১১:০৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

নবীগঞ্জে রাতে উপজেলা প্রশাসনের অভিযানে ১ মাদকবিক্রেতাকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড

প্রতিনিধির নাম

নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এবং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট উত্তম কুমার দাশের সার্বিক তত্ত্বাবধানে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশের সহযোগিতায় নবীগঞ্জ উপজেলার ১ নং ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রামে ২২শে ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার রাত অনুমান ৯ ঘটিকার সময় কয়েকটি মাদকের আস্তানায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ১ জন ব্যক্তিকে হাতে নাতে মাদক বিক্রির প্রস্তুতি ও বিভিন্ন যন্ত্রপাতিসহ মাদকের আস্তানা থেকে আটক করা হয়। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট উত্তম কুমার দাশের নেতৃত্বে আটককৃত ব্যক্তিকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। আটককৃত ব্যক্তিকে  মাদকদ্রব্য ও মদক বিক্রির  দায়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ২০১৮ এর ৩৬(১) ধারা  মোতাবেক পূর্নিমা রানী দাস(৪৬), স্বামীঃ মতিলাল দাস, নামের ব্যক্তিকে  তিন(০৩) মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। মাদকদ্রব্য অধিদপ্তর, হবিগঞ্জ ও স্থানীয়  পুলিশের  সহযোগিতায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট  জনাব উত্তম কুমার দাশ  মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। এবিষয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নিকট জনাব মোঃ এমদাদুল্লাহ, পরিদর্শক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, হবিগঞ্জ  প্রসিকিসন দেন এবং  তার টিম সার্বিক সহযোগিতা করেছে। উল্লেখ্য যে, আসামি পুর্নিমা রানী দাসের গোয়ালঘরের মাটির নিচের গর্ত থেকে প্রায় ৩ কেজি গাজা উদ্ধার করা হয় যা তিনি বিক্রির উদ্দেশ্যে সংরক্ষণ করেছিলেন বলে মোবাইল কোর্ট এর নিকট স্বীকার করেন। অতঃপর জব্দকৃত গাজা ধ্বংস করা হয়। এবিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট উত্তম কুমার দাশ।

ট্যাগস :
আপডেট : ০৪:০০:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২
১২৬ বার পড়া হয়েছে

নবীগঞ্জে রাতে উপজেলা প্রশাসনের অভিযানে ১ মাদকবিক্রেতাকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড

আপডেট : ০৪:০০:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২

নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এবং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট উত্তম কুমার দাশের সার্বিক তত্ত্বাবধানে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশের সহযোগিতায় নবীগঞ্জ উপজেলার ১ নং ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রামে ২২শে ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার রাত অনুমান ৯ ঘটিকার সময় কয়েকটি মাদকের আস্তানায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ১ জন ব্যক্তিকে হাতে নাতে মাদক বিক্রির প্রস্তুতি ও বিভিন্ন যন্ত্রপাতিসহ মাদকের আস্তানা থেকে আটক করা হয়। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট উত্তম কুমার দাশের নেতৃত্বে আটককৃত ব্যক্তিকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। আটককৃত ব্যক্তিকে  মাদকদ্রব্য ও মদক বিক্রির  দায়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন ২০১৮ এর ৩৬(১) ধারা  মোতাবেক পূর্নিমা রানী দাস(৪৬), স্বামীঃ মতিলাল দাস, নামের ব্যক্তিকে  তিন(০৩) মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। মাদকদ্রব্য অধিদপ্তর, হবিগঞ্জ ও স্থানীয়  পুলিশের  সহযোগিতায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট  জনাব উত্তম কুমার দাশ  মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। এবিষয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নিকট জনাব মোঃ এমদাদুল্লাহ, পরিদর্শক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, হবিগঞ্জ  প্রসিকিসন দেন এবং  তার টিম সার্বিক সহযোগিতা করেছে। উল্লেখ্য যে, আসামি পুর্নিমা রানী দাসের গোয়ালঘরের মাটির নিচের গর্ত থেকে প্রায় ৩ কেজি গাজা উদ্ধার করা হয় যা তিনি বিক্রির উদ্দেশ্যে সংরক্ষণ করেছিলেন বলে মোবাইল কোর্ট এর নিকট স্বীকার করেন। অতঃপর জব্দকৃত গাজা ধ্বংস করা হয়। এবিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট উত্তম কুমার দাশ।