১০:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

দুর্গাপুরে ইউড্রেন নির্মানের আগেই বিল উত্তোলন

প্রতিনিধির নাম
নেত্রকোনাস্থ দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের অর্থায়নে গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নের অংশ হিসাবে ফারংপাড়া গ্রামের ইনসাফ মাদ্রাসার পাশের রাস্তায় একটি ইউড্রেন/কালবার্ড নির্মান করে বিল উত্তোলনের কথা থাকলেও  তা না করে অগ্রিম বিল উত্তোলন করার অভিযোগ উঠেছে ঐ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহিনুর আলম সাজু’র বিরদ্ধে।
প্রকল্প কমিটির সভাপতি ঐ ওয়ার্ডের প্রাক্তন মেম্বার আঃ বারেক বলেন,এসকল প্রকল্পের কাজ চেয়ারম্যান সাহেব করে থাকেন বিলও উত্তোলন করেন তিনি,আমাদেরকে শুধু নামে মাত্র প্রকল্প কমিটির সভাপতি করা হয়।
অভিযোগের প্রেক্ষিতে ২ ফেব্রয়ারী বুধবার সরেজমিনে গেলে প্রত্যক্ষ করা যায় যে, উক্ত চেয়ারম্যান সাহেবের নির্দেশে তরিগড়ি করে অত্যন্ত নির্মানের উপকরন দিয়ে নামকাওয়াস্তে একটি ইউড্রেন / কালবার্ড নির্মান কাজ চলতে ছিলো। যা নকসা ও ইস্টিমিটি এর সাথে কোন মিল নাই। সূত্রে জানা যায় ২০২১-২২ অর্থ বছরের দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের অর্থায়নে গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য এই প্রকল্পে ১লক্ষ ৯০ হাজার টাকা বরাদ্ধ হয়, কিন্তু কাজ সম্পন্ন করার অনেক আগেই ঐ কাজের পুরো বিল উত্তোলন করে নেন ঐ চেয়ারম্যান। প্রতিবেশিরা জানান আমাগো মেম্বার কইছিল এইহানে একটা কালবার্ড অইবো,পরে হুনি ঐ কালবার্ডের টেহা চেয়ারম্যান সাব খাইয়া ফালাইছে। একটি মহল বলেন চেয়ারম্যান শাহিনুর আলম সাজু নির্বাচনে ফেল করায় বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্যই তরিগড়ি করে নামমাত্র কাজ সম্পন্ন করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এগুলি জনগনের টাকা এই টাকা ইউনিয়ন পরিষদের অনুকুলে ফেরত দেওয়ার জন্য প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিতে আমরা জোর দাবী জানাই। চেয়ারম্যান শাহিনুর আলম সাজু’র ফোনে ফোন দিলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৭:৫৪:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২
৫১০ বার পড়া হয়েছে

দুর্গাপুরে ইউড্রেন নির্মানের আগেই বিল উত্তোলন

আপডেট : ০৭:৫৪:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২
নেত্রকোনাস্থ দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের অর্থায়নে গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নের অংশ হিসাবে ফারংপাড়া গ্রামের ইনসাফ মাদ্রাসার পাশের রাস্তায় একটি ইউড্রেন/কালবার্ড নির্মান করে বিল উত্তোলনের কথা থাকলেও  তা না করে অগ্রিম বিল উত্তোলন করার অভিযোগ উঠেছে ঐ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহিনুর আলম সাজু’র বিরদ্ধে।
প্রকল্প কমিটির সভাপতি ঐ ওয়ার্ডের প্রাক্তন মেম্বার আঃ বারেক বলেন,এসকল প্রকল্পের কাজ চেয়ারম্যান সাহেব করে থাকেন বিলও উত্তোলন করেন তিনি,আমাদেরকে শুধু নামে মাত্র প্রকল্প কমিটির সভাপতি করা হয়।
অভিযোগের প্রেক্ষিতে ২ ফেব্রয়ারী বুধবার সরেজমিনে গেলে প্রত্যক্ষ করা যায় যে, উক্ত চেয়ারম্যান সাহেবের নির্দেশে তরিগড়ি করে অত্যন্ত নির্মানের উপকরন দিয়ে নামকাওয়াস্তে একটি ইউড্রেন / কালবার্ড নির্মান কাজ চলতে ছিলো। যা নকসা ও ইস্টিমিটি এর সাথে কোন মিল নাই। সূত্রে জানা যায় ২০২১-২২ অর্থ বছরের দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের অর্থায়নে গ্রামীন অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য এই প্রকল্পে ১লক্ষ ৯০ হাজার টাকা বরাদ্ধ হয়, কিন্তু কাজ সম্পন্ন করার অনেক আগেই ঐ কাজের পুরো বিল উত্তোলন করে নেন ঐ চেয়ারম্যান। প্রতিবেশিরা জানান আমাগো মেম্বার কইছিল এইহানে একটা কালবার্ড অইবো,পরে হুনি ঐ কালবার্ডের টেহা চেয়ারম্যান সাব খাইয়া ফালাইছে। একটি মহল বলেন চেয়ারম্যান শাহিনুর আলম সাজু নির্বাচনে ফেল করায় বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্যই তরিগড়ি করে নামমাত্র কাজ সম্পন্ন করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এগুলি জনগনের টাকা এই টাকা ইউনিয়ন পরিষদের অনুকুলে ফেরত দেওয়ার জন্য প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিতে আমরা জোর দাবী জানাই। চেয়ারম্যান শাহিনুর আলম সাজু’র ফোনে ফোন দিলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।