০৭:২৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

জবি ছাত্রীর আত্মহত্যারর ঘটনায় অভিযুক্ত সহপাঠীকে বহিষ্কার, সহকারী প্রক্টর বরখাস্ত

তাসদিকুল হাসান, জবি প্রতিনিধি
(ছবিতে বা থেকে অবন্তিকা, অভিযুক্ত আম্মান এবং সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম)
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ফাইরুজ অবন্তিকা আত্মহত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলামকে একাডেমিক ও প্রশাসনিক দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি এবং সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। শনিবার (১৬ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার  অধ্যাপক ড. আইনুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সকলকে গ্রেপ্তারের নির্দেশনা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এছাড়া শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসেনকে আহ্বায়ক করে গঠিত ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি সাত দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। এ ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত ও বিচারের দাবিতে শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে সারাদিন বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা।
শুক্রবার (১৫ ই মার্চ) রাত ১০ টার দিকে কুমিল্লা সদরের নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে ফাইরুজ অবন্তীকা। পরে তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে সেখান কার দায়িত্বরত চিকিৎসকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই আত্মহত্যার জন্য তিনি তার সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকী কে দায়ী করেন। তাকে সহযোগীতা করেছে জবির সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম এই বিষয়ে সুইসাইড নোটে উল্লেখ করেন।
অভিযোগের বিষয়ে অস্বীকার করে সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম বলেন, এর সঙ্গে আমার কোনো সম্পৃক্ততা নেই। মেয়েটার সাথে দেড় বছর আগে আমাদের কথা হয়েছে ছেলেটার বিষয় নিয়ে। আমি চাই এই ঘটনার সুস্থ তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।
ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত আম্মান সিদ্দিকী এক ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৫:২৪:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ মার্চ ২০২৪
৪৬ বার পড়া হয়েছে

জবি ছাত্রীর আত্মহত্যারর ঘটনায় অভিযুক্ত সহপাঠীকে বহিষ্কার, সহকারী প্রক্টর বরখাস্ত

আপডেট : ০৫:২৪:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৬ মার্চ ২০২৪
(ছবিতে বা থেকে অবন্তিকা, অভিযুক্ত আম্মান এবং সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম)
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ফাইরুজ অবন্তিকা আত্মহত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলামকে একাডেমিক ও প্রশাসনিক দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি এবং সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। শনিবার (১৬ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার  অধ্যাপক ড. আইনুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত সকলকে গ্রেপ্তারের নির্দেশনা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এছাড়া শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসেনকে আহ্বায়ক করে গঠিত ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি সাত দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। এ ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত ও বিচারের দাবিতে শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে সারাদিন বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা।
শুক্রবার (১৫ ই মার্চ) রাত ১০ টার দিকে কুমিল্লা সদরের নিজ বাড়িতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে ফাইরুজ অবন্তীকা। পরে তাকে উদ্ধার করে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে সেখান কার দায়িত্বরত চিকিৎসকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই আত্মহত্যার জন্য তিনি তার সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকী কে দায়ী করেন। তাকে সহযোগীতা করেছে জবির সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম এই বিষয়ে সুইসাইড নোটে উল্লেখ করেন।
অভিযোগের বিষয়ে অস্বীকার করে সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম বলেন, এর সঙ্গে আমার কোনো সম্পৃক্ততা নেই। মেয়েটার সাথে দেড় বছর আগে আমাদের কথা হয়েছে ছেলেটার বিষয় নিয়ে। আমি চাই এই ঘটনার সুস্থ তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক।
ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত আম্মান সিদ্দিকী এক ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন।