০৮:১৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপ্তি

হাতের কব্জি কেটে টিকটক করা কিশোরগ্যাং লিডার গ্রেফতার

এস এম জীবন, স্টাফ রিপোর্টার:

হাতের কব্জি কেটে টিকটক করা কিশোর গ্যাং ‘আনোয়ার ওরফে স্যুটার আনোয়ার গ্রুপের’ অন্যতম লিডার মো. ইউনুছ (২৮) ও তার সহযোগী সাইফুল ইসলাম ওরফে ছোট সাইফুলকে (৩৬) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব-২)। বুধবার (৪ অক্টোবর) রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানাধীন খিলজি রোড এলাকায় ছিনতাই করার সময় হাতে নাতে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২টি ছুরি ও ২টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। র‍্যাব-২ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক শিহাব করিম গণমাধ্যমকে জানান, সম্প্রতি এই কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা সংঘবদ্ধ হয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটায়। কিছু দিন আগে ছিনতাইকালে স্যুটার আনোয়ার গ্রুপের সদস্য ইউনুছের হামলায় ভিকটিম মারাত্মক যখম হন। এর মধ্যে দুই কিশোর গ্যাং গ্রুপের আন্তঃদ্বন্দের জেরে এক পক্ষ চাপাতি দিয়ে আরেক পক্ষের হাত বিচ্ছিন্ন করে টিকটক করার মতো লোমহর্ষক ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া, তারা ৪০ থেকে ৫০ জন একসঙ্গে এলাকায় জমায়েত হয়ে ছিনতাই, চাঁদাবাজির মতো ঘটনা ঘটায়। গ্রেপ্তার ইউনুছের বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় দুইটি হত্যার চেষ্টা, একটি দস্যুতা মামলা এবং আদাবর থানায় একটি ডাকাতি মামলাসহ চারটি মামলা রয়েছে। সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদাবর থানায় একটি মানব পাচার মামলা রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে পরবর্তি আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।

ট্যাগস :
আপডেট : ০২:১৪:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ অক্টোবর ২০২৩
১১২ বার পড়া হয়েছে

হাতের কব্জি কেটে টিকটক করা কিশোরগ্যাং লিডার গ্রেফতার

আপডেট : ০২:১৪:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ অক্টোবর ২০২৩

হাতের কব্জি কেটে টিকটক করা কিশোর গ্যাং ‘আনোয়ার ওরফে স্যুটার আনোয়ার গ্রুপের’ অন্যতম লিডার মো. ইউনুছ (২৮) ও তার সহযোগী সাইফুল ইসলাম ওরফে ছোট সাইফুলকে (৩৬) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব-২)। বুধবার (৪ অক্টোবর) রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানাধীন খিলজি রোড এলাকায় ছিনতাই করার সময় হাতে নাতে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২টি ছুরি ও ২টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। র‍্যাব-২ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক শিহাব করিম গণমাধ্যমকে জানান, সম্প্রতি এই কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা সংঘবদ্ধ হয়ে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটায়। কিছু দিন আগে ছিনতাইকালে স্যুটার আনোয়ার গ্রুপের সদস্য ইউনুছের হামলায় ভিকটিম মারাত্মক যখম হন। এর মধ্যে দুই কিশোর গ্যাং গ্রুপের আন্তঃদ্বন্দের জেরে এক পক্ষ চাপাতি দিয়ে আরেক পক্ষের হাত বিচ্ছিন্ন করে টিকটক করার মতো লোমহর্ষক ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া, তারা ৪০ থেকে ৫০ জন একসঙ্গে এলাকায় জমায়েত হয়ে ছিনতাই, চাঁদাবাজির মতো ঘটনা ঘটায়। গ্রেপ্তার ইউনুছের বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় দুইটি হত্যার চেষ্টা, একটি দস্যুতা মামলা এবং আদাবর থানায় একটি ডাকাতি মামলাসহ চারটি মামলা রয়েছে। সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদাবর থানায় একটি মানব পাচার মামলা রয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে পরবর্তি আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।