বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ১২:৫১ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
ছাতকের পরিস্থিতি ভয়াবহ,সারা‌দে‌শে সঙ্গে সড়ক যোগা‌যোগ বন্ধ পিরোজপুরে বাস চাপায় কলেজ ছাত্র নিহত ১৭ মে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা,গণতন্ত্রের অগ্নিবীণা ও উন্নয়ন-প্রগতির প্রত্যাবর্তনঃ তথ্যমন্ত্রী নাজিরপুর অঞ্চলের কৃষকের স্বপ্ন প্রতি বছর তলিয়ে যায় পানির নিচে কালিহাতীতে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন রাজশাহী জেলা সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের ভোট স্থগিত প্রফেসর ডাক্তার উত্তম কুমার বড়ুয়াকে সংবর্ধিত করলো মিলন-পুর্নিমা ফাউন্ডেশন ঈদগাঁওর ৫ ইউনিয়নে আওয়ামী রাজনৈতিক অঙ্গনে চাঙ্গাভাব: উচ্ছাস তৃনমূলে চট্টগ্রামের হিজরা সুমন মানবিক কাজে আত্ম তৃপ্তি পান সরিষাবাড়ীতে দুই শিশু শিক্ষার্থী হারানোকে কেন্দ্র করে মাদ্রাসায় হামলা ভাঙচুর ও শিক্ষককে লাঞ্ছিত

উখিয়া পালংখালী সীমান্তে স্বর্ণে্র বড় চালানসহ এক পাচারকারী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

উখিয়া থানার পালংখালী স্টেশন সংলগ্ন এলাকা হতে পার্শ্ববর্তী দেশ থেকে প্রবেশকৃত অবৈধ এক কোটি ২৬ লাখ টাকা মূল্যের ১৯১ ভরির বেশি স্বর্ণালংকার রেপিড একশন ব্যাটালিয়ন-১৫ কর্তৃক উদ্ধার পূর্বক জব্দ করা হয়। এসময় আলী ওরফে করিম (৩৭) নামে এক পাচারকারীকে আটক করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাব-১৫ কক্সবাজার ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল খাইরুল ইসলাম সরকার।

আটককৃত আসামীর নাম কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের মনিয়াঘোনা এলাকার ঠান্ডা মিয়ার ছেলে করম আলী ওরফে করিম (৩৭)।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল খাইরুল ইসলাম সরকার বলেন, বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি যে উখিয়া উপজেলার পালংখালী সীমান্ত দিয়ে মিয়ানমার থেকে স্বর্ণের বড় একটি চালান আসছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে পালংখালী এলাকায় বিশেষ অস্থায়ী তল্লাশিচৌকি বসিয়ে অভিযান চালানো হয়। একপর্যায়ে তল্লাশিচৌকির সামনে আসা এক ব্যক্তির গতিবিধি ও আচরণ সন্দেহজনক মনে হলে র‍্যাব সদস্যরা থামতে নির্দেশ দেন। এ সময় আটককৃত ব্যক্তি পালানোর চেষ্টা করে। পরে ধাওয়া দিয়ে তাকে আটক করা হয়।

তিনি বলেন, পরে আটককৃত ব্যক্তিকে তল্লাশি করে শরীরে বিশেষ কৌশলে বহন করা অবস্থায় ৬টি স্বর্ণের বার, ৪টি নেকলেস, ৩৩টি গলার চেইন, ১৭টি চুড়ি, ৩৫ জোড়া কানের দুল, ১৫টি লকেট, ১২টি নাকফুল ও ১৬টি আংটিসহ ১৯১ ভরি ৬ আনা ওজনের স্বর্ণালংকার পাওয়া যায়। এসব স্বর্ণের আনুমানিক মূল্য ১ কোটি ২৬ লাখ ৯ হাজার ৪৫৯ টাকা। এ ছাড়া আটক ব্যক্তির কাছ থেকে মিয়ানমারের মোবাইল অপারেটর কোম্পানির ২টি এবং বাংলাদেশি ২ টি সিম কার্ড জব্দ করা হয়েছে। এসব সিম কার্ড পাচারকাজে ব্যবহার করা হয়।

কর্নেল খাইরুল ইসলাম আরও বলেন, সীমান্তে সংঘবদ্ধ একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে স্বর্ণ চোরাচালানের সঙ্গে জড়িত। আটককৃত ব্যক্তি স্বর্ণের চালানটি উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিয়ে যাচ্ছিল। স্বর্ণ চোরাচালানের সঙ্গে রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি স্থানীয় একটি চক্রও জড়িত। আটককৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে উখিয়া থানায় মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

 

বিএস/এসিবি/সিটিজি/২ঃ৪০পিএম

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved