০৯:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

যশোরে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

প্রতিনিধির নাম
যশোরের শংকরপুর চোপদারপাড়া আকবরের মোড়ে একটি ক্লাবের মধ্যে প্রতিপক্ষ দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন ইয়াসিন ওরফে হুজুর ইয়াসিন (৩৩) নামে এক যুবলীগনেতা। গুরুতর অবস্থায় তাকে যশোর সদর হাসপাতালে নেয়ার পর রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
এলাকাবাসী ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে,  শহরের বেজপাড়া চোপদারপাড়ার আকবরের মোড়ের ব্রাদার্স ক্লাবের মধ্যে বসে তাস খেলছিল ইয়াসিন। এসময় স্থানীয় একটি চক্রের সাথে ইয়াসিনের প্রথমে বাকবিতন্ডা হয়। এরপরেই তার উপর হামলা চালায় একদল দুর্বৃত্ত। এসময় ইয়াসিনকে এলোপাতাপাড়ি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। তার চিৎকার আশেপাশের লোকজন এসে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়।
খবর পেয়ে যশোর কোতোয়ালি থানার এসআই বিমান কুমার, এআই শংকর কুমার, এই মাহিদুল ইসলাম, এসআই আল মিরাজ ঘটনাস্থলে ও হাসপাতালে যান। তারা নিহতের পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন।
এদিকে স্থানীয়রা জানান,  ইয়াসিন ছিলেন কোরআনের হাফেজ। সঙ্গদোষে সেও খারাপ পথে পা বাড়ায়।  তাকে যুবলীগের বিভিন্ন মিছিল, মিটিংয়ে দেখা যেত। এছাড়া শংকরপুর এলাকায় তার নানা অনৈতিক কর্মকান্ড নিয়ে বিতর্ক ছিল। তার নামে থানায় বহু মামলায় রয়েছে। এলাকায় আধিপত্য নিয়ে অপর একটি চক্রের সাথে তার দ্বন্দ্ব ও দুরত্ব চলে আসছিল। এ দ্বন্দ্বের জের হিসেবে তিনি হামলার শিকার ও খুন হয়েছেন বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে।
যশোর কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, হত্যার ঘটনায় পুলিশের কয়েকটি টিম অভিযানে নেমেছে। এ ঘটনায় কারা জড়িত এবং কেন এ হত্যাকান্ড ঘটেছে এ বিষয়ে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। পরিবারের লোকজন ও নিহতের কাছের লোকজনের সাথে কথাও বলা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের দ্রুতই আটক করে আইনে আওতায় আনা হবে।
ট্যাগস :
আপডেট : ০২:৫৬:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২
১৬৮ বার পড়া হয়েছে

যশোরে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

আপডেট : ০২:৫৬:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২
যশোরের শংকরপুর চোপদারপাড়া আকবরের মোড়ে একটি ক্লাবের মধ্যে প্রতিপক্ষ দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন ইয়াসিন ওরফে হুজুর ইয়াসিন (৩৩) নামে এক যুবলীগনেতা। গুরুতর অবস্থায় তাকে যশোর সদর হাসপাতালে নেয়ার পর রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
এলাকাবাসী ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে,  শহরের বেজপাড়া চোপদারপাড়ার আকবরের মোড়ের ব্রাদার্স ক্লাবের মধ্যে বসে তাস খেলছিল ইয়াসিন। এসময় স্থানীয় একটি চক্রের সাথে ইয়াসিনের প্রথমে বাকবিতন্ডা হয়। এরপরেই তার উপর হামলা চালায় একদল দুর্বৃত্ত। এসময় ইয়াসিনকে এলোপাতাপাড়ি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। তার চিৎকার আশেপাশের লোকজন এসে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়।
খবর পেয়ে যশোর কোতোয়ালি থানার এসআই বিমান কুমার, এআই শংকর কুমার, এই মাহিদুল ইসলাম, এসআই আল মিরাজ ঘটনাস্থলে ও হাসপাতালে যান। তারা নিহতের পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন।
এদিকে স্থানীয়রা জানান,  ইয়াসিন ছিলেন কোরআনের হাফেজ। সঙ্গদোষে সেও খারাপ পথে পা বাড়ায়।  তাকে যুবলীগের বিভিন্ন মিছিল, মিটিংয়ে দেখা যেত। এছাড়া শংকরপুর এলাকায় তার নানা অনৈতিক কর্মকান্ড নিয়ে বিতর্ক ছিল। তার নামে থানায় বহু মামলায় রয়েছে। এলাকায় আধিপত্য নিয়ে অপর একটি চক্রের সাথে তার দ্বন্দ্ব ও দুরত্ব চলে আসছিল। এ দ্বন্দ্বের জের হিসেবে তিনি হামলার শিকার ও খুন হয়েছেন বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে।
যশোর কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন, হত্যার ঘটনায় পুলিশের কয়েকটি টিম অভিযানে নেমেছে। এ ঘটনায় কারা জড়িত এবং কেন এ হত্যাকান্ড ঘটেছে এ বিষয়ে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। পরিবারের লোকজন ও নিহতের কাছের লোকজনের সাথে কথাও বলা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের দ্রুতই আটক করে আইনে আওতায় আনা হবে।