মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৫৪ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
বিএলএফ চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলা কমিটির উদ্যোগে শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গলে এমসিডা আলোয়- আলো কিশোর কিশোরী বালিকা ফুটবল টুর্নামেন্ট -২০২৩ খ্রিঃ তুরস্কে ভূমিকম্পে নিহত ১১৮, ধ্বংসস্তূপে আটকে আছেন বহু মানুষ আমার মন্তব্য ছিল ফখরুলকে নিয়ে, হিরো আলম নয়: কাদের রিয়ালের হার, শীর্ষস্থানের পয়েন্ট বাড়াল বার্সেলোনা ইবিতে ছাত্রলীগের কর্মীসভা অনুষ্ঠিত  আইডিয়াল কমার্স কলেজ ও আইডিয়াল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের  শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়ন শীর্ষক  কর্মশালা আদালতের আদেশ অমান্য করে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ শহিদ এএইচএম কামরুজ্জামানের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যরা বাংলা মায়ের টানে মুক্তিযুদ্ধে  অংশ নিয়েছিল এদেশের বীর সন্তানরা                                                     

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীসহ দুজনকে মারধরের অভিযোগ-ট্রাফিক সার্জেন্টের বিরুদ্ধে

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীসহ দুজনকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের এক সার্জেন্টের বিরুদ্ধে।

রোববার (০১ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় বরিশাল নগরের রুপাতলী বাস টার্মিনালে ঘটা এ ঘটনার পর আহতরা বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

আহত সাইদুল ইসলাম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র ও মাারুফ মোল্লা সাইদুলের খালাতো ভাই। তারা ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার আমিরাবাদ এলাকার বাসিন্দা।

আহত সাইদুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, বিকেলে একটা বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্যা নিজ বাড়ি থেকে মোটরসাইকেনলযোগে বরিশাল নগরীর সাগরদি এলাকায় আসছিলাম আমার খালাতো ভাই মারুফ মোল্লার সঙ্গে।

পথে রুপাতলী বাসস্ট্যান্ডে এলাকায় ট্রাফিক পুলিশ সিগন্যাল দিলে আমরা গাড়ি থামিয়ে কাগজপত্র দেখাতে পুলিশ বক্সে যাই। তখন সার্জেন্ট শহিদুল ইসলাম আমার হেলমেট না থাকায় মামলা দিতে চান।

তাকে বিষয়টি ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখার জন্য অনুরোধ করি। কথা বলার এক পর্যায়ে সার্জেন্ট শহিদুল আমাকে গালাগাল করেন। গালাগালের প্রতিবাদ করলে আমাকে মারধর করেন। এতে আমি একপর্যায়ে পুলিশ বক্সের মধ্যে অজ্ঞান হয়ে পড়ি।

তিনি বলেন, আমাকে মারধর করার সময় ভিডিও করতে গিয়ে মারধরের শিকার হয় আমার খালাতো ভাই মারুফও। এরপর আমাদের আত্মীয়-স্বজনরা এসে হাসপাতালে ভর্তি করে।

এসব বিষয়ে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের অতিযরিক্ত উপ-কমিশনার ফারুখ হোসেন বলেন, আমরা ওই ছাত্রকে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছিলাম। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।


বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved