০৬:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

পূর্ব শত্রুতার জের – ছাগলনাইয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় আহত তিন ! থানায় অভিযোগ

প্রতিনিধির নাম
ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নে পূর্ব শত্রুতার জেরে সন্ত্রাসী হামলায় তিনজন আহত হয়েছে।আহতরা হলেন ছাগলনাইয়া পৌসভার মধ্যম মটুয়া পাটোয়ারী বাড়ীর আবুল কাশেমের ছেলে আরমান হোসেন শিবলু(২৬), আবু আহাম্মদের ছেলে মোঃ আদনান(২৬) ও ঘোপাল ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মোঃ ইউনুছ(৩২)।উক্ত ঘটনায় এক নং বিবাদী আরমান হোসেন শিবলুর পিতা আবুল কাশেম বাদী হয়ে ১৪-১৫ জন হামলাকারীর নাম উল্লেখ করে ছাগলনাইয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।হামলাকারীরা হল শুভপুর ইউনিয়নের কৈয়ারা গ্রামের হায়েফ বলি বাড়ীর জুলকু মিয়ার ছেলে আবদুল লতিফ (বলী),তার ছেলে মোঃ গোলাম মোরতুজা (শাকিল), মোঃ শাহিন(৩০),ছয়ঘরিয়া গ্রামের আমির হোসেন পুলিশের বাড়ীর মৃত সুরুজ মিয়ার ছেলে মোঃ হানিফ মিয়া,উত্তর ছয়ঘরিয়া গ্রামের হক সাবের ছেলে আজিজুল হক (সজিব)(২৩), মৃত আবুল বাসার এর ছেলে ফারুক হোসেন (৩৩),তৌহিদ ড্রাইভারের ছেলে মোঃ রায়হান(২৬),উত্তর বল্লভপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেন দেলু মিয়ার ছেলে আরিফ হোসেন(৩০) এবং কৈয়ারা গ্রামের দেলোয়ার হোসেন (৩০) (পিতা-অজ্ঞাত)। অভিযোগের বিবরনে জানাযায় ০৩ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা অনুমান সাড়ে ০৭ টার দিকে দারোগা বাজারে সাহাব উদ্দীন মার্কেটে আরমান হোসেনের নিজ ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে( ফার্নিচার) সে নিজেসহ মোঃ ইউনুছ,মোঃ আদনান, পাশের দোকানদার মোঃ জামশেদ টেইলর, মোঃ সোহেল হেঞ্জুমিয়া ও নুরুল হুদা দোকানে অবস্থান করছিল।এসময় সন্ত্রাসীরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে লাঠিসোটা, লোহার রড, দা,ছুরি,দামা,হকিস্টিক নিয়ে অতর্কিতভাবে হামলা চালায়।এসময় স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ৫০ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। হামলায় আরমান হোসেনের হাতের দুই আঙ্গুল কেটে ও ভেঙ্গে মারাত্নক আঘাতপ্রাপ্ত হয় এবং দুইটি আঙ্গুল শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। মোঃ আদনান এর মাথায়,কপাল,হাত,পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান কাটা যায়,মোঃ ইউনুছ এর ৪৫ হাজার টাকা মূল্যের নোকিয়া মোবাইল সেটটি সন্ত্রাসীরা ভেঙ্গে ফেলে। হামলার সময় তাদের সাথে থাকা প্রায় ৫ লাখ ৬৫ হাজার টাকা সন্ত্রাসীরা নিয়ে যায়।বাদি আবুল কাসেম আরো জানায় গত ০৪ জানুয়ারী ২২ খ্রি.আমার ছেলে আরমান হোসেনের উপর সন্ত্রাসী মোঃ হানিফগং অতর্কিত হামলা করলে আমি বাদী হয়ে ছাগলনাইয়া থানায় একটি এফআইআর মামলা দায়ের করি যাহা ছাগলনাইয়া থানায় জি.আর নং-০৩/২২ ইং হিসেবে বিজ্ঞ আদালতে চলমান রয়েছে।উক্ত ঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনার বিষয়ে ছাগলনাইয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম জানান উক্ত ঘটনায় থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে এবং আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।
ট্যাগস :
আপডেট : ১০:১৭:০৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২২
১৪২ বার পড়া হয়েছে

পূর্ব শত্রুতার জের – ছাগলনাইয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় আহত তিন ! থানায় অভিযোগ

আপডেট : ১০:১৭:০৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২২
ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নে পূর্ব শত্রুতার জেরে সন্ত্রাসী হামলায় তিনজন আহত হয়েছে।আহতরা হলেন ছাগলনাইয়া পৌসভার মধ্যম মটুয়া পাটোয়ারী বাড়ীর আবুল কাশেমের ছেলে আরমান হোসেন শিবলু(২৬), আবু আহাম্মদের ছেলে মোঃ আদনান(২৬) ও ঘোপাল ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মোঃ ইউনুছ(৩২)।উক্ত ঘটনায় এক নং বিবাদী আরমান হোসেন শিবলুর পিতা আবুল কাশেম বাদী হয়ে ১৪-১৫ জন হামলাকারীর নাম উল্লেখ করে ছাগলনাইয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।হামলাকারীরা হল শুভপুর ইউনিয়নের কৈয়ারা গ্রামের হায়েফ বলি বাড়ীর জুলকু মিয়ার ছেলে আবদুল লতিফ (বলী),তার ছেলে মোঃ গোলাম মোরতুজা (শাকিল), মোঃ শাহিন(৩০),ছয়ঘরিয়া গ্রামের আমির হোসেন পুলিশের বাড়ীর মৃত সুরুজ মিয়ার ছেলে মোঃ হানিফ মিয়া,উত্তর ছয়ঘরিয়া গ্রামের হক সাবের ছেলে আজিজুল হক (সজিব)(২৩), মৃত আবুল বাসার এর ছেলে ফারুক হোসেন (৩৩),তৌহিদ ড্রাইভারের ছেলে মোঃ রায়হান(২৬),উত্তর বল্লভপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেন দেলু মিয়ার ছেলে আরিফ হোসেন(৩০) এবং কৈয়ারা গ্রামের দেলোয়ার হোসেন (৩০) (পিতা-অজ্ঞাত)। অভিযোগের বিবরনে জানাযায় ০৩ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা অনুমান সাড়ে ০৭ টার দিকে দারোগা বাজারে সাহাব উদ্দীন মার্কেটে আরমান হোসেনের নিজ ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে( ফার্নিচার) সে নিজেসহ মোঃ ইউনুছ,মোঃ আদনান, পাশের দোকানদার মোঃ জামশেদ টেইলর, মোঃ সোহেল হেঞ্জুমিয়া ও নুরুল হুদা দোকানে অবস্থান করছিল।এসময় সন্ত্রাসীরা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে লাঠিসোটা, লোহার রড, দা,ছুরি,দামা,হকিস্টিক নিয়ে অতর্কিতভাবে হামলা চালায়।এসময় স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ৫০ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। হামলায় আরমান হোসেনের হাতের দুই আঙ্গুল কেটে ও ভেঙ্গে মারাত্নক আঘাতপ্রাপ্ত হয় এবং দুইটি আঙ্গুল শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। মোঃ আদনান এর মাথায়,কপাল,হাত,পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান কাটা যায়,মোঃ ইউনুছ এর ৪৫ হাজার টাকা মূল্যের নোকিয়া মোবাইল সেটটি সন্ত্রাসীরা ভেঙ্গে ফেলে। হামলার সময় তাদের সাথে থাকা প্রায় ৫ লাখ ৬৫ হাজার টাকা সন্ত্রাসীরা নিয়ে যায়।বাদি আবুল কাসেম আরো জানায় গত ০৪ জানুয়ারী ২২ খ্রি.আমার ছেলে আরমান হোসেনের উপর সন্ত্রাসী মোঃ হানিফগং অতর্কিত হামলা করলে আমি বাদী হয়ে ছাগলনাইয়া থানায় একটি এফআইআর মামলা দায়ের করি যাহা ছাগলনাইয়া থানায় জি.আর নং-০৩/২২ ইং হিসেবে বিজ্ঞ আদালতে চলমান রয়েছে।উক্ত ঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ঘটনার বিষয়ে ছাগলনাইয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম জানান উক্ত ঘটনায় থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে এবং আসামী গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।