০৯:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

সাটুরিয়ায় করোনা টিকার সনদ যাচাইএ মাঠে নেমেছে পুলিশ

প্রতিনিধির নাম
মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মানছেন কিনা তা দেখতে মাঠে নেমেছেন সাটুরিয়া থানা পুলিশ।
ব্যাবসায়ী ও ক্রেতারা করোনা ভাইরাসের টিকা নিয়েছেন কি না তা যাচাই বাছাই করছেন সাটুরিয়া থানার ওসি আশরাফুল আলম।
সাটুরিয়া থানার ওসি আশরাফুল আলম বলেন কোন ব্যবসায়ী ও ক্রেতার টিকা দেওয়া না থাকলে তাদের পুলিশের উদ্দ্যেগে টিকা দেওয়া ব্যবস্থা করা হচ্ছে।
সোমবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত সাটুরিয়া বাজারের ফলপট্টি, মুদির দোকান, কপড়পট্টি, মনিহারি, কাঠপট্টি, বাসস্ট্যান্ড এলাকায় প্রচার কার্যক্রম পরিচালনা করেন।এতে ২০ ব্যবসায়ী করেনার সনদ দেখাতে না পারায় তাদের পুলিশের গাড়িতে উঠিয়ে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয় সাটুরিয়া হাসপাতালে। অন্যদিকে অনেকে করোনার টিকা না নেওয়ায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে পালিয়ে যান।
সাটুরিয়া থানার ওসি আশরাফুল আলম বলেন, সরকার বিনামূল্যে করোনার টিকা দিচ্ছে।কিন্তু অনেকে সেই টিকা নিচ্ছন না। ওমিক্রন নামে ভাইরাসটি এখন ঘরে ঘরে। তাই সাটুরিয়ায় শতভাগ টিকা নেওয়ার নিশ্চিত করার লক্ষে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ গোলাম আজাদ খানের নির্দেশনায় আমরা মাঠে নেমেছি। তিনি আরো বলেন, এখন থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ব্যবসা পরিচালনা করতে হলে ক্রেতা ও বিক্রেতার টিকার সনদ অবশ্যই থাকতে হবে এবং দেখাতে হবে। প্রতিটি হাট বাজারে ও গুরুপ্তপূর্ণ এলাকায় পুলিশের অভিযান অব্যহত থাকবে।
সাটুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মনিরুজ্জান মনির বলেন, সাটুরিয়া থানার ওসির উদ্দ্যোগ অবশ্যই প্রশংসনীয়। পুলিশের মতো সবাই যদি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও সরকারি সংস্থাসহ অন্যন্য সংস্থা যদি মাঠে নামে তাহলে মানুষজন স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে আরো বেশি সচেনতা হতো।
এবিষয়ে সাটুরিয়ার ইউএনও শারমিন আরা বলেন, সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মানা প্রতিটি নাগরিকের কর্তব্য।এছাড়া প্রতিটি মানুষের মধ্যে সচেনতা হওয়া ও টিকা নেওয়ার উচিত। পুলিশের এ মহৎ উদ্দ্যেগকে সাধুবাদ জানান তিনি।
ট্যাগস :
আপডেট : ০৪:০৩:১৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২
১৫২ বার পড়া হয়েছে

সাটুরিয়ায় করোনা টিকার সনদ যাচাইএ মাঠে নেমেছে পুলিশ

আপডেট : ০৪:০৩:১৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২
মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মানছেন কিনা তা দেখতে মাঠে নেমেছেন সাটুরিয়া থানা পুলিশ।
ব্যাবসায়ী ও ক্রেতারা করোনা ভাইরাসের টিকা নিয়েছেন কি না তা যাচাই বাছাই করছেন সাটুরিয়া থানার ওসি আশরাফুল আলম।
সাটুরিয়া থানার ওসি আশরাফুল আলম বলেন কোন ব্যবসায়ী ও ক্রেতার টিকা দেওয়া না থাকলে তাদের পুলিশের উদ্দ্যেগে টিকা দেওয়া ব্যবস্থা করা হচ্ছে।
সোমবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত সাটুরিয়া বাজারের ফলপট্টি, মুদির দোকান, কপড়পট্টি, মনিহারি, কাঠপট্টি, বাসস্ট্যান্ড এলাকায় প্রচার কার্যক্রম পরিচালনা করেন।এতে ২০ ব্যবসায়ী করেনার সনদ দেখাতে না পারায় তাদের পুলিশের গাড়িতে উঠিয়ে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয় সাটুরিয়া হাসপাতালে। অন্যদিকে অনেকে করোনার টিকা না নেওয়ায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে পালিয়ে যান।
সাটুরিয়া থানার ওসি আশরাফুল আলম বলেন, সরকার বিনামূল্যে করোনার টিকা দিচ্ছে।কিন্তু অনেকে সেই টিকা নিচ্ছন না। ওমিক্রন নামে ভাইরাসটি এখন ঘরে ঘরে। তাই সাটুরিয়ায় শতভাগ টিকা নেওয়ার নিশ্চিত করার লক্ষে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ গোলাম আজাদ খানের নির্দেশনায় আমরা মাঠে নেমেছি। তিনি আরো বলেন, এখন থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ব্যবসা পরিচালনা করতে হলে ক্রেতা ও বিক্রেতার টিকার সনদ অবশ্যই থাকতে হবে এবং দেখাতে হবে। প্রতিটি হাট বাজারে ও গুরুপ্তপূর্ণ এলাকায় পুলিশের অভিযান অব্যহত থাকবে।
সাটুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মনিরুজ্জান মনির বলেন, সাটুরিয়া থানার ওসির উদ্দ্যোগ অবশ্যই প্রশংসনীয়। পুলিশের মতো সবাই যদি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও সরকারি সংস্থাসহ অন্যন্য সংস্থা যদি মাঠে নামে তাহলে মানুষজন স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে আরো বেশি সচেনতা হতো।
এবিষয়ে সাটুরিয়ার ইউএনও শারমিন আরা বলেন, সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মানা প্রতিটি নাগরিকের কর্তব্য।এছাড়া প্রতিটি মানুষের মধ্যে সচেনতা হওয়া ও টিকা নেওয়ার উচিত। পুলিশের এ মহৎ উদ্দ্যেগকে সাধুবাদ জানান তিনি।