০৭:৫১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

তাড়াশে ভুট্টার ক্ষেত থেকে উদ্ধার হলো নবজাতক

মো. মুন্না হুসাইন, তাড়াশ, সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার মাগুরা বিনোদ ইউনিয়নের চরহাকুড়িয়া গ্রামে সকালে ভুট্টার ক্ষেত থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় এক নবজাতক উদ্ধার করা হয়েছে। লাবনী বেগম নামের একজন মেয়ে, শিশুটিকে উদ্ধার করে তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন। এ নিয়ে এলাকায় চরম চঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন। তিনি জানান নবজাতকটি সুস্থ আছেন।
জানা যায়, মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়নের চর হামকুড়িয়া গ্রামে মঙ্গলবার সকালে কে বা কাহারা সদ্য জন্ম নেওয়া কন্যা  শিশুটিকে ভুট্টার ক্ষেতে ফেলে যায়। খবর পেয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন ঐ গ্রামের বাসিন্দা লাবনী বেগম। এই খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে অনেকেই শিশুটিকে দত্তক নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। শিশুটির দায়িত্ব নিতে হাসপাতালে ভিড় করছেন অনেকেই।
লাবনী বেগম বলেন, শিশুটির নাম রাখা এখনও হয়নাই দত্তক নিতে অনেক অনুরোধ আসছে। শিশুটি এখন সে সুস্থ আছে। আমার দুই ছেলে এক মেয়ে আছে তারপর ও আমি এই শিশু টি কে লালন-পালন করতে চাই।
এ বিষয়ে মাগুরা বিনোদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান ম্যাগনেট বলেন ঘটনাটি জানাজানি হলে লোক মুখে শুনতে পাই যে ভুট্টার ক্ষেতে নাকি একটি নবজাতক (শিশু) কান্নাকাটি করছে সাথে সাথে আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তাড়াশ থানায় বিষয়টি অবগত করি এবং গ্রাম পুলিশকে নবজাতকের সুরক্ষা নিশ্চিত করি।
উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা বলেন আইনগত ভাবে নিঃসন্তান ছাড়া কোন পরিবার দত্তক নিতে পারে না।তবে এ ব্যপারে উর্ধতন কর্মকর্তা কে জানিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
ট্যাগস :
আপডেট : ০২:২১:২০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪
১৩৭ বার পড়া হয়েছে

তাড়াশে ভুট্টার ক্ষেত থেকে উদ্ধার হলো নবজাতক

আপডেট : ০২:২১:২০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪
সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার মাগুরা বিনোদ ইউনিয়নের চরহাকুড়িয়া গ্রামে সকালে ভুট্টার ক্ষেত থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় এক নবজাতক উদ্ধার করা হয়েছে। লাবনী বেগম নামের একজন মেয়ে, শিশুটিকে উদ্ধার করে তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন। এ নিয়ে এলাকায় চরম চঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন তাড়াশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন। তিনি জানান নবজাতকটি সুস্থ আছেন।
জানা যায়, মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়নের চর হামকুড়িয়া গ্রামে মঙ্গলবার সকালে কে বা কাহারা সদ্য জন্ম নেওয়া কন্যা  শিশুটিকে ভুট্টার ক্ষেতে ফেলে যায়। খবর পেয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন ঐ গ্রামের বাসিন্দা লাবনী বেগম। এই খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে অনেকেই শিশুটিকে দত্তক নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। শিশুটির দায়িত্ব নিতে হাসপাতালে ভিড় করছেন অনেকেই।
লাবনী বেগম বলেন, শিশুটির নাম রাখা এখনও হয়নাই দত্তক নিতে অনেক অনুরোধ আসছে। শিশুটি এখন সে সুস্থ আছে। আমার দুই ছেলে এক মেয়ে আছে তারপর ও আমি এই শিশু টি কে লালন-পালন করতে চাই।
এ বিষয়ে মাগুরা বিনোদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান ম্যাগনেট বলেন ঘটনাটি জানাজানি হলে লোক মুখে শুনতে পাই যে ভুট্টার ক্ষেতে নাকি একটি নবজাতক (শিশু) কান্নাকাটি করছে সাথে সাথে আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও তাড়াশ থানায় বিষয়টি অবগত করি এবং গ্রাম পুলিশকে নবজাতকের সুরক্ষা নিশ্চিত করি।
উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা বলেন আইনগত ভাবে নিঃসন্তান ছাড়া কোন পরিবার দত্তক নিতে পারে না।তবে এ ব্যপারে উর্ধতন কর্মকর্তা কে জানিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।