১০:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

কেশবপুরে এক ঘন্টার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন কলেজ ছাত্রী আশা

প্রতিনিধির নাম
কেশবপুরে এক ঘন্টার জন্য উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হলেন কলেজ ছাত্রী আশা দাস (১৭)। প্রতীকী চেয়ারম্যান হওয়া আশা দাস কেশবপুর শহরের হাজী আব্দুল মোতালেব মহিলা কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থী এবং ন্যাশনাল চিলড্রেন’স টাস্ক ফোর্স (এনসিটিএফ)-এর উপজেলা শাখার সহ সভাপতি। সে উপজেলার মজিদপুর গ্রামের কালীপদ দাসের মেয়ে। প্লান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের সহযোগিতায় ও পরিত্রাণের উদ্যোগে এ কার্যক্রমের আয়োজন করা হয়।
রবিবার(২৯অক্টোবর)বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলামের নিকট থেকে তার কার্যালয়ে এক ঘন্টার জন্য দায়িত্ব বুঝে নেন কলেজ ছাত্রী আশা দাস। বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত আশা দাস প্রতীকী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। এক ঘন্টার দায়িত্ব পেয়ে আশা দাস উপজেলাকে নারী বান্ধব করতে, নারী নির্যাতন ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধসহ নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে বিভিন্ন সুপারিশমালা তুলে ধরেন।
এনসিটিএফ’র উপজেলা শাখার সভাপতি প্রসেনজিৎ দাসের সভাপতিত্বে পরে সংক্ষিপ্ত এক আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলাম।  বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মুহা. আলমগীর হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী, কবি মুনছুর আলী ও নারী নেত্রী শিখা পারভীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিত্রাণের কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন পরিত্রাণের প্রজেক্ট অফিসার উজ্জ্বল দাস।
ট্যাগস :
আপডেট : ১২:১১:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩
১৭৬ বার পড়া হয়েছে

কেশবপুরে এক ঘন্টার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন কলেজ ছাত্রী আশা

আপডেট : ১২:১১:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ অক্টোবর ২০২৩
কেশবপুরে এক ঘন্টার জন্য উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হলেন কলেজ ছাত্রী আশা দাস (১৭)। প্রতীকী চেয়ারম্যান হওয়া আশা দাস কেশবপুর শহরের হাজী আব্দুল মোতালেব মহিলা কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থী এবং ন্যাশনাল চিলড্রেন’স টাস্ক ফোর্স (এনসিটিএফ)-এর উপজেলা শাখার সহ সভাপতি। সে উপজেলার মজিদপুর গ্রামের কালীপদ দাসের মেয়ে। প্লান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের সহযোগিতায় ও পরিত্রাণের উদ্যোগে এ কার্যক্রমের আয়োজন করা হয়।
রবিবার(২৯অক্টোবর)বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলামের নিকট থেকে তার কার্যালয়ে এক ঘন্টার জন্য দায়িত্ব বুঝে নেন কলেজ ছাত্রী আশা দাস। বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত আশা দাস প্রতীকী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। এক ঘন্টার দায়িত্ব পেয়ে আশা দাস উপজেলাকে নারী বান্ধব করতে, নারী নির্যাতন ও বাল্যবিবাহ প্রতিরোধসহ নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে বিভিন্ন সুপারিশমালা তুলে ধরেন।
এনসিটিএফ’র উপজেলা শাখার সভাপতি প্রসেনজিৎ দাসের সভাপতিত্বে পরে সংক্ষিপ্ত এক আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী রফিকুল ইসলাম।  বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মুহা. আলমগীর হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী, কবি মুনছুর আলী ও নারী নেত্রী শিখা পারভীন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিত্রাণের কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন পরিত্রাণের প্রজেক্ট অফিসার উজ্জ্বল দাস।