শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৯:৪৮ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
বারইয়ারহাটে র‍্যাবের উপর মাদক কারবারিদের পরিকল্পিত হামলা ও ঘটনার বিশ্লেষণ ইতিহাস৭১.টিভির বর্ষপুর্তি উপলক্ষে আলোচনা ও কেক কাটা অনুষ্ঠান সম্পন্ন এসিল্যান্ড মাসুদ রানার অঙ্গীকার, ভুমি সেবা পাচ্ছে সাধারণ মানুষ ঋণের দিক দিয়ে এশিয়ায় বাংলাদেশের অবস্থান সবচেয়ে ভালো: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ভাণ্ডারিয়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তান কমান্ডের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে “ভোক্তা অধিকার বিভাগ” চায় ক্যাব চকরিয়ায় ইউপি সচিবের উপর হামলার ঘটনায় ইউপি মেম্বার কারাগারে নিকলীতে কৃষক রেনু হত্যার এক মাসেও আসামীরা ধরা ছোঁয়ার বাইরে সরিষাবাড়ীতে কচুড়িপানায় নদীর উপর রাস্তা : ভরা নদীর বুকে চালাচ্ছে সাইকেল, খেলছে ফুটবল নরসিংদীতে দুর্ঘটনার কবলে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ত্রাণবাহী পিকআপ ভ্যান

খারাপের একটা সীমা থাকে: ‘ক্ষুব্ধ’ মুশফিক

ফাইল ছবি

২০১২ সালে দুরন্ত রাজশাহীর হয়ে বিপিএলে খেলা শুরু মুশফিকুর রহিমের। অধিনায়ক হিসেবে দলকে তুলেছিলেন সেরা চারে। এরপর সিলেট রয়্যালস, বরিশাল বুলস, রাজশাহী কিংস, চিটাগং ভাইকিংসকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। কোনোবারই শিরোপা ছোঁয়া হয়নি তার। গতবার তার নেতৃত্বে খুলনা প্রথমবার উঠেছিল ফাইনালে। আন্দ্রে রাসেলের দলের কাছে হেরে মুশফিকের স্বপ্ন ভেঙে যায়।

এবারও এলিমিনেটর ম্যাচ থেকে তার দল খুলনা টাইগার্স বিদায় নেয়। সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) চারে থেকেই বিপিএল শেষ হয় খুলনার।
রোমাঞ্চকর ম্যাচে আগে ব্যাটিং করে ওয়ালটনের ৪৪ বলে ৮৯ রানের বিধ্বংসী ইনিংসে চট্টগ্রাম ১৮৯ রানের পুঁজি পায় মুশফিকের দল। ডু অর ডাই ম্যাচে খুলনা দারুণ জবাব দেয়। আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান আন্দ্রে ফ্লেচার ৫৮ বলে ৮০ করেন। মুশফিক ২৯ বলে করেন ৪৩। ইয়াসির ২৪ বলে ৪৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে দলের প্রয়োজন মিটিয়েছেন। শেষ পর্যন্ত ৭ রানের সমীকরণ মেলাতে পারেনি খুলনা।

ম্যাচ শেষে নিজের ক্ষোভ উগড়ে দেন মুশফিক, ‘আরও ভালো করার সুযোগ ছিল। আমাদের মূল ধস হয়েছে বোলিংয়ে। যে কোনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে শেষ ১০ ওভারে ১৩০ রানের মতো (আসলে ১২৩) নেওয়া প্রত্যাশিত নয়। উইকেট যতই ভালো হোক। আমাদের বোলাররা ১০ শতাংশ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারেনি।’

‘ভালোর একটা সীমা আছে, খারাপের একটা সীমা থাকে। ওই সীমাটা যদি আমরা কমিয়ে আনতে পারতাম, তাহলে হয়তো ১৭০, এমনকি ১৮০ রানও ভিন্ন ব্যাপার হতো। আপনারা সেটাই দেখলেন, আমরা ৫-৬ রানে হেরে গেলাম। এমনি ১-২ রানে অনেক ম্যাচ হেরে যায় টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে, আর সেখানে তো…আমি মনে করি, ওই জায়গাতে খেলাটা ওরা সহজেই বের নিয়ে গেছে। আমরা চেষ্টা করেছি, কিন্তু বোলারদের হয়তো দায়িত্বটা আমি সেভাবে দিতে পারিনি এবং তারাও সেটা বাস্তবায়ন করতে পারেনি।’

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved