাফায়ার্সের পরিচালক প্রফেসর ড. মোহম্মদ জাকারিয়া মাসুদ এফসিএমএবি কারিকুলামের উপর এবং বর্তমানে ও ভবিষ্যতে সিএমএ ডিগ্রীর গ্রহণযোগ্যতা ও গুরুত্তের উপর অত্যন্ত প্রাণবন্ত প্রেজেন্টেশান উপস্থাপন করেন। বিশেষ অতিথি আইসিএমএবির প্রেসিডেন্ট আব্দুর রহমান খান এফসিএমএ তাঁর বক্তব্যে, কীভাবে সিএমএ ডিগ্রী তাঁর ব্যক্তি জীবনে ও কর্মক্ষেত্রে ইতিবাচক ভূমিকা রাখছে তার আলোকপাত করেন। তিনি উপস্থিত শিক্ষার্থীদের কাছে দেশে ও বিদেশে উজ্জল ক্যারিয়ার গঠনে সিএমএ ডিগ্রীর অপার সম্ভাবনার বিষয়টি তুলে ধরেন। প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথিগণ তাঁদের বক্তব্যে আইসিএমএবিকে এবং আইসিএমএবিএর প্রেসিডেন্ট মহোদয়কে উক্ত সেমিনার আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং উপস্থিত সকল শিক্ষার্থীদেরকে একাডেমিক ডিগ্রীর পাশাপাশি সিএমএ ডিগ্রী গ্রহণের জন্য জোরালো আহ্বান জানান।
সেমিনারটি সার্বিক পরিচালনা করেন চট্টগ্রাম ব্রাঞ্চ কাউন্সিলের সচিব ওয়াহিদ উল্লাহ এফসিএমএ এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন চট্টগ্রাম ব্রাঞ্চ কাউন্সিলের সাবেক কোষাধ্যক্ষ রাকিবুল ইসলাম মাইশান এফসিএমএ। ইউএসটিসির ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের শিক্ষক ও প্রায় ১৫০ জন শিক্ষার্থী উক্ত সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস :
আপডেট : ০৭:২১:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০২৩
১১৭ বার পড়া হয়েছে

আইসিএমএবি চট্টগ্রামের উদ্যোগে ইউএসটিসিতে ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের শিক্ষার্থীদের কাউন্সেলিং সেমিনার

আপডেট : ০৭:২১:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০২৩

 

ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এন্ড টেকনেলোজি চিটাগং (ইউএসটিসি) এর ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের শিক্ষার্থীদের জন্য ইউএসটিসি এর অডিটোরিয়ামে “প্রফেশনাল ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টিং এডুকেশান ইন বাংলাদেশ – ইমপ্লিকেশনস্ ফর বিজনেস গ্র্যাজুয়েটস্” বিষয়ক ক্যারিয়ার কাউন্সেলিং সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। আইসিএমএবি চট্টগ্রাম ব্রাঞ্চের উদ্যোগে সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন ইউএসটিসির উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহম্মদ সোলায়মান। বিশেষ অতিথি ছিলেন আইসিএমএবি প্রেসিডেন্ট আব্দুর রহমান খান এফসিএমএ, ইউএসটিসির উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. রঞ্জিত কুমার সাহা, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডীন ড. মোহাম্মদ সাহাবউদ্দিন।সেমিনার মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইসিএমএবির একাডেমিক এ্যাফায়ার্সের পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জাকারিয়া মাসুদ এফসিএমএ।
সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম ব্রাঞ্চ কাউন্সিলের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোজাম্মেল হোসেন এফসিএমএ এবং তাঁর স্বাগত বক্তব্যে সেমিনার শুরু হয়। আইসিএমএবি এর একাডেমিক এ্যাফায়ার্সের পরিচালক প্রফেসর ড. মোহম্মদ জাকারিয়া মাসুদ এফসিএমএবি কারিকুলামের উপর এবং বর্তমানে ও ভবিষ্যতে সিএমএ ডিগ্রীর গ্রহণযোগ্যতা ও গুরুত্তের উপর অত্যন্ত প্রাণবন্ত প্রেজেন্টেশান উপস্থাপন করেন। বিশেষ অতিথি আইসিএমএবির প্রেসিডেন্ট আব্দুর রহমান খান এফসিএমএ তাঁর বক্তব্যে, কীভাবে সিএমএ ডিগ্রী তাঁর ব্যক্তি জীবনে ও কর্মক্ষেত্রে ইতিবাচক ভূমিকা রাখছে তার আলোকপাত করেন। তিনি উপস্থিত শিক্ষার্থীদের কাছে দেশে ও বিদেশে উজ্জল ক্যারিয়ার গঠনে সিএমএ ডিগ্রীর অপার সম্ভাবনার বিষয়টি তুলে ধরেন। প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথিগণ তাঁদের বক্তব্যে আইসিএমএবিকে এবং আইসিএমএবিএর প্রেসিডেন্ট মহোদয়কে উক্ত সেমিনার আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং উপস্থিত সকল শিক্ষার্থীদেরকে একাডেমিক ডিগ্রীর পাশাপাশি সিএমএ ডিগ্রী গ্রহণের জন্য জোরালো আহ্বান জানান।
সেমিনারটি সার্বিক পরিচালনা করেন চট্টগ্রাম ব্রাঞ্চ কাউন্সিলের সচিব ওয়াহিদ উল্লাহ এফসিএমএ এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন চট্টগ্রাম ব্রাঞ্চ কাউন্সিলের সাবেক কোষাধ্যক্ষ রাকিবুল ইসলাম মাইশান এফসিএমএ। ইউএসটিসির ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের শিক্ষক ও প্রায় ১৫০ জন শিক্ষার্থী উক্ত সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন।