শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৮:৫৯ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
বারইয়ারহাটে র‍্যাবের উপর মাদক কারবারিদের পরিকল্পিত হামলা ও ঘটনার বিশ্লেষণ ইতিহাস৭১.টিভির বর্ষপুর্তি উপলক্ষে আলোচনা ও কেক কাটা অনুষ্ঠান সম্পন্ন এসিল্যান্ড মাসুদ রানার অঙ্গীকার, ভুমি সেবা পাচ্ছে সাধারণ মানুষ ঋণের দিক দিয়ে এশিয়ায় বাংলাদেশের অবস্থান সবচেয়ে ভালো: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ভাণ্ডারিয়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তান কমান্ডের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে “ভোক্তা অধিকার বিভাগ” চায় ক্যাব চকরিয়ায় ইউপি সচিবের উপর হামলার ঘটনায় ইউপি মেম্বার কারাগারে নিকলীতে কৃষক রেনু হত্যার এক মাসেও আসামীরা ধরা ছোঁয়ার বাইরে সরিষাবাড়ীতে কচুড়িপানায় নদীর উপর রাস