১০:৫৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

লাকসামে আদালতের নির্দেশে দাফনের ৯ মাস পর কবর থেকে এক শিশুর লাশ উত্তোলন

প্রতিনিধির নাম
আদালতের নির্দেশে সিআইডি পুলিশ বৃহস্পতিবার সকালে পশ্চিমগাঁও মিয়াঁপাড়া থেকে ফয়সাল আহমেদ ফাহিমের (১০) লাশ উত্তোলন করে। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল হাসান রাসেল উপস্থিত ছিলেন। নিহত ফয়সাল ওই এলাকার মৃত ইউনুস মিয়ার ছেলে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডি পরিদর্শক শাহীন মিয়া জানান, বাদীর আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালতের নির্দেশে লাশটি উত্তোলন করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।
নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, গত বছরের ২৮ মে শুক্রবার রাতে নিজ ঘর থেকে শিশু ফয়সালের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই দিন ফয়সালের মা তার নানার বাড়িতে ছিলো। সন্ধ্যার পর বাবা ইউনুস মিয়াও বাড়িতে ছিলেন না। রাত ৯টার দিকে নিজ ঘর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় ফয়সালকে উদ্ধার করে প্রতিবেশীরা হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।
এ ঘটনায় শিশু ফয়সালের মা পারভীন আক্তার বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামি করে কুমিল্লার আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি সিআইডি পুলিশ তদন্ত করছে।
সিআইডি ইন্সপেক্টর মোঃ শাহীন মিয়া জানান, পুনরায় ময়নাতদন্তের স্বার্থে সিআইডি পুলিশ ফয়সালের লাশ উত্তোলনের জন্য বিজ্ঞ আদালতের কাছে আবেদন করলে আদালত লাশ উত্তোলনের অনুমতি দেয়। ময়নাতদন্তের পর এটি হত্যাকান্ড বলে প্রমাণিত হলে এ ঘটনায় জড়িতদেরকে শনাক্ত করে আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সিআইডি উপপরিদর্শক হুমায়ুন কবির, সহকারী উপপরিদর্শক আলতাফ হোসেন, শামীম, লাকসাম থানার এএসআই রাজিব হোসেন।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৫:০৪:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২
১১৪ বার পড়া হয়েছে

লাকসামে আদালতের নির্দেশে দাফনের ৯ মাস পর কবর থেকে এক শিশুর লাশ উত্তোলন

আপডেট : ০৫:০৪:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২
আদালতের নির্দেশে সিআইডি পুলিশ বৃহস্পতিবার সকালে পশ্চিমগাঁও মিয়াঁপাড়া থেকে ফয়সাল আহমেদ ফাহিমের (১০) লাশ উত্তোলন করে। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল হাসান রাসেল উপস্থিত ছিলেন। নিহত ফয়সাল ওই এলাকার মৃত ইউনুস মিয়ার ছেলে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডি পরিদর্শক শাহীন মিয়া জানান, বাদীর আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালতের নির্দেশে লাশটি উত্তোলন করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।
নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, গত বছরের ২৮ মে শুক্রবার রাতে নিজ ঘর থেকে শিশু ফয়সালের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই দিন ফয়সালের মা তার নানার বাড়িতে ছিলো। সন্ধ্যার পর বাবা ইউনুস মিয়াও বাড়িতে ছিলেন না। রাত ৯টার দিকে নিজ ঘর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় ফয়সালকে উদ্ধার করে প্রতিবেশীরা হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।
এ ঘটনায় শিশু ফয়সালের মা পারভীন আক্তার বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামি করে কুমিল্লার আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি সিআইডি পুলিশ তদন্ত করছে।
সিআইডি ইন্সপেক্টর মোঃ শাহীন মিয়া জানান, পুনরায় ময়নাতদন্তের স্বার্থে সিআইডি পুলিশ ফয়সালের লাশ উত্তোলনের জন্য বিজ্ঞ আদালতের কাছে আবেদন করলে আদালত লাশ উত্তোলনের অনুমতি দেয়। ময়নাতদন্তের পর এটি হত্যাকান্ড বলে প্রমাণিত হলে এ ঘটনায় জড়িতদেরকে শনাক্ত করে আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সিআইডি উপপরিদর্শক হুমায়ুন কবির, সহকারী উপপরিদর্শক আলতাফ হোসেন, শামীম, লাকসাম থানার এএসআই রাজিব হোসেন।