০৮:২১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

বিরলে জমি সংক্রান্ত বিবাদে সন্ত্রাসী হামলায় মেহেরুল নামের এক ব্যক্তি গুরুতর আহত।

মোঃ মোকারম হোসেন দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বিরল উপজেলার ২ নং ফরকাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নং ওয়ার্ডের তেঘরা মহাদেবপুর সাতভায়া পাড়া গ্রামের মৃত আমানুল্লাহ এর পুত্র মোঃ নজমুল ইসলাম এর সঙ্গে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে পূর্ব শত্রুতার পারিবারিক জের ধরে প্রতিপক্ষ ক্ষিপ্ত হইয়া তার হাতে থাকা লোহার রোড দ্বারা আমাকে কে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার মাথা লক্ষ্য করাইয়া স্বজোরে মাথায় ডাং মারিলে আমি আমার মাথা সরাইয়া নিলে উক্ত ডাং আমার ডান গলার লাগিয়া কাটা ফাটা কালোশিরা জখম করে সেই সুযোগে ২ নং প্রতিপক্ষ মোঃ নায়েম হোসেন পিতা মেহেরুল ইসলাম (৩) নং কোহিনুর বেগম স্বামী মোঃ আলম, উভয়ের সাং- তেঘরা মহাদেবপুর সাতভায়া পাড়া বিরল, দিনাজপুর । আমাকে ঝাপটাই য়া ধরিয়া রাখে এবং ১ নং প্রতিপক্ষ মো মেহেরুল ইসলাম তিনি পেশায় একজন গরুর দালাল। এবং মাদক ব্যবসায়ী। এলাকাবাসী আরো জানান ব্যবসার পাশাপাশি তিনি মাদক সেবন করেন।এবং মাদক সেবন করা থাকা অবস্থায় আমার ডান হাতের বৃদ্ধা আঙ্গুল কামড় দিয়া মাংস সহ নক তুলিয়া কাটা ফাটা রক্তাক্ত জখম করে এবং সেই সাথে আমার মুখের দাড়ি টানিয়া ছিড়ে ফেলে দেন ।আমার ডাক চিৎকারে আমার স্ত্রী আমাকে রক্ষা করিতে আগায় আসিলে ১ নং ও ২ নং প্রতিপক্ষ দয় আমার স্ত্রীকেও কিল ঘুষি লাথি মারিয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছিলা ফুলা জখম করে ১ নং প্রতিপক্ষ মেহেরুল ইসলাম আমার স্ত্রীর চুলের মুঠি ধরিয়া টানাটানি করে চুল ছিড়িয়া নে।এরপরে স্থানীয় লোকজন এসে আহত অবস্থায় দেখে তাদেরকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় তিনি বর্তমানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। জায়গা জমির বিষয় নিয়ে মারামারির ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত ২০-১১-২৩ তারিখে বিরল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন । অভিযোগের বিষয় নিয়ে বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ এর সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান মারামারির ঘটনার বিষয়টি সঠিকভাবে তদন্ত করে আসামিদের বিরুদ্ধে আইন আনুক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হইবে। এছাড়াও গত ২১ তারিখে অভিযোগকারী মোঃ নাজমুল ইসলামের বাড়িতে রাত্রি আনুমানিক সাড়ে সাতটার দিকে ইটের টুকরা দিয়ে তার বাড়ীতে টিনের উপরে ফিক মারে সেই সাথে বাড়ির পাশে গচ্ছিত রাখা খেড়ের টালির মধ্যে নেহরুলের সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা আগুন লাগিয়ে দেয় । আহত ব্যক্তি নজমুল ইসলাম ও তার স্ত্রী সাংবাদিকদেরকে জানান নিম্নত তফসিল বর্ণিত সম্পত্তি আমি দলিল মূলে খরিদ কোরিয়া বি এস মাঠ পর্চা সহ খাজনা খারিজ করিয়া দীর্ঘদিন যাবত ভোগ দখল করিয়া আসিতেছি।আমার পাকা ধানের ফসলের আবাদি জমিতে পানি ফেললে । প্রতিপক্ষ দেরকে পানি ফেলার বাধা সৃষ্টি করলে ক্ষমতা আর অর্থ জোরে আমার পরিবারের উপরে বিভিন্ন ধরনের হামলা সৃষ্টি করে। এ বিষয় নিয়ে দিনাজপুর পুলিশ সুপার মহোদয়ের নিকট আসু হস্তক্ষেপ কামনা করেন অভিযোগকারীর আত্মীয়-স্বজনেরা দাবি জানান।

ট্যাগস :
আপডেট : ০৭:৪৩:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০২৩
১১৯ বার পড়া হয়েছে

