মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:২৯ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
ধামরাই পৌরসভার পূর্ব কায়েতপাড়া শাইলাটেকি ভদ্রাকালী মন্দির প্রাঙ্গণে নামযজ্ঞ ও অষ্টকালীন লীলাকীর্তন উৎসব উদযাপন  হজরত খানবাহাদুর আহছানউল্লাহ্ (রঃ) এর ওরছ শরীফ আগামী ৯,১০ ও ১১ ফেব্রুয়ারি ময়মনসিংহে রেজিষ্ট্রেশন বিহীন মোটরসাইকেল ও হেলমেট বিহীন চালকদের বিরুদ্ধে অভিযান  বিএলএফ চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলা কমিটির উদ্যোগে শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গলে এমসিডা আলোয়- আলো কিশোর কিশোরী বালিকা ফুটবল টুর্নামেন্ট -২০২৩ খ্রিঃ তুরস্কে ভূমিকম্পে নিহত ১১৮, ধ্বংসস্তূপে আটকে আছেন বহু মানুষ আমার মন্তব্য ছিল ফখরুলকে নিয়ে, হিরো আলম নয়: কাদের রিয়ালের হার, শীর্ষস্থানের পয়েন্ট বাড়াল বার্সেলোনা ইবিতে ছাত্রলীগের কর্মীসভা অনুষ্ঠিত  আইডিয়াল কমার্স কলেজ ও আইডিয়াল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের  শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়ন শীর্ষক  কর্মশালা

অপরাধ  প্রতিরোধকল্পে সোনাইমুড়ীতে জনপ্রতিনিধি ও সুধীজনের সাথে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা

নোয়াখালী সোনাইমুড়ী উপজেলাধীন বিভিন্ন এলাকাতে ইভটিজিং, মাদক,অস্ত্র, নারী নির্যাতন, কিশোর গ্যাং প্রতিরোধকল্পে জনপ্রতিনিধি ও সুধীজনের করণীয়   আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে, গত (১৩ সেপ্টেম্বর) মঙ্গলবার বিকাল ৫টা সোনাইমুড়ী  উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে।

 উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ ইসমাইল হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ব্যক্তিগত সহকারী ও নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আলম,

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান, জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম পিপিএম,  সোনাইমুড়ী  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার রুহুল আমিন ,সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. হারুন অর রশিদ।কিশোর গ্যাং, মাদকদ্রব্য, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ বিরোধ কৌশল নিয়ে আলোচনা করেন সোনাইমুড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হারুনুর রশিদ। তিনি আরো বলেন

বখাটে কিশোর গ্যাং কারা? কী তাদের পরিচয়? এদের কি মা-বাবা, ভাইবোন, সমাজ-সংসার নেই? তাহলে এদের জন্ম কোথায়?  কারা তাদের মদদদাতা? এই প্রশ্নগুলোর উত্তর পেলেই এই হিংস্র কিশোর গ্যাং দমন সহজেই সম্ভব বলে মনে করি।সাধারণভাবে ‘ওরা পোলাপান’ বলে উড়িয়ে দেওয়া ঠিক হবে না। ইতিমধ্যে বড় বড় অঘটন বখাটে কিশোরেরা ঘটিয়ে ফেলেছে। আর ছোটভাবে দেখার সুযোগ নেই।তাই সহজ কৌশলে  এখনই ব্যবস্থা না নিলে সমাজ অস্থির হয়ে উঠবে। এবিষয়ে তিনি স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিদের সহযোগিতা কামনা করেন।


বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved