০৭:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় জাতীয় পাট দিবস উদযাপন

প্রতিনিধির নাম
অদ্য (৬ মার্চ)রবিবার খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে জাতীয় পাট দিবস-২০২২। এবারের প্রতিপাদ্য ‘সোনালী আঁশের সোনার দেশ, পরিবেশবান্ধব বাংলাদেশ। আজ সকাল ১০:৩০ মিনিট র‍্যালি  শেষে খাগড়াছড়ি পার্বত্য  জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এ আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পার্বত্য জেলা পরিষদের  মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা  জনাব মোহাম্মদ  বশিরুল হক ভূঞা, প্রধান অতিথি হিসেবে উস্থিত ছিলেন পরিষদ চেয়ারম্যান বাবু মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু, বিশেষ অতিথি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সদস্য জনাব শুভ মঙ্গল চকমা,
মোঃ মাঈনু উদ্দিন, নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব টিটন খীসা, কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ পরিচালক জনাব শফি উদ্দিন।
আলোচনায় প্রধান অতিথি খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন -বাংলাদেশের পাট বিশ্বমানের। পাট পণ্যের উদ্যোক্তাদের সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। একসময় দেশের
রফতানির ৯০ শতাংশ আয় হতো পাট পণ্য থেকে। অর্জিত হতো বৈদেশিক মুদ্রা। সেই ঐতিহ্য আবার ফিরিয়ে আনতে একজন সুনাগরিক হিসেবে সরকারকে আমাদের সহযোগিতা করতে হবে ।পাটের পণ্যে বাংলাদেশের মানুষের আকর্ষণ বেশি। পাটের বিভিন্ন পণ্যে আকর্ষণ বাড়াতে হবে।
 প্রসঙ্গত: দিবসটি উপলক্ষে পাট ও পাটজাত পণ্যের উৎপাদন ও রপ্তানি বৃদ্ধিতে অবদানের জন্য ১১
ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেবে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। জাতীয় পাট দিবসে পাট ও পাটজাত পণ্যের উৎপাদন ও রপ্তানি বৃদ্ধিতে বিশেষ অবদানের জন্য ১১টি ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেবে সরকার। পাটখাত উন্নয়নে
গবেষণা কার্যক্রম, পাটবীজ আমদানিতে নির্ভরশীলতা হ্রাস, পাটবীজ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন, প্রচলিত ও বহুমুখী পাটজাত পণ্যের উৎপাদনও রপ্তানির মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অবদান রাখার জন্য এ সম্মাননা প্রদান করা হচ্ছে।পাটের সঙ্গে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের পটভূমি বিবেচনায় ২০১৬ সালে প্রতি বছর ৬ মার্চ জাতীয় ভাবে পাট দিবস পালনের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর পরের বছর থেকে প্রতিবছর বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালিত হয়ে আসছে।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৩:১১:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ মার্চ ২০২২
১৭০ বার পড়া হয়েছে

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় জাতীয় পাট দিবস উদযাপন

আপডেট : ০৩:১১:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ মার্চ ২০২২
অদ্য (৬ মার্চ)রবিবার খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে জাতীয় পাট দিবস-২০২২। এবারের প্রতিপাদ্য ‘সোনালী আঁশের সোনার দেশ, পরিবেশবান্ধব বাংলাদেশ। আজ সকাল ১০:৩০ মিনিট র‍্যালি  শেষে খাগড়াছড়ি পার্বত্য  জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এ আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পার্বত্য জেলা পরিষদের  মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা  জনাব মোহাম্মদ  বশিরুল হক ভূঞা, প্রধান অতিথি হিসেবে উস্থিত ছিলেন পরিষদ চেয়ারম্যান বাবু মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু, বিশেষ অতিথি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সদস্য জনাব শুভ মঙ্গল চকমা,
মোঃ মাঈনু উদ্দিন, নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব টিটন খীসা, কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ পরিচালক জনাব শফি উদ্দিন।
আলোচনায় প্রধান অতিথি খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন -বাংলাদেশের পাট বিশ্বমানের। পাট পণ্যের উদ্যোক্তাদের সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। একসময় দেশের
রফতানির ৯০ শতাংশ আয় হতো পাট পণ্য থেকে। অর্জিত হতো বৈদেশিক মুদ্রা। সেই ঐতিহ্য আবার ফিরিয়ে আনতে একজন সুনাগরিক হিসেবে সরকারকে আমাদের সহযোগিতা করতে হবে ।পাটের পণ্যে বাংলাদেশের মানুষের আকর্ষণ বেশি। পাটের বিভিন্ন পণ্যে আকর্ষণ বাড়াতে হবে।
 প্রসঙ্গত: দিবসটি উপলক্ষে পাট ও পাটজাত পণ্যের উৎপাদন ও রপ্তানি বৃদ্ধিতে অবদানের জন্য ১১
ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেবে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। জাতীয় পাট দিবসে পাট ও পাটজাত পণ্যের উৎপাদন ও রপ্তানি বৃদ্ধিতে বিশেষ অবদানের জন্য ১১টি ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেবে সরকার। পাটখাত উন্নয়নে
গবেষণা কার্যক্রম, পাটবীজ আমদানিতে নির্ভরশীলতা হ্রাস, পাটবীজ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন, প্রচলিত ও বহুমুখী পাটজাত পণ্যের উৎপাদনও রপ্তানির মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অবদান রাখার জন্য এ সম্মাননা প্রদান করা হচ্ছে।পাটের সঙ্গে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের পটভূমি বিবেচনায় ২০১৬ সালে প্রতি বছর ৬ মার্চ জাতীয় ভাবে পাট দিবস পালনের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর পরের বছর থেকে প্রতিবছর বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালিত হয়ে আসছে।