১০:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

মনোহরদীতে বেড়া দিয়ে রাস্তা বন্ধ, ভোগান্তিতে দুই শতাধিক পরিবার

প্রতিনিধির নাম
নরসিংদীর মনোহরদীতে সরকারী জায়গার উপর দিয়ে অর্থশত বছরের পুরোনো গ্রামীণ রাস্তায় জোর করে বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি। এতে দুইশতাধিক পরিবারের মানুষ কোন রকম হেঁটে চলাচল করতে পারলেও কোন প্রকার যানবাহন নিয়ে যেতে পারছেন না। চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পরিবারগুলোর লোকজনকে। উপজেলার বড়চাপা ইউনিয়নের পশ্চিম উরুলিয়া গ্রামে এমন ঘটনা ঘটেছে।
স্থানীয় আল আমিন বলেন, আমরা এই রাস্তা দিয়ে ছোটকাল থেকে চলাচল করে আসছি। একমাস আগে আলাউদ্দিন বিএসসি ও শহিদুল্লাহ বাঁশের বেড়া দিয়ে চলাচল বন্ধ করে দেয়। এতে জরুরি কাজে আমরা বের হতে পারছি না।
মোবারক হোসেন বলেন, তারা আমাদের কোনো কথাই শুনছে না। বাড়ি নির্মাণ করার জন্য গাড়ি দিয়ে ইট বালি আনতে পারছি না। দু’দিন বেড়ার ওপারে ইটসহ গাড়ি আটকা ছিল। এ কারণে গাড়ির মালিককে ক্ষতি পূরণ দিতে হয়েছে। এই রাস্তা দিয়ে গাড়ি নিয়ে মাঠে-বাজারে যায় গ্রামের অনেক মানুষ। তারাও যেতে পারছে না। বর্তমানে আমরা চরম দুর্ভোগের মধ্যে পরিবার নিয়ে বসবাস করছি। আমরা দ্রুত চলাচলের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
রাস্তায় বেড়াদানকারী শহিদুল্লাহ বলেন, বাড়ির পশ্চিম পাশে রাস্তার জায়গা দখল করে হাফিজ উদ্দিন ঘর নির্মাণ করছেন তাই আমরা এই রাস্তা বন্ধ করেছি।
বড়চাপা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম. সুলতান উদ্দিন বলেন, রাস্তায় বেড়া দিয়ে চলাচল বন্ধ করে ভোগান্তি করা বেআইনি কাজ। আমি স্থানীয়দের নিয়ে সমস্যাটি দ্রুত সমাধান করবো।
মনোহরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএসএম কাসেম বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। আমার কাছে লিখিত অভিযোগ দিলে আমি বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৫:৪৬:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২২
১৫৯ বার পড়া হয়েছে

মনোহরদীতে বেড়া দিয়ে রাস্তা বন্ধ, ভোগান্তিতে দুই শতাধিক পরিবার

আপডেট : ০৫:৪৬:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২২
নরসিংদীর মনোহরদীতে সরকারী জায়গার উপর দিয়ে অর্থশত বছরের পুরোনো গ্রামীণ রাস্তায় জোর করে বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি। এতে দুইশতাধিক পরিবারের মানুষ কোন রকম হেঁটে চলাচল করতে পারলেও কোন প্রকার যানবাহন নিয়ে যেতে পারছেন না। চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে পরিবারগুলোর লোকজনকে। উপজেলার বড়চাপা ইউনিয়নের পশ্চিম উরুলিয়া গ্রামে এমন ঘটনা ঘটেছে।
স্থানীয় আল আমিন বলেন, আমরা এই রাস্তা দিয়ে ছোটকাল থেকে চলাচল করে আসছি। একমাস আগে আলাউদ্দিন বিএসসি ও শহিদুল্লাহ বাঁশের বেড়া দিয়ে চলাচল বন্ধ করে দেয়। এতে জরুরি কাজে আমরা বের হতে পারছি না।
মোবারক হোসেন বলেন, তারা আমাদের কোনো কথাই শুনছে না। বাড়ি নির্মাণ করার জন্য গাড়ি দিয়ে ইট বালি আনতে পারছি না। দু’দিন বেড়ার ওপারে ইটসহ গাড়ি আটকা ছিল। এ কারণে গাড়ির মালিককে ক্ষতি পূরণ দিতে হয়েছে। এই রাস্তা দিয়ে গাড়ি নিয়ে মাঠে-বাজারে যায় গ্রামের অনেক মানুষ। তারাও যেতে পারছে না। বর্তমানে আমরা চরম দুর্ভোগের মধ্যে পরিবার নিয়ে বসবাস করছি। আমরা দ্রুত চলাচলের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
রাস্তায় বেড়াদানকারী শহিদুল্লাহ বলেন, বাড়ির পশ্চিম পাশে রাস্তার জায়গা দখল করে হাফিজ উদ্দিন ঘর নির্মাণ করছেন তাই আমরা এই রাস্তা বন্ধ করেছি।
বড়চাপা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম. সুলতান উদ্দিন বলেন, রাস্তায় বেড়া দিয়ে চলাচল বন্ধ করে ভোগান্তি করা বেআইনি কাজ। আমি স্থানীয়দের নিয়ে সমস্যাটি দ্রুত সমাধান করবো।
মনোহরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএসএম কাসেম বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। আমার কাছে লিখিত অভিযোগ দিলে আমি বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।