১০:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘর পরিদর্শন করলেন ইউএনও জেপি দেওয়ান

প্রতিনিধির নাম
কক্সবাজারের চকরিয়ায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আগুনে পুড়ে যাওয়া বসতঘর পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেপি দেওয়ান। এসময় তিনি অগ্নিকান্ডে নিহত পরিবারের প্রতি সমবেদনাও জানান।
৪ ফেব্রুয়ারী (শুক্রবার) দুপুরের দিকে চকরিয়া উপজেলার পূর্ব ভেওলা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের নয়াপাড়ার মৃত নুরুল হুদার ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘর পরিদর্শনে যান তিনি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) রাহাত-উজ জামান, পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফারজানা আফরিন মুন্না প্রমুখ।
চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেপি দেওয়ান বলেন, ‘স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছ থেকে অগ্নিকান্ডের খবরটা শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত দুই পরিবারকে প্রাথমিকভাবে দূর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সহায়তা তহবিল থেকে তাৎক্ষণিক শীতের কম্বল, কাপড়, চাল-ডালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস প্রদান করা হয়েছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের তালিকা তৈরী করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। জেলা প্রশাসকের সহযোগিতা আসার সাথে সাথে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের হাতে পৌঁছে দেয়া হবে।’
উল্লেখ্য, শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের নয়াপাড়ার মৃত নুরুল হুদার বসত ঘরে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এসময় ঘর থেকে বের হতে না পেরে দিলসাবা বেগম নামের এক বৃদ্ধা মৃত্যুবরণ করেন। এতে ওই পরিবারের অন্তত ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা দাবি করেছেন।
ট্যাগস :
আপডেট : ০১:৫৭:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২২
১৩৭ বার পড়া হয়েছে

আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘর পরিদর্শন করলেন ইউএনও জেপি দেওয়ান

আপডেট : ০১:৫৭:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২২
কক্সবাজারের চকরিয়ায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আগুনে পুড়ে যাওয়া বসতঘর পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেপি দেওয়ান। এসময় তিনি অগ্নিকান্ডে নিহত পরিবারের প্রতি সমবেদনাও জানান।
৪ ফেব্রুয়ারী (শুক্রবার) দুপুরের দিকে চকরিয়া উপজেলার পূর্ব ভেওলা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের নয়াপাড়ার মৃত নুরুল হুদার ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘর পরিদর্শনে যান তিনি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) রাহাত-উজ জামান, পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফারজানা আফরিন মুন্না প্রমুখ।
চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেপি দেওয়ান বলেন, ‘স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছ থেকে অগ্নিকান্ডের খবরটা শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত দুই পরিবারকে প্রাথমিকভাবে দূর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সহায়তা তহবিল থেকে তাৎক্ষণিক শীতের কম্বল, কাপড়, চাল-ডালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস প্রদান করা হয়েছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের তালিকা তৈরী করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে। জেলা প্রশাসকের সহযোগিতা আসার সাথে সাথে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের হাতে পৌঁছে দেয়া হবে।’
উল্লেখ্য, শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের নয়াপাড়ার মৃত নুরুল হুদার বসত ঘরে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এসময় ঘর থেকে বের হতে না পেরে দিলসাবা বেগম নামের এক বৃদ্ধা মৃত্যুবরণ করেন। এতে ওই পরিবারের অন্তত ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা দাবি করেছেন।