০৩:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

ধামরাইয়ে প্রেমের টানে ঘর ছাড়লেন এক সন্তানের জননী

প্রতিনিধির নাম
ঢাকার ধামরাইয়ে পরকীয়া প্রেমের জেরে একটি পুত্র সন্তান রেখে আরিয়ান নামের এক যুবকের সাথে পালিয়ে যান বলে খবর পাওয়া গেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার বিকাল তিনটার দিকে ধামরাই  উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাস্তা গ্রামে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
ওই গৃহবধূ ধামরাই  উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাস্তা গ্রামের মেহেরাব হোসেন ডালিমের স্ত্রী। কোমলমতি একটি পুত্র সন্তান রেখে ডালিমের স্ত্রী অবৈধ ভালোবাসার টানে অন্যত্র চলে যাওয়াতে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছে হতভাগা স্বামী ডালিম।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ডালিমের সাথে একই এলাকার দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে লাইছা আফরিন দিনার সাথে ৪ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের দুই বছরের মাথায় কুমিল্লা জেলার আরিয়ান নামের এক যুবকের সাথে প্রেমের টানে বাড়ি থেকে চলে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করে ডালিম তার স্ত্রীকে ফিরিয়ে নিয়ে আসলেও স্ত্রী লাইছার মন থেকে আরিয়ানের নাম মুছতে পারেনি। তাই প্রথম পুত্র সন্তানের নাম রাখে প্রেমিকের নামের সাথে মিল রেখে আরিয়ান। সন্তান জন্মের পর ভালোই চলছিলো তাদের সংসার জীবন। কিন্তু ভালোবাসার টানে আজ দ্বিতীয়বারের মতো চলে যায় প্রেমিকের হাত ধরে।
বাস্তা ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বিপ্লব সরকার বলেন, ঘটনাটি আমি সন্ধ্যার আগ মুহূর্তে শুনেছি। বিকেলের দিকে বিপ্লবের স্ত্রী ছেলের জন্য দুধ আনতে কাওয়ালিপাড়া বাজারের কথা বলে চলে যায়। শুনেছি কুমিল্লার এক ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। তার সাথেই চলে যায়।
লাইছার স্বামী মেহেরাব হোসেন ডালিমের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে কাওয়ালিপাড়া বাজার পুলিশ  তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ রাসেল মোল্লা বলেন, এবিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ দায়ের করলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৫:২৯:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২
১৬১ বার পড়া হয়েছে

ধামরাইয়ে প্রেমের টানে ঘর ছাড়লেন এক সন্তানের জননী

আপডেট : ০৫:২৯:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২
ঢাকার ধামরাইয়ে পরকীয়া প্রেমের জেরে একটি পুত্র সন্তান রেখে আরিয়ান নামের এক যুবকের সাথে পালিয়ে যান বলে খবর পাওয়া গেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার বিকাল তিনটার দিকে ধামরাই  উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাস্তা গ্রামে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
ওই গৃহবধূ ধামরাই  উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাস্তা গ্রামের মেহেরাব হোসেন ডালিমের স্ত্রী। কোমলমতি একটি পুত্র সন্তান রেখে ডালিমের স্ত্রী অবৈধ ভালোবাসার টানে অন্যত্র চলে যাওয়াতে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছে হতভাগা স্বামী ডালিম।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ডালিমের সাথে একই এলাকার দেলোয়ার হোসেনের মেয়ে লাইছা আফরিন দিনার সাথে ৪ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের দুই বছরের মাথায় কুমিল্লা জেলার আরিয়ান নামের এক যুবকের সাথে প্রেমের টানে বাড়ি থেকে চলে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করে ডালিম তার স্ত্রীকে ফিরিয়ে নিয়ে আসলেও স্ত্রী লাইছার মন থেকে আরিয়ানের নাম মুছতে পারেনি। তাই প্রথম পুত্র সন্তানের নাম রাখে প্রেমিকের নামের সাথে মিল রেখে আরিয়ান। সন্তান জন্মের পর ভালোই চলছিলো তাদের সংসার জীবন। কিন্তু ভালোবাসার টানে আজ দ্বিতীয়বারের মতো চলে যায় প্রেমিকের হাত ধরে।
বাস্তা ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বিপ্লব সরকার বলেন, ঘটনাটি আমি সন্ধ্যার আগ মুহূর্তে শুনেছি। বিকেলের দিকে বিপ্লবের স্ত্রী ছেলের জন্য দুধ আনতে কাওয়ালিপাড়া বাজারের কথা বলে চলে যায়। শুনেছি কুমিল্লার এক ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। তার সাথেই চলে যায়।
লাইছার স্বামী মেহেরাব হোসেন ডালিমের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে কাওয়ালিপাড়া বাজার পুলিশ  তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ রাসেল মোল্লা বলেন, এবিষয়ে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ দায়ের করলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।