রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।

৪ শত ৪৪ পরিবারকে মাথা গুজার ঠাঁই করে দিলেন -এমপি ইউসুফ হারুন

আশ্রায়নের অধিকার শেখ হাসিনার উপহার’ মুজিববর্ষে এই বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর উপজেলায় ‘৪ শত ৪৪ টি ’ গৃহহীন পরিবারকে মাথা গুজার ঠাঁই করে দিয়েছেন এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ  হারুন।  আরো ১২০ টি পরিবারের জন্য ঘর নির্মাণ কাজ চলছে। প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণের এ প্রকল্প থেকে মোট ৮৭২টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে ঘর দেওয়া হবে বলে জানাগেছে।
সূত্রে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর আশ্রায়ন- ২ প্রকল্পের আওতায় ২০২০ সালে থেকে সরকারি খাস জমিতে ভূমিহীনদের জন্য গৃহনির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায়  মুরাদনগর উপজেলায়  ২৬ টি মৌজার ৪০টি স্থানে ৪ শত ৪৪ পরিবারকে গৃহ নির্মাণ সম্পন্ন করা হয়েছে। এ সকল পাকা গৃহে থাকছে দুটি বেডরুম, বাথরুম, কিচেন ও বারান্দা। আরো রয়েছে বিশুদ্ধ পানি ব্যবস্থা ও বিদ্যুৎ সংযোগ। গৃহের চারপাশে রয়েছে পর্যাপ্ত খোলামেলা জায়গা। আধুনিক সুবিধাসম্বলিত এমন স্থায়ী ঠিকানা পেয়ে খুশি তাঁরা।
সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়,এপর্যন্ত নির্মিত  উপজলোর ৪০টি স্থানের আশ্রয়ণের ঘরে গাড়ি নিয়ে প্রবেশ করা যায়। এর মধ্যে বেশিরভাগ জায়গাই বেশ মূল্যবান। ধামঘর ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর বাজারের পাশে  মনোরম পরিবেশে তৈরি করা হয়েছে আশ্রয়ণের ঘর। ওই ঘর সমূহের  ১শ’ গজের মধ্যে রয়েছে মসজিদ ও প্রাথমিক বিদ্যালয়। আধুনিক সুবিধাসম্বলিত এমন স্থায়ী ঠিকানা পেয়ে খুশি  অসহায় ওই পরিবারগুলো। কৃষ্ণপুরে আশ্রয়ণের ঘর পেয়েছেন মোঃ শাহজালাল, শহিদ মিয়া, আব্দুল মান্নান ও বিধবা সেলিনা বেগম । তারা বলেন ,“ এতো সুন্দর ঘরে থাকব ওটা কল্পনা করিনি। আমাদের সরকার ও এমপি স্যারের কারণে আজ একটা মাথা গুজার ঠাই হয়েছে। এঋণ শোধ করতে পারব না ”। একথা  বলতে বলতে আবেগ আপ্লুত হয়ে কেঁদে ফেলেন। এসময় তাঁরা  কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন এফসিএ’কে ।
মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আলাউদ্দীন ভূইয়া জনী বলেন, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে দেশে ভ‚মিহীনদের নিজস্ব ঠিকানা করে দেয়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর  আশ্রয়ণ প্রকল্প থেকে উপজেলার ২২ ইউনিয়নে ভূমিহীন ও গৃহহীন ৮৭২ পরিবারকে ঘর দেওয়া হবে। এপর্যন্ত ১ম,২য় ও ৩য় পর্যায়ে মোট ৪৪৪ পরিবারকে পুর্নবাসিত করা হয়েছে। আরো ১২০টির কাজ চলছে। প্রধানমন্ত্রীর উপহারের এই ঘর নির্মাণে কাজের মান ঠিক রাখতে প্রতিনিয়ত আমি ও পিআইও সাহেব দেখাশোনা করছি।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved