০৮:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

সরকারি বিধি লংঘন করে ভূয়া তথ্যের মাধ্যমে সেচ সংযোগ নেয়ার অপচেষ্টা

প্রতিনিধির নাম
সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে সরাইদহ গ্রামে ভূয়া তথ্য দিয়ে শ্যালো সেচ মেশিনে বিদ্যুৎ  সংযোগ নেয়ার অপচেষ্টা। ৩ টি সেচ পাম্পের  মালিকগণ এই অনিয়মের বিরুদ্ধে ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করে।
জানাযায়, উপজেলার চান্দাইকোনা ইউপির সরাইদহ গ্রামের সুরেশ চন্দ্রের পুত্র সজল(৩৫) পল্লী বিদ্যুৎ এর TA-9I-28-R23 নং খুটি থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়ার জন্য আবেদন করে। কিন্তু তাঁর আবেদনকৃত জমিটিতে কোন শ্যালো মেশিন স্থাপন না করে পার্শ্ববর্তী গোলবার হোসেনের স্থাপনকৃত শ্যালো মেশিন বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে দেখিয়ে ভূয়া সংযোগের অপচেষ্টা চালায়।
এই ভূয়া তথ্যে সরকারী বিধি লংঘন করে বিদ্যুৎ সংযোগের পাঁয়তারার প্রতিবাদে গত ১০ই মার্চ শ্যালো মেশিন মালিকদের পক্ষ থেকে ইউএনও বরাবর ৩টি পৃথক পৃতক লিখিত অভিযোগ দাখিল করে।
অভিযোগকারীরা হচ্ছে একই গ্রামের বরাত আলী যাহার বিদ্যুৎ বিলের হিসাব নং ২০০০, একই গ্রামের ওমর পাঠান যাহার বিদ্যুৎ বিলের হিসাব নং ২২০০ও নকুল কুমার তালুকদার যাহার বিদ্যুৎ বিলের হিসাব নং ২০১০।
সরকারি বিধি লংঘন করে ভূয়া তথ্যের ভিত্তিতে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ সীট তৈরিকরে উল্লাপাড়া জিএম অফিসে প্রেরণ করায় এলাকাবাসীর মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। সীট তৈরি কারি কর্মকর্তা বলেন আমাকে ভুল বুঝানো হয়েছে।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৭:২২:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ মার্চ ২০২২
২০৮ বার পড়া হয়েছে

সরকারি বিধি লংঘন করে ভূয়া তথ্যের মাধ্যমে সেচ সংযোগ নেয়ার অপচেষ্টা

আপডেট : ০৭:২২:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২২ মার্চ ২০২২
সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে সরাইদহ গ্রামে ভূয়া তথ্য দিয়ে শ্যালো সেচ মেশিনে বিদ্যুৎ  সংযোগ নেয়ার অপচেষ্টা। ৩ টি সেচ পাম্পের  মালিকগণ এই অনিয়মের বিরুদ্ধে ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করে।
জানাযায়, উপজেলার চান্দাইকোনা ইউপির সরাইদহ গ্রামের সুরেশ চন্দ্রের পুত্র সজল(৩৫) পল্লী বিদ্যুৎ এর TA-9I-28-R23 নং খুটি থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়ার জন্য আবেদন করে। কিন্তু তাঁর আবেদনকৃত জমিটিতে কোন শ্যালো মেশিন স্থাপন না করে পার্শ্ববর্তী গোলবার হোসেনের স্থাপনকৃত শ্যালো মেশিন বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষকে দেখিয়ে ভূয়া সংযোগের অপচেষ্টা চালায়।
এই ভূয়া তথ্যে সরকারী বিধি লংঘন করে বিদ্যুৎ সংযোগের পাঁয়তারার প্রতিবাদে গত ১০ই মার্চ শ্যালো মেশিন মালিকদের পক্ষ থেকে ইউএনও বরাবর ৩টি পৃথক পৃতক লিখিত অভিযোগ দাখিল করে।
অভিযোগকারীরা হচ্ছে একই গ্রামের বরাত আলী যাহার বিদ্যুৎ বিলের হিসাব নং ২০০০, একই গ্রামের ওমর পাঠান যাহার বিদ্যুৎ বিলের হিসাব নং ২২০০ও নকুল কুমার তালুকদার যাহার বিদ্যুৎ বিলের হিসাব নং ২০১০।
সরকারি বিধি লংঘন করে ভূয়া তথ্যের ভিত্তিতে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ সীট তৈরিকরে উল্লাপাড়া জিএম অফিসে প্রেরণ করায় এলাকাবাসীর মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। সীট তৈরি কারি কর্মকর্তা বলেন আমাকে ভুল বুঝানো হয়েছে।