বিরলে জমি সংক্রান্ত বিবাদে সন্ত্রাসী হামলায় মেহেরুল নামের এক ব্যক্তি গুরুতর আহত।

আপডেট : ০৭:৪৩:৪৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০২৩

দিনাজপুরের বিরল উপজেলার ২ নং ফরকাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নং ওয়ার্ডের তেঘরা মহাদেবপুর সাতভায়া পাড়া গ্রামের মৃত আমানুল্লাহ এর পুত্র মোঃ নজমুল ইসলাম এর সঙ্গে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে পূর্ব শত্রুতার পারিবারিক জের ধরে প্রতিপক্ষ ক্ষিপ্ত হইয়া তার হাতে থাকা লোহার রোড দ্বারা আমাকে কে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার মাথা লক্ষ্য করাইয়া স্বজোরে মাথায় ডাং মারিলে আমি আমার মাথা সরাইয়া নিলে উক্ত ডাং আমার ডান গলার লাগিয়া কাটা ফাটা কালোশিরা জখম করে সেই সুযোগে ২ নং প্রতিপক্ষ মোঃ নায়েম হোসেন পিতা মেহেরুল ইসলাম (৩) নং কোহিনুর বেগম স্বামী মোঃ আলম, উভয়ের সাং- তেঘরা মহাদেবপুর সাতভায়া পাড়া বিরল, দিনাজপুর । আমাকে ঝাপটাই য়া ধরিয়া রাখে এবং ১ নং প্রতিপক্ষ মো মেহেরুল ইসলাম তিনি পেশায় একজন গরুর দালাল। এবং মাদক ব্যবসায়ী। এলাকাবাসী আরো জানান ব্যবসার পাশাপাশি তিনি মাদক সেবন করেন।এবং মাদক সেবন করা থাকা অবস্থায় আমার ডান হাতের বৃদ্ধা আঙ্গুল কামড় দিয়া মাংস সহ নক তুলিয়া কাটা ফাটা রক্তাক্ত জখম করে এবং সেই সাথে আমার মুখের দাড়ি টানিয়া ছিড়ে ফেলে দেন ।আমার ডাক চিৎকারে আমার স্ত্রী আমাকে রক্ষা করিতে আগায় আসিলে ১ নং ও ২ নং প্রতিপক্ষ দয় আমার স্ত্রীকেও কিল ঘুষি লাথি মারিয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছিলা ফুলা জখম করে ১ নং প্রতিপক্ষ মেহেরুল ইসলাম আমার স্ত্রীর চুলের মুঠি ধরিয়া টানাটানি করে চুল ছিড়িয়া নে।এরপরে স্থানীয় লোকজন এসে আহত অবস্থায় দেখে তাদেরকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় তিনি বর্তমানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। জায়গা জমির বিষয় নিয়ে মারামারির ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত ২০-১১-২৩ তারিখে বিরল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন । অভিযোগের বিষয় নিয়ে বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ এর সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান মারামারির ঘটনার বিষয়টি সঠিকভাবে তদন্ত করে আসামিদের বিরুদ্ধে আইন আনুক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হইবে। এছাড়াও গত ২১ তারিখে অভিযোগকারী মোঃ নাজমুল ইসলামের বাড়িতে রাত্রি আনুমানিক সাড়ে সাতটার দিকে ইটের টুকরা দিয়ে তার বাড়ীতে টিনের উপরে ফিক মারে সেই সাথে বাড়ির পাশে গচ্ছিত রাখা খেড়ের টালির মধ্যে নেহরুলের সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা আগুন লাগিয়ে দেয় । আহত ব্যক্তি নজমুল ইসলাম ও তার স্ত্রী সাংবাদিকদেরকে জানান নিম্নত তফসিল বর্ণিত সম্পত্তি আমি দলিল মূলে খরিদ কোরিয়া বি এস মাঠ পর্চা সহ খাজনা খারিজ করিয়া দীর্ঘদিন যাবত ভোগ দখল করিয়া আসিতেছি।আমার পাকা ধানের ফসলের আবাদি জমিতে পানি ফেললে । প্রতিপক্ষ দেরকে পানি ফেলার বাধা সৃষ্টি করলে ক্ষমতা আর অর্থ জোরে আমার পরিবারের উপরে বিভিন্ন ধরনের হামলা সৃষ্টি করে। এ বিষয় নিয়ে দিনাজপুর পুলিশ সুপার মহোদয়ের নিকট আসু হস্তক্ষেপ কামনা করেন অভিযোগকারীর আত্মীয়-স্বজনেরা দাবি জানান।