০৭:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

ভাসমান ও ছিন্নমূল মানুষদের করোনা টিকা প্রদানে কাউন্সিলর ডি. এম. শামীম এর ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

প্রতিনিধির নাম
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্গত ৫০ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে টিকাদান কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভাসমান ও ছিন্নমূল মানুষদের করোনা টিকা প্রদানের উদ্দেশ্যে মঙ্গল ও বুধবার ৮ ও ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখ ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৫০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জনাব ডি. এম. শামীম একটা ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এটি একটি ভ্রাম্যমান কর্মসূচি। এই ব্যতিক্রমী কর্মসূচির উদ্বোধন করেন ৫০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জনাব আলহাজ্ব ডি. এম. শামীম । তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ২০৪১ বাস্তবায়নে জনগণের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে পিক-আপের মাধ্যমে সমগ্র ৫০নং ওয়ার্ডে ঘুরে ঘুরে ভিক্ষুক, পাগল, প্রতিবন্ধী, উদ্বাস্তুসহ জন্ম নিবন্ধন বা জাতীয় পরিচয়পত্রবিহীন মানুষজনদের এই করোনা টিকা প্রদানের কার্যক্রম গ্রহণ করেছি। যদিও নিবন্ধন ছাড়াই JANSEEN টিকা গ্রহণ করায় কেউ সনদ পাবেন না তথাপি এই টিকার কোন দ্বিতীয় ডোজ নেই, এক ডোজেই কার্যকর সুরক্ষা পাবে। আমরা ঘুরে ঘুরে খুঁজে খুঁজে ভাসমান ও ছিন্নমূলদের এই টিকা প্রদান করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নির্দেশনা বাস্তবায়নে ভাসমান  ও ছিন্নমূলদের টিকা প্রদান কর্মসূচি গ্রহণ করায় মাননীয় মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম’কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করি। ডি. এম. শামীম এই কার্যক্রম সফল করার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। যদিও টিকা গ্রহণকারীরা ছিল ভাসমান তথাপি আগ্রহ-উচ্ছ্বাসের কমতি ছিল না তাদের মধ্যে। ৫০ নং ওয়ার্ডে ৮ ও ৯ ফেব্রুয়ারি দুইদিনব্যাপী চলবে  করোনার এই ভ্যাকসিন কার্যক্রম। দেখা গেছে যারা ভ্যাকসিন নিচ্ছেন তাদের অধিকাংশই নারী। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ৫০ নং ওয়ার্ডের একজন ভিক্ষুক কাঁদতে কাঁদতে বলেন, লাটিম মার্কার ডি. এম. শামীম আমরার মতো মাইনসেরে করোনা টিকা দিছে, আল্লাহ তারে অনেক বড় বানাক আল্লাহ তারে বাঁচাইয়া রাহুক।আমার মাথায় যতগুলো চুল আছে আল্লাহ তারে বাঁচাইয়া রাখুক।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৩:২৭:১০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২২
১৪৪ বার পড়া হয়েছে

ভাসমান ও ছিন্নমূল মানুষদের করোনা টিকা প্রদানে কাউন্সিলর ডি. এম. শামীম এর ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

আপডেট : ০৩:২৭:১০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২২
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্গত ৫০ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে টিকাদান কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভাসমান ও ছিন্নমূল মানুষদের করোনা টিকা প্রদানের উদ্দেশ্যে মঙ্গল ও বুধবার ৮ ও ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখ ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৫০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জনাব ডি. এম. শামীম একটা ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এটি একটি ভ্রাম্যমান কর্মসূচি। এই ব্যতিক্রমী কর্মসূচির উদ্বোধন করেন ৫০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জনাব আলহাজ্ব ডি. এম. শামীম । তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ২০৪১ বাস্তবায়নে জনগণের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে পিক-আপের মাধ্যমে সমগ্র ৫০নং ওয়ার্ডে ঘুরে ঘুরে ভিক্ষুক, পাগল, প্রতিবন্ধী, উদ্বাস্তুসহ জন্ম নিবন্ধন বা জাতীয় পরিচয়পত্রবিহীন মানুষজনদের এই করোনা টিকা প্রদানের কার্যক্রম গ্রহণ করেছি। যদিও নিবন্ধন ছাড়াই JANSEEN টিকা গ্রহণ করায় কেউ সনদ পাবেন না তথাপি এই টিকার কোন দ্বিতীয় ডোজ নেই, এক ডোজেই কার্যকর সুরক্ষা পাবে। আমরা ঘুরে ঘুরে খুঁজে খুঁজে ভাসমান ও ছিন্নমূলদের এই টিকা প্রদান করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নির্দেশনা বাস্তবায়নে ভাসমান  ও ছিন্নমূলদের টিকা প্রদান কর্মসূচি গ্রহণ করায় মাননীয় মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম’কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করি। ডি. এম. শামীম এই কার্যক্রম সফল করার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। যদিও টিকা গ্রহণকারীরা ছিল ভাসমান তথাপি আগ্রহ-উচ্ছ্বাসের কমতি ছিল না তাদের মধ্যে। ৫০ নং ওয়ার্ডে ৮ ও ৯ ফেব্রুয়ারি দুইদিনব্যাপী চলবে  করোনার এই ভ্যাকসিন কার্যক্রম। দেখা গেছে যারা ভ্যাকসিন নিচ্ছেন তাদের অধিকাংশই নারী। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ৫০ নং ওয়ার্ডের একজন ভিক্ষুক কাঁদতে কাঁদতে বলেন, লাটিম মার্কার ডি. এম. শামীম আমরার মতো মাইনসেরে করোনা টিকা দিছে, আল্লাহ তারে অনেক বড় বানাক আল্লাহ তারে বাঁচাইয়া রাহুক।আমার মাথায় যতগুলো চুল আছে আল্লাহ তারে বাঁচাইয়া রাখুক।