১২:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

বিটাক কর্তৃক প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ ও নিয়োগপত্র প্রদান অনুষ্ঠিত

প্রতিনিধির নাম
বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক) এর “হাতে-কলমে কারিগরি প্রশিক্ষণে মহিলাদের গুরুত্ব দিয়ে বিটাকের কার্যক্রম সম্প্রসারণপূর্বক আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দারিদ্র্য বিমোচন” প্রকল্পের আওতায় ১১তম ব্যাচের ঢাকা কেন্দ্রের প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ ও নিয়োগপত্র প্রদান কার্যক্রম ২৮মার্চ-২০২৪ ঢাকায় বিটাক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।
বিটাক এর মহাপরিচালক পরিমল সিংহ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শামীমুল হক। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন বিটাকের পরিচালক জনাব মোঃ জিয়াউল হক এবং প্রকল্প পরিচালক মোঃ ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী।
প্রধান অতিথি শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শামীমুল হক বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ গড়ার চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কারিগরি শিক্ষার গুরুত্ব অপরিসীম। বিটাকের এ প্রকল্পের মাধ্যমে নারীদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দারিদ্র্য বিমোচনের বিশাল সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। তিনি এ সময় সফলভাবে সম্পন্নকারী প্রশিক্ষণার্থীদের প্রাণ আরএফএল গ্রুপ ও ডাচ-বাংলা প্যাক লিমিটেড চাকরি প্রদান করায় কোম্পানি দু’টিকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।
উল্লেখ্য, এ প্রশিক্ষণে ২৬২ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করে যার মধ্যে ২৫০ জনকে প্রাণ আরএফএল গ্রুপ ও ডাচ-বাংলা প্যাক লিমিটেডে চাকরির সুযোগ প্রদান করা হয়েছে।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৪:১৯:৪৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪
১২১ বার পড়া হয়েছে

বিটাক কর্তৃক প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ ও নিয়োগপত্র প্রদান অনুষ্ঠিত

আপডেট : ০৪:১৯:৪৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪
বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক) এর “হাতে-কলমে কারিগরি প্রশিক্ষণে মহিলাদের গুরুত্ব দিয়ে বিটাকের কার্যক্রম সম্প্রসারণপূর্বক আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দারিদ্র্য বিমোচন” প্রকল্পের আওতায় ১১তম ব্যাচের ঢাকা কেন্দ্রের প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ ও নিয়োগপত্র প্রদান কার্যক্রম ২৮মার্চ-২০২৪ ঢাকায় বিটাক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।
বিটাক এর মহাপরিচালক পরিমল সিংহ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শামীমুল হক। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন বিটাকের পরিচালক জনাব মোঃ জিয়াউল হক এবং প্রকল্প পরিচালক মোঃ ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী।
প্রধান অতিথি শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শামীমুল হক বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ গড়ার চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কারিগরি শিক্ষার গুরুত্ব অপরিসীম। বিটাকের এ প্রকল্পের মাধ্যমে নারীদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দারিদ্র্য বিমোচনের বিশাল সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। তিনি এ সময় সফলভাবে সম্পন্নকারী প্রশিক্ষণার্থীদের প্রাণ আরএফএল গ্রুপ ও ডাচ-বাংলা প্যাক লিমিটেড চাকরি প্রদান করায় কোম্পানি দু’টিকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।
উল্লেখ্য, এ প্রশিক্ষণে ২৬২ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করে যার মধ্যে ২৫০ জনকে প্রাণ আরএফএল গ্রুপ ও ডাচ-বাংলা প্যাক লিমিটেডে চাকরির সুযোগ প্রদান করা হয়েছে।