সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০২:৪৪ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
ঢাকার ধামরাইয়ে আমছিমুর গ্রামে মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণের দাবি শেরপুরে মঞ্চস্থ হলো নাটক ‘একাত্তরের বীরকন্যা’ জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে পরিত্যক্ত ৩টি শুটারগান উদ্ধার করেছে র‍্যাব ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় -২ উপনির্বাচনের এমপি প্রার্থী দুইদিন ধরে নিখোঁজ  নওগাঁয় অটো-চার্জার চাপায় এক শিশুর মৃত্যু কালাইয়ে নানা আয়োজন বিশ্ব কুষ্ঠ  দিবস পালিত তুমব্রু সীমান্তের বাস্তুচ্যূত রোহিঙ্গাদের ডাটা এন্ট্রি কার্যক্রম শুরু বর্তমান সরকার শিক্ষাকে আধুনিক ও ডিজিটালাইজেশন করেছে-শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশন এর উদ্যোগে নোয়াখালী জেলা পুলিশের আয়োজনে সোনাইমুড়ী থানা প্রাঙ্গণে অসহায় শীতার্তদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে বিলুপ্ত প্রজাতির প্রাণি মেছো বাঘ উদ্ধার

রামগঞ্জের বিরেন্দ্র খালটি সংস্কারের অভাবে ময়লার বাগাড়ে পরিণত

রামগঞ্জ পৌর শহরের উপর দিয়ে বয়ে চলা এক সময়ের খরস্রোতা বিরেন্দ্র (রামগঞ্জ-হাজীগঞ্জ) খালটি সংস্কারে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরাসহ পৌর শহরের বাসিন্দারা গত কয়েক বছর থেকেই আন্দোলন করে আসছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বার বার খালটি সংস্কারে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলেও কেউই কথা রাখেনি। বছরের পর বছর রামগঞ্জ-হাজীগঞ্জ বিরেন্দ্র খালটি সংস্কার না হওয়ায় রামগঞ্জ সোনাপুর বাজারের এক শ্রেণির ব্যবসায়ী খালটিতে ময়লা আবর্জনা ফেলে ময়লার বাগাড়ে পরিনত করেছে। এক সময়ের খরস্রোতা এ খালটি এখন নালায় পরিনত হয়েছে।

খালটিতে ময়লা আবর্জনার স্তুপ থাকায় হেঁটে চলাচল করাও সম্ভব বলে জানান স্থানীয় এলাকাবাসী। খালটির রামগঞ্জ-সোনাপুর হয়ে হাজীগঞ্জ ও রামগঞ্জ বালুয়া চৌমুনি বাজার হয়ে সোনাইমুড়ি পর্যন্ত ভরাট হয়ে গেছে। এছাড়া এক শ্রেণির ভূমিদস্যুরা খালটির অধিকাংশ এলাকা জুড়ে অবৈধ স্থাপনা নির্মান করায় ময়লা আবর্জনার ভাগাড়ে পরিনত হয়েছে। বাড়ছে প্রচুর পরিমানে মশা-মাছির উপদ্রুব। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় রামগঞ্জ পৌর শহরের মাঝখান দিয়ে বয়ে চলা রামগঞ্জ-হাজীগঞ্জ বিরেন্দ্র খালটিতে (প্রধান খাল) কয়েক যুগ আগেও ঢাকা থেকে চাঁদপুরের মেঘনা নদী দিয়ে ছোট বড় ট্রলারে করে নিত্য প্রয়োজনীয় মালামাল আনা নেয়া করতো এখানকার ব্যবসায়ীরা। রামগঞ্জ, কলাবাগান, মৌলভীবাজার ও সোনাপুর উত্তর বাজার এলাকায় সরকারীভাবে নির্মিত ঘাটলায় চাঁদপুর থেকে আসা মালামাল নামানো হতো।

স্থানীয় ব্যবসায়ী ছেরাজুল হক ও বাহার মিয়াসহ কয়েকজন জানান, লক্ষ্মীপুর, রায়পুর, চাটখিল ও বেগমগঞ্জ (চৌমহুনী) থেকে রামগঞ্জ উপজেলার সোনাপুর বাজারে মালামাল নিতে আসতে বড় বড় পাইকারী ব্যবসায়ীরা। বিশেষ করে পেয়াজ, রসুন ও হলুদ-মরিচের জন্য বিখ্যাত ছিলো সোনাপুর বাজার। এখনো জেলা ও জেলার বাহিরের মানুষের কাছে সোনাপুর বাজার একটি প্রতিষ্ঠিত ব্যবসা কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত। সোনাপুর বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও সাবেক কাউন্সিলর লিয়াকত হোসেন জানান, পুরো খাল জুড়ে নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ। বাজারের ব্যবসায়ীদের ফেলা বজ্যের কারনে দূর্ঘন্ধে টেকা দায় হয়ে পড়েছে। সোনাপুর বাজারের বি সাহা সুইট’সর মালিক অপূর্ব কুমার সাহা জানান, খালটির কয়েক কিলোমিটার অংশ শহরের মাঝখান দিয়ে নোয়াখালী পর্যন্ত বহমান। সোনাপুর, রামগঞ্জসহ খালের পাশের ব্যবসায়ীরা দৈনন্দিন কাজের ময়লা আবর্জনা খালটিতে ফেলে আসছে। রামগঞ্জ পৌর শহরে কোন ডাস্টবিন না থাকায় খালটিতে ব্যবসায়ীরা ময়লা ফেলতে ফেলতে অনেকস্থানে ভরাট হয়ে গেছে। রামগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী মারুফ হোসেন জানান, খালটির ময়লা আবর্জনা অপসারনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় দুষিত হয়ে গেছে খালের পানি।

ডেঙ্গুসহ মশাবাহিত রোগ বালাই বৃদ্ধি পেয়েছে। সরকারীভাবে পুরো খালটি পরিষ্কার করা জরুরী। রামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আবুল খায়ের পাটওয়ারী জানান, খালটির ময়লা আবর্জনা পরিষ্কারে কয়েকবার উদ্যেগ নেয়া হলেও তা আর হয়ে উঠেনি। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলে খালটি পরিষ্কারে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উম্মে হাবীবা মীরা জানান, খালটির ব্যাপারে জানতে আমি উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ারকে পাঠিয়েছি। খালটির মালিকানা নিয়ে জেলা পরিষদ ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের বিরোধ রয়েছে শুনেছি। এসময় তিনি খালটি সংস্কারে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাস দেন। লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ শাহাজাহান জানান, ইতোমধ্যে খালটি উদ্ধার ও সংস্কার করার জন্য জেলা পরিষদ থেকে নোটিশ দেয়া হয়েছে। আমরা খালটি থেকে অবৈধ স্থাপনা উদ্ধারসহ ময়লা আবর্জনা পরিস্কারে অভিযান শুরু করবো।


বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved