বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:৫২ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
বিলস্ এর নব-নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে বিএল এফ চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগর কমিটির সংবর্ধনা বাবাকে হত্যার পর সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ছেলে নিজেই থানায় গিয়ে হত্যার কথা জানালেন পুলিশকে বিলস্ এর নব-নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে বিএল এফ চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগর কমিটির সংবর্ধনা ভূমিকম্পে তুরস্ক ও প্রতিবেশী সিরিয়ায় নিহতের সংখ্যা ৫ হাজার ছাড়িয়েছে পিএসজিতে চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে পারেন লিওনেল মেসি মোঃ ইসমাইল হোসেন সাহেবকে শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন -মোঃ গোলাম মাওলা সাকিব বাবাকে হত্যার পর ছেলে নিজেই থানায় গিয়ে হত্যার কথা জানালেন পুলিশকে নবীনগরে নবনির্মিত শহীদ মিনারের শুভ উদ্বোধন ও মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত মানিকগঞ্জ সদর ও সিংগাইর উপজেলায় অভিযান চালিয়ে ১১ কেজি গাঁজাসহ আটক-৪ কোনো কাজী বাল্য বিবাহ সম্পাদন করলে লাইসেন্স বাতিল- জ্যোতি বিকাশ 

কালীগঞ্জে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি অভিযোগে প্রধান শিক্ষক ও সহযোগী দপ্তরী আটক 

প্রধান শিক্ষক ও দপ্তরী মিলে স্কুলের কোমলমতি ছাত্রীদের সঙ্গে যৌন হয়রানির ঘটনায় বিক্ষিপ্ত অভিভাবকদের গণপিটুনি হতে রক্ষা করতে প্রধান শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম এবং দপ্তরি সাইফুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ।

ঘটনাটি ঘটেছে গত রবিবার( ২৭ নভেম্বর) বেলা ২টার সময় সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার ভাড়াশিমলা ইউনিয়নের স্বরাব্দীপুর  সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে। আটককৃত অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম (৪৫) সে স্বরাব্দীপর মৃত ইসরাইল সরদারের পুত্র এবং তার সহযোগী একই স্কুলের দপ্তরী কাম নৈশ প্রহরী সাইফুল ইসলাম( ৩৫)। সে মারকা গ্রামের জহুর আলী গাজীর পুত্র।

উক্ত ঘটনায় ওই স্কুলের যৌন নিপীড়নের শিকার তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীর বাবা বাদি হয়ে প্রধান শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম এবং দপ্তরে সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে রবিবার থানায় একটি লিখিত এজাহার দায়ের করেছে। থানায় দায়ের কৃত এজাহার সূত্রে এবং অত্র স্কুলের সভাপতি নাজমুল হাসান সহসভাপতি আবু তৈয়ব মহাসিন, শিক্ষার্থীর মা জুলিয়া পারভীন, বাবা মনিরুল ইসলাম সহ একাধিক ব্যক্তি সাংবাদিকদের জানান কালিগঞ্জ উপজেলার বহুল আলোচিত প্রধান শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম অত্র স্কুলে যোগদানের পর হতে তার সহযোগী দপ্তরি সাইফুল ইসলামের সহযোগিতায় দীর্ঘদিন যাবত স্কুলের পঞ্চম শ্রেণী সহ বিভিন্ন শ্রেণীর শিক্ষার্থীদেরকে যৌন হয়রানি চালিয়ে আসছিল। তৃতীয় শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীর সঙ্গে দপ্তরি সাইফুল ইসলাম প্রাইভেট পড়ার কথা বলে বিদ্যালয় এর গোপনকক্ষে যৌন নিপীড়ন চালালে ওই শিক্ষার্থী বিষয়টি তার বাবা-মাকে জানায়। শিক্ষার্থীর বাবা-মা বিষয়টি নিয়ে ওই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সাইফুল ইসলামকে জানায়।

ঘটনা নিয়ে রবিবার বেলা ১২টার সময় স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভা চলাকালীন প্রধান শিক্ষক তার সহযোগী দপ্তরি সাইফুল ইসলামকে জরিমানা করে রেহাই দেওয়ার কথা বললে অভিভাবকরা উত্তেজিত হয়ে পড়ে। ওই সময় উত্তেজিত অভিভাবক এবং এলাকাবাসী প্রধান শিক্ষক এবং দপ্তরিকে স্কুলে অবরুদ্ধ করে রেখে থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে থানা হতে উপরিদর্শক মোরশেদ, বুলবুল, মিলন ঘোষ পুলিশ ভ্যান যোগে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ওই সময় পুলিশের উপস্থিতিতে আটক কৃতদের উপর হামলা চালালে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তাদেরকে আটক করে দ্রুত থানায় নিয়ে আস। এ ব্যাপারে থানার উপ-পরিদর্শক মোর্শেদ সাংবাদিকদের জানান অভিযোগের ভিত্তিতে দু’জনকে গ্রেফতার করে আনা হয়েছে। ওসি আস্বাস দিয়েছেন অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সঠিক আইননুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। প্রধান শিক্ষক আশরাফুল ইসলামের বিরুদ্ধে এর আগেও বিভিন্ন স্কুলে দায়িত্ব পালনের সময় ছাত্রীদের উপর যৌন নিপীড়ন চালানোর অভিযোগ রয়েছে। যে কারণে তাকে একাধিকবার সাময়িক বরখাস্তসহ বিভাগীয় ব্যবস্থার মাধ্যমে বিভিন্ন স্কুলে বদলি করা হয়।


বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved