১০:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

বগুড়া শেরপুরে স্বামী কর্তৃক পিতার অপমান সহ্য করতে না পেরে মেয়ের আত্মহত্যা

প্রতিনিধির নাম
বগুড়া শেরপুরের খানপুর ইউনিয়নে স্বামী কর্তৃক  পিতার  অপমান সহ্য করতে না পেরে অভিমান করে মারিয়া খাতুন (১৯) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। নিহত মারিয়া শালফা এলাকার আব্দুল করিম আকন্দের ছেলে নাজির আকন্দের স্ত্রী।
রবিবার (২৩ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৫টায় দিকে শালফা এলাকা থেকে শেরপুর থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। এর আগে দুপুর দেড়টার দিকে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।  স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৩ বছর আগে  খানপুর ইউনিয়নের শালফা গ্রামে নাজির আকন্দের সঙ্গে বথুয়াবাড়ি এলাকার মতি ফকিরের মেয়ে মারিয়ার বিয়ে হয়।
তাদের এক বছরের একটি মেয়ে সন্তান আছে। মতি ফকির মেয়ের বাড়িতে দাওয়াত দিতে আসে। দাওয়াত দেওয়া নিয়ে জামাই শশুরকে অপমান করে।  বাবার অপমান সহ্য করতে না পেরে নিজ ঘরের তীরের সঙ্গে গলায় ওরনা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।
এ বিষয়ে শেরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম জানান,  ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি এবং শেরপুর থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। এছাড়াও মৃত্যুর সঠিক কারণ  জানার জন্য লাশটি শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর হয়েছে ।
ট্যাগস :
আপডেট : ১১:২৪:২৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২
২৮৩ বার পড়া হয়েছে

বগুড়া শেরপুরে স্বামী কর্তৃক পিতার অপমান সহ্য করতে না পেরে মেয়ের আত্মহত্যা

আপডেট : ১১:২৪:২৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২
বগুড়া শেরপুরের খানপুর ইউনিয়নে স্বামী কর্তৃক  পিতার  অপমান সহ্য করতে না পেরে অভিমান করে মারিয়া খাতুন (১৯) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। নিহত মারিয়া শালফা এলাকার আব্দুল করিম আকন্দের ছেলে নাজির আকন্দের স্ত্রী।
রবিবার (২৩ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৫টায় দিকে শালফা এলাকা থেকে শেরপুর থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। এর আগে দুপুর দেড়টার দিকে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।  স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৩ বছর আগে  খানপুর ইউনিয়নের শালফা গ্রামে নাজির আকন্দের সঙ্গে বথুয়াবাড়ি এলাকার মতি ফকিরের মেয়ে মারিয়ার বিয়ে হয়।
তাদের এক বছরের একটি মেয়ে সন্তান আছে। মতি ফকির মেয়ের বাড়িতে দাওয়াত দিতে আসে। দাওয়াত দেওয়া নিয়ে জামাই শশুরকে অপমান করে।  বাবার অপমান সহ্য করতে না পেরে নিজ ঘরের তীরের সঙ্গে গলায় ওরনা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।
এ বিষয়ে শেরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম জানান,  ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি এবং শেরপুর থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে। এছাড়াও মৃত্যুর সঠিক কারণ  জানার জন্য লাশটি শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর হয়েছে ।