রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:৩০ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
জমি নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ২ জন নিহত পূজাকে ঘিরে মাটির তৈরি খেলনা রাঙাতে ব্যস্ত যশোরের মৃৎশিল্পীরা দিনাজপুরে কৃষি জমির ধান কেটে ফসল নষ্ট করার প্রতিবাদে জাবেদ কে কুপিয়ে গুরুতর জখম রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ১৮ লক্ষ টাকা মূল্যের ইয়াবা উদ্ধার মুন্সীগঞ্জে কোস্ট গার্ডের অভিযানে ২২ হাজার লিটার চোরাই ডিজেলসহ আটক-০২ মুন্সীগঞ্জ‌ে পুলিশ পাহারায় যুবদলকর্মী শাওনের দাফন নোয়াখালীতে ক্রাইম পেট্রোল দেখে শিখে অদিতাকে খুন,   ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে বালিশ চাপায় শ্বাসরোধ; মৃত্যু নিশ্চিত করতে জবাই মেসির জোড়া গোলে আর্জেন্টিনার দুর্দান্ত জয় এইচএসসি ব্যাচ-২২ এর উদ্যোগে ও আয়োজনে ব্যতিক্রমী শিক্ষা সমাপনী “Flashmob” অনুষ্ঠিত ধোবাউড়া কলসিন্দুরে ফুটবল কন‍্যাদের পরিবারের পাশে জেলা প্রশাসন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নাসিরনগরের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানের গভীর জঙ্গল থেকে উদ্ধার !

বৃহস্পতিবার ১৭ফেব্রয়ারী ২০২২ ইং বিকালে খবর পেয়ে চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মো: আলী আশরাফর এর নেতৃত্বে ইন্সপেক্টর তদন্ত চম্পক দাসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদস্য সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানের গহীন জঙ্গল থেকে গলায় ফাঁস লাগানো গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেন। নিহত গৃহবধূর নাম আছমা আক্তার(২২) সে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসীরনগর উপজেলার গোকর্ণ ইউনিয়নের গোকর্ণ গ্রামের আলী মিয়ার কন্যা। জানা গেছে গত ৩ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে নাসিরনগর উপজেলার কুন্ডা গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে অালমগীরের সাথে বিয়ে হয়।তাদের দাম্পত্য জীবনে ২ বছরে একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। স্বামী আলমগীর (২৬) পেশায় একজন ইট ভাটার শ্রমিক। যৌতুকের জন্য স্ত্রী আছমাকে প্রায় সময় নির্যাতন করত আলমগীর। এমনকি শ্বশুরবাড়ি থেকে দেয়া দেড় ভরি ওজনের স্বর্ণ বিক্রি করে দেয় আলমগীর। এই নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক মনোমালিন্য হয়। এক পর্যায়ে স্ত্রী আছমা স্বামীর ওপর অভিমান করে নিজ পিত্রালয়ে চলে আসে। এই ক্ষোভে স্বামী আলমগীর মিয়া তার পুর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী (১৬ ফেব্রয়ারী) স্বর্ণ কিনে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে নিজ পিত্রালয় থেকে স্ত্রী আছমাকে মাধবপুর বাজারের কথা বলে বের করে নিয়ে অাসে।

পরে সিএনজি ভাড়া করে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে ঘুরতে নিয়ে যা।একপর্যায়ে সুযোগ বুঝে আছমাকে সাতছড়ির গহীন জঙ্গলে নিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায় পাষন্ড স্বামী। আছমার পরিবার মোবাইল ফোন বন্ধ পেয়ে তার স্বামীর নাম্বারে ফোন করে।তখন আলমগীর আছমার সাথে তার দেখা হয়নি বলে জানায়।

একপর্যায়ে আছমার পিতা আলী মিয়া নাসিরনগর থানায় যোগাযোগ করলে পুলিশ স্বন্দেহমূলকভাবে আলমগীর মিয়া কে রাতেই আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে একপর্যায়ে সে হত্যার কথা স্বীকার করতে বাধ্য হয়। চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলী আশরাফ বলেন লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামীকে চুনারুঘাট থানায় হস্তান্তর করেছে নাসিরনগর থানা পুলিশ।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved