১১:০০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

টঙ্গীবাড়িতে সরকারি খালে বালু ভরাটের অভিযোগ

আনিছুররহমান (রলিন) মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি
মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার  যষলং ইউনিয়ন, ৯নং ওয়ার্ড পুরাগ্রামে গত এক বছর আগে সোহেল খানের বাড়ির পশ্চিম পাশে ১ নং খতিয়ানের প্রভাবশালী আঃমজিদ আকন চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় সরকারি খাল ভরাট করার অভিযোগ উঠেছে। এতে অদ‍্য এলাকার  জনগণের সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। খালটি ভরাটের কারণে সঠিকভাবে পানি সরবরাহ হচ্ছে না বিদায় জলবদ্ধতা তৈরি হয়েছে।
এই ব্যাপারে বাঘিয়া বাজার ভূমি অফিসে অভিযোগ দিলে তারা কোন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না বলেও অভিযোগ।  এলাকাবাসীর এই বিষয়টি নিয়ে গণস্বাক্ষরিত দুটি অভিযোগ মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রশাসকের বরাবর আবেদন করেন । যার নাম্বার ৫৯ ১২-০ ২৩ ১ ০০৯ অন্যটি নং ৫৯১২০২৩১০১৯ অত্র খালটি বালু দিয়ে ভরাট করার কারণে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। ১ নং খতিয়ানের জায়গা দখল হয়ে যাচ্ছে এ ব্যাপারে অত্র এলাকার সাধারণ জনগণ দ্রুত জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করছে।
স্থানীয় মেম্বার নুরু বলেন, অবৈধ ভাবে সরকারি খাল বালু দিয়ে ১ বছর আগে ভরাট করে একটি প্রভাবশালী মহল।
পরে সাবেক মেম্বার, বর্তমান চেয়ারম্যান ও স্থানীয় গণ্যমান ব্যক্তিসহ এই বিষয়ে সমাধানের জন্য বসে। পরে সিদ্ধান্ত হয় পূর্বে যে রাস্তাটি আছে সেটি
সংস্কার করলে স্থানীয় এলাকার শতাধিক পরিবারে যাতায়াত করতে সুবিধা হবে। কিন্তু তারা আইন মানছে না। এই নিয়ে ভূমি অফিসে জানানো হলে তারাও লিখিত অভিযোগ দিছেন যেন সরকারি খালের জায়গার বালু সরানোর। কিন্তু মানছে না। একটি পরিবারে জন্য শুধু সরকারি খাল ভরাট করেছে। এই বিষয়ে আমরা একমত না। সরকারি খালের জায়গা ভরাট করতে পারে না।
 তিনি আরও বলেন, ইউএনও মহোদয়, চেয়ারম্যানসহ  বিষয়টি জানেন , এখন সবাই মিলে সরকারি জায়গায় যে  বালু ভরাট করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে।
এ বিষয়ে গত ১৫ ( সেপ্টেম্বর) টঙ্গীবাড়ি উপেজলার  ইউএনও অফিসে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
স্থানীয় মোঃ সোহেল খান বলেন ,এই খালটি দ্রুত বালু অপসারণ করা প্রয়োজন ।
 ইউএনও মৌখিক আদেশ দেওয়ার পরও আজ পর্যন্ত তারা বালু অপসারণ করেনি এমনকি এই খালের উপরে বাড়িঘর নির্মাণ করার ও পরিকল্পনা করছে ।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৩:৩৯:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০২৩
৯২ বার পড়া হয়েছে

টঙ্গীবাড়িতে সরকারি খালে বালু ভরাটের অভিযোগ

আপডেট : ০৩:৩৯:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০২৩
মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার  যষলং ইউনিয়ন, ৯নং ওয়ার্ড পুরাগ্রামে গত এক বছর আগে সোহেল খানের বাড়ির পশ্চিম পাশে ১ নং খতিয়ানের প্রভাবশালী আঃমজিদ আকন চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় সরকারি খাল ভরাট করার অভিযোগ উঠেছে। এতে অদ‍্য এলাকার  জনগণের সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। খালটি ভরাটের কারণে সঠিকভাবে পানি সরবরাহ হচ্ছে না বিদায় জলবদ্ধতা তৈরি হয়েছে।
এই ব্যাপারে বাঘিয়া বাজার ভূমি অফিসে অভিযোগ দিলে তারা কোন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না বলেও অভিযোগ।  এলাকাবাসীর এই বিষয়টি নিয়ে গণস্বাক্ষরিত দুটি অভিযোগ মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রশাসকের বরাবর আবেদন করেন । যার নাম্বার ৫৯ ১২-০ ২৩ ১ ০০৯ অন্যটি নং ৫৯১২০২৩১০১৯ অত্র খালটি বালু দিয়ে ভরাট করার কারণে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। ১ নং খতিয়ানের জায়গা দখল হয়ে যাচ্ছে এ ব্যাপারে অত্র এলাকার সাধারণ জনগণ দ্রুত জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করছে।
স্থানীয় মেম্বার নুরু বলেন, অবৈধ ভাবে সরকারি খাল বালু দিয়ে ১ বছর আগে ভরাট করে একটি প্রভাবশালী মহল।
পরে সাবেক মেম্বার, বর্তমান চেয়ারম্যান ও স্থানীয় গণ্যমান ব্যক্তিসহ এই বিষয়ে সমাধানের জন্য বসে। পরে সিদ্ধান্ত হয় পূর্বে যে রাস্তাটি আছে সেটি
সংস্কার করলে স্থানীয় এলাকার শতাধিক পরিবারে যাতায়াত করতে সুবিধা হবে। কিন্তু তারা আইন মানছে না। এই নিয়ে ভূমি অফিসে জানানো হলে তারাও লিখিত অভিযোগ দিছেন যেন সরকারি খালের জায়গার বালু সরানোর। কিন্তু মানছে না। একটি পরিবারে জন্য শুধু সরকারি খাল ভরাট করেছে। এই বিষয়ে আমরা একমত না। সরকারি খালের জায়গা ভরাট করতে পারে না।
 তিনি আরও বলেন, ইউএনও মহোদয়, চেয়ারম্যানসহ  বিষয়টি জানেন , এখন সবাই মিলে সরকারি জায়গায় যে  বালু ভরাট করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে।
এ বিষয়ে গত ১৫ ( সেপ্টেম্বর) টঙ্গীবাড়ি উপেজলার  ইউএনও অফিসে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
স্থানীয় মোঃ সোহেল খান বলেন ,এই খালটি দ্রুত বালু অপসারণ করা প্রয়োজন ।
 ইউএনও মৌখিক আদেশ দেওয়ার পরও আজ পর্যন্ত তারা বালু অপসারণ করেনি এমনকি এই খালের উপরে বাড়িঘর নির্মাণ করার ও পরিকল্পনা করছে ।