০৮:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

রামগঞ্জে বালুবাহী পিকআপ চাপায় মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রতিনিধির নাম
নিথর দেহটি মাদ্রাসার বারান্দায় চাদর দিয়ে ঢেকে রাখা। শরীরের পাঞ্জাবি রক্তে রঞ্জিত। দিনমজুর বাবা ও গৃহপরিচারিকা মায়ের শ্রম আর স্বপ্ন এখন চাকার পৃষ্ঠে পিষে গেছে।
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ২নং নোয়াগাঁও ইউনিয়নের শৈরশৈই বাজার সংলগ্ন সড়কে বেপরোয়া গতির বালুবাহী পিকআপ চাপায় সাহাদাত হোসেন সাজ্জাদ (০৯) নামের এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। সে স্থানীয় শৈরশৈই মারকাজুল উলুম ইসলামীয়া মাদ্রাসার ২য় শ্রেণির ছাত্র।
মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে এ দূর্ঘটনা ঘটে। মাদ্রাসায় রাত্রীকালিন ক্লাশ শেষে পাশ্ববর্তী মামার বাড়ীতে যাওয়ার পথে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত সাহাদাত হোসেন সাজ্জাদ কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের মধ্যে বিঘা গ্রামের ফতেহআলী ভূইয়া বাড়ীর মোঃ ইউছুফের ছেলে।
স্থানীয় লোকজন ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার  মাদ্রাসা ছুটি হলে শিশু সাজ্জাদ পাশ্ববর্তি তার মামার বাড়িতে যাওয়ার পথে মাদ্রাসার সামনে শৈরশৈই নোয়াগাঁও সড়কে বেপরোয়া গতিতে ছুটে আসা বালুবাহী পিকআপ (ঢাকা মেট্রো ড ১১-৮৯৭০) চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়।
এসময় এলাকাবাসী ছুটে এসে পিকআপটি আটক ভাংচুর চালায়। ঘটনার ফাঁকে পিকআপ চালক রাজারামপুর গ্রামের বাসিন্দা মোঃ মাসুদ আলম পালিয়ে যায়।
রামগঞ্জ থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক তাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটককৃত পিকআপ থানা হেফাজতে রয়েছে। নিহত ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর ডায়েরী হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৩:৩৯:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২
১৮০ বার পড়া হয়েছে

রামগঞ্জে বালুবাহী পিকআপ চাপায় মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মৃত্যু

আপডেট : ০৩:৩৯:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২
নিথর দেহটি মাদ্রাসার বারান্দায় চাদর দিয়ে ঢেকে রাখা। শরীরের পাঞ্জাবি রক্তে রঞ্জিত। দিনমজুর বাবা ও গৃহপরিচারিকা মায়ের শ্রম আর স্বপ্ন এখন চাকার পৃষ্ঠে পিষে গেছে।
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ২নং নোয়াগাঁও ইউনিয়নের শৈরশৈই বাজার সংলগ্ন সড়কে বেপরোয়া গতির বালুবাহী পিকআপ চাপায় সাহাদাত হোসেন সাজ্জাদ (০৯) নামের এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। সে স্থানীয় শৈরশৈই মারকাজুল উলুম ইসলামীয়া মাদ্রাসার ২য় শ্রেণির ছাত্র।
মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে এ দূর্ঘটনা ঘটে। মাদ্রাসায় রাত্রীকালিন ক্লাশ শেষে পাশ্ববর্তী মামার বাড়ীতে যাওয়ার পথে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত সাহাদাত হোসেন সাজ্জাদ কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের মধ্যে বিঘা গ্রামের ফতেহআলী ভূইয়া বাড়ীর মোঃ ইউছুফের ছেলে।
স্থানীয় লোকজন ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার  মাদ্রাসা ছুটি হলে শিশু সাজ্জাদ পাশ্ববর্তি তার মামার বাড়িতে যাওয়ার পথে মাদ্রাসার সামনে শৈরশৈই নোয়াগাঁও সড়কে বেপরোয়া গতিতে ছুটে আসা বালুবাহী পিকআপ (ঢাকা মেট্রো ড ১১-৮৯৭০) চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়।
এসময় এলাকাবাসী ছুটে এসে পিকআপটি আটক ভাংচুর চালায়। ঘটনার ফাঁকে পিকআপ চালক রাজারামপুর গ্রামের বাসিন্দা মোঃ মাসুদ আলম পালিয়ে যায়।
রামগঞ্জ থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক তাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আটককৃত পিকআপ থানা হেফাজতে রয়েছে। নিহত ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর ডায়েরী হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।