মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:৪৭ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
বিএলএফ চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলা কমিটির উদ্যোগে শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত শ্রীমঙ্গলে এমসিডা আলোয়- আলো কিশোর কিশোরী বালিকা ফুটবল টুর্নামেন্ট -২০২৩ খ্রিঃ তুরস্কে ভূমিকম্পে নিহত ১১৮, ধ্বংসস্তূপে আটকে আছেন বহু মানুষ আমার মন্তব্য ছিল ফখরুলকে নিয়ে, হিরো আলম নয়: কাদের রিয়ালের হার, শীর্ষস্থানের পয়েন্ট বাড়াল বার্সেলোনা ইবিতে ছাত্রলীগের কর্মীসভা অনুষ্ঠিত  আইডিয়াল কমার্স কলেজ ও আইডিয়াল ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজের  শিক্ষকদের পেশাগত দক্ষতা উন্নয়ন শীর্ষক  কর্মশালা আদালতের আদেশ অমান্য করে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ শহিদ এএইচএম কামরুজ্জামানের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ’র নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যরা বাংলা মায়ের টানে মুক্তিযুদ্ধে  অংশ নিয়েছিল এদেশের বীর সন্তানরা                                                     

সরিষাবাড়ীতে একসঙ্গে ৪ কন্যাসন্তান জন্ম দিলেন আঞ্জুয়ারা

জামালপুরে একইসঙ্গে ৪ কন্যাসন্তানের জন্ম দিয়েছেন আঞ্জুয়ারা বেগম (২১) নামে এক গৃহবধূ।
বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারী) রাত সাড়ে ৭টার দিকে জামালপুর এ্যাপোলো হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সন্তানগুলো প্রসব হয়। গৃহবধূ আঞ্জুয়ারা সরিষাবাড়ী উপজেলার সাতপোয়া ইউনিয়নের চর সরিষাবাড়ী গ্রামের কাঠমিস্ত্রী আতাউর রহমান বাবুর স্ত্রী।
এপোলো হাসপাতালের পরিচালক মোহাম্মদ মোরাদুজ্জামান বলেন, গৃহবধূ আঞ্জুয়ারা প্রসব ব্যথা নিয়ে বুধবার আমাদের হাসপাতালে ভর্তি হন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট ও গাইনি সার্জন ডা. খায়রুল বাশার পলাশ আঞ্জুয়ারার অস্ত্রোপচার শুরু করেন। প্রায় ঘণ্টাখানেকের সফল অস্ত্রোপচারে একে একে চারটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। এসময় সার্জন, চিকিৎসক ও হাসপাতালের সবাই অবাক হয়ে যান এবং ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়লে বাচ্চাদের দেখতে অনেকেই হাসপাতালে ভীড় জমান। নবজাতক চার সন্তান ও প্রসূতি মা সুস্থ রয়েছেন বলেও জানা গেছে।
গাইনি সার্জন ডা. খায়রুল বাশার পলাশ জানান, বর্তমানে প্রসূতি ও নবজাতকরা সুস্থ আছে। তবে বাচ্চাদের ওজন যথাক্রমে এককেজি ৮০০ গ্রাম, এককেজি ৭০০ গ্রাম, এককেজি ৬০০ গ্রাম ও এককেজি ৪০০ গ্রাম। নবজাতকদের ওজন কম হওয়ায় তাদের উন্নত চিকিৎসা ও পর্যবেক্ষণের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
প্রসূতির স্বামী আতাউর রহমান বাবু জানান, ৬ বছর আগে তিনি বিয়ে করেন। কিন্তু দাম্পত্যজীবনে আঞ্জুয়ারা এবারই প্রথমবারের মতো সন্তান জন্ম দেন। একসঙ্গে চারটি সন্তানের জন্ম হওয়ায় একইসাথে অবাক এবং খুশি হয়েছেন বলে তিনি জানান।


বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved