০৭:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

ঈদগাঁও-ঈদগড় সড়কের ভোমরিয়াঘোনা পয়েন্টে সেই গর্জন গাছটি কর্তনের দাবী

প্রতিনিধির নাম
পাহাড়ী জনপদ ঈদগড়-ঈদগাঁও সড়কের ভোম রিয়াঘোনা পয়েন্টে রাস্তার উপরে গর্জন গাছটি কর্তনের দাবী তুলেন যাত্রী ও চালকরা।
চালকদের অভিযোগ,গাছটি প্রায় রাস্তার উপরে হওয়ায় অন্যদিক থেকে আসা গাড়ি গুলো দেখা যায়না। যার ফলে হঠাৎ করে গাড়ী ব্রেক করতে দিয়ে দূর্ঘটনার আশংকা প্রকাশ করেন।
জানা যায়, সেই গর্জন গাছটি কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের ঈদগাঁও ভোমরিয়াঘোনা রেঞ্জের আওতাধীন। বনবিভাগ গাছটি কর্তন করলে দূর্ঘ টনা থেকে রেহাই পাবে বলে মনে করেন চালক সহ যাত্রীরা। না হয় যেকোন মুর্হুতে বড় ধরণের দূর্ঘটনার আশংকায় রয়েছে।
দেখা যায়, সম্প্রতি এ সড়কের উন্নয়ন কার্যক্রম চললেও গাছটি কাটা হয়নি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিলে গর্জনটি কেটে ফেলা যেত বলে মত প্রকাশ করেন চলাচলরত যাত্রী এবং চালকরা।
ব্যবসায়ী জাফর আলম জুয়েল জানান, এলাকাবাসী দীর্ঘদিন পূর্বে গাছটি কর্তন করার বিষয়ে অভিযোগ করলেও অদ্যবধি সেই গর্জন গাছটি কাটা হয়নি।
জনি নামের এক পথচারী জানান,দীর্ঘদিন যাবত ভোমরিয়াঘোনা বালু মহালের সামনে সড়ক এর উপরের এক পাশে অবস্থিত বড় গাছটির কারনে নানা দূর্ঘটনা ঘটেছে ও ঘটার আশংকায় রয়েছে চালকরা। বিশেষ করে এই সড়কে সন্ধ্যা কালীন সময়ে ছোট বড় যানবাহন চালাতে গিয়ে চরম আতংকে রয়েছেন তারা। আতংক কাটতে গাটটি কর্তন জরুরী।
উল্লেখ্য,এ গাছের কারনে পূর্বেও ডাম্পার,মোটর সাইকেল,ম্যাজিক গাড়ী দূর্ঘটনায় হতাহতের মত  ঘটনা ঘটেছিল।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৩:৫৫:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২
১৯৯ বার পড়া হয়েছে

ঈদগাঁও-ঈদগড় সড়কের ভোমরিয়াঘোনা পয়েন্টে সেই গর্জন গাছটি কর্তনের দাবী

আপডেট : ০৩:৫৫:৩৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২২
পাহাড়ী জনপদ ঈদগড়-ঈদগাঁও সড়কের ভোম রিয়াঘোনা পয়েন্টে রাস্তার উপরে গর্জন গাছটি কর্তনের দাবী তুলেন যাত্রী ও চালকরা।
চালকদের অভিযোগ,গাছটি প্রায় রাস্তার উপরে হওয়ায় অন্যদিক থেকে আসা গাড়ি গুলো দেখা যায়না। যার ফলে হঠাৎ করে গাড়ী ব্রেক করতে দিয়ে দূর্ঘটনার আশংকা প্রকাশ করেন।
জানা যায়, সেই গর্জন গাছটি কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের ঈদগাঁও ভোমরিয়াঘোনা রেঞ্জের আওতাধীন। বনবিভাগ গাছটি কর্তন করলে দূর্ঘ টনা থেকে রেহাই পাবে বলে মনে করেন চালক সহ যাত্রীরা। না হয় যেকোন মুর্হুতে বড় ধরণের দূর্ঘটনার আশংকায় রয়েছে।
দেখা যায়, সম্প্রতি এ সড়কের উন্নয়ন কার্যক্রম চললেও গাছটি কাটা হয়নি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিলে গর্জনটি কেটে ফেলা যেত বলে মত প্রকাশ করেন চলাচলরত যাত্রী এবং চালকরা।
ব্যবসায়ী জাফর আলম জুয়েল জানান, এলাকাবাসী দীর্ঘদিন পূর্বে গাছটি কর্তন করার বিষয়ে অভিযোগ করলেও অদ্যবধি সেই গর্জন গাছটি কাটা হয়নি।
জনি নামের এক পথচারী জানান,দীর্ঘদিন যাবত ভোমরিয়াঘোনা বালু মহালের সামনে সড়ক এর উপরের এক পাশে অবস্থিত বড় গাছটির কারনে নানা দূর্ঘটনা ঘটেছে ও ঘটার আশংকায় রয়েছে চালকরা। বিশেষ করে এই সড়কে সন্ধ্যা কালীন সময়ে ছোট বড় যানবাহন চালাতে গিয়ে চরম আতংকে রয়েছেন তারা। আতংক কাটতে গাটটি কর্তন জরুরী।
উল্লেখ্য,এ গাছের কারনে পূর্বেও ডাম্পার,মোটর সাইকেল,ম্যাজিক গাড়ী দূর্ঘটনায় হতাহতের মত  ঘটনা ঘটেছিল।