১২:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

চিতলমারীতে দীন মজুরের বিষ পান

অরুন কুমার সরকার, চিতলমারী (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

ছেলেকে না পেয়ে পাওনা টাকার অভিযোগ এনে, বাবাকে চাপ প্রয়োগ করায় দীন মজুর বাবা বিষ পানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার বেলা ১২ টার সময় বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার পাটরপাড়া গ্রামে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যান্ত ভিকটিম হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন।
ভিকটিমের পরিবার ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, চিতলমারী বাজারে বিশ^াস ফার্ণিসারে স্থানীয় মজিদ শেখের ছেলে মোঃ বেলায়েত শেখ ম্যানেজার ছিলেন। বিগত ৭/৮মাস আগে বেলায়েত প্রায় ৪ লক্ষাধিক টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় বলে, পাটরপাড়া গ্রামের আলমগীর বিশ^াসের ছেলে ফার্নিসার মালিক বেল্লাল বিশ^াস দাবী করেন। বেলায়েত শেখকে না পেয়ে ওই টাকার জন্য তার বাবা মজিদ শেখকে বিভিন্ন রকম চাপ প্রয়োগ করেন।

মজিদ শেখ টাকা দিতে অপরগতা প্রকাশ করে বলেন, ওই ছেলে বিয়ে করার পর থেকে আমার সাথে কোন সম্পর্ক নাই। তবুও ফার্ণিসার মালিক ও তার লোকজন বিভিন্ন চাপ দেয়ায় করনে বলে, সোমবার বেলা ১২টার সময় মজিদ শেখ (৬০) বাড়ীতে কুরাটার (বিষ) পানিতে গুলিয়ে পান করে, আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এ সময় পরিবারের লোকজন দেখে তাকে দ্রæত চিতলমারী হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ব্যপারে কর্তব্যরত ডাক্তার মুক্তি বিশ^াস জানান, ৭২ ঘন্টা না গেলে রোগী সম্পর্কে কিছুই বলা যাচ্ছেনা। ঘটনা সম্পর্কিত বেল্লাল বিশ^াস জানান, বেলায়েত আমার প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার ছিলেন। তার কাছে আমি টাকা পাবো।

ট্যাগস :
আপডেট : ০৬:৩৫:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩
৯৭ বার পড়া হয়েছে

চিতলমারীতে দীন মজুরের বিষ পান

আপডেট : ০৬:৩৫:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ছেলেকে না পেয়ে পাওনা টাকার অভিযোগ এনে, বাবাকে চাপ প্রয়োগ করায় দীন মজুর বাবা বিষ পানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার বেলা ১২ টার সময় বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার পাটরপাড়া গ্রামে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যান্ত ভিকটিম হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন।
ভিকটিমের পরিবার ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, চিতলমারী বাজারে বিশ^াস ফার্ণিসারে স্থানীয় মজিদ শেখের ছেলে মোঃ বেলায়েত শেখ ম্যানেজার ছিলেন। বিগত ৭/৮মাস আগে বেলায়েত প্রায় ৪ লক্ষাধিক টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় বলে, পাটরপাড়া গ্রামের আলমগীর বিশ^াসের ছেলে ফার্নিসার মালিক বেল্লাল বিশ^াস দাবী করেন। বেলায়েত শেখকে না পেয়ে ওই টাকার জন্য তার বাবা মজিদ শেখকে বিভিন্ন রকম চাপ প্রয়োগ করেন।

মজিদ শেখ টাকা দিতে অপরগতা প্রকাশ করে বলেন, ওই ছেলে বিয়ে করার পর থেকে আমার সাথে কোন সম্পর্ক নাই। তবুও ফার্ণিসার মালিক ও তার লোকজন বিভিন্ন চাপ দেয়ায় করনে বলে, সোমবার বেলা ১২টার সময় মজিদ শেখ (৬০) বাড়ীতে কুরাটার (বিষ) পানিতে গুলিয়ে পান করে, আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এ সময় পরিবারের লোকজন দেখে তাকে দ্রæত চিতলমারী হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ব্যপারে কর্তব্যরত ডাক্তার মুক্তি বিশ^াস জানান, ৭২ ঘন্টা না গেলে রোগী সম্পর্কে কিছুই বলা যাচ্ছেনা। ঘটনা সম্পর্কিত বেল্লাল বিশ^াস জানান, বেলায়েত আমার প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার ছিলেন। তার কাছে আমি টাকা পাবো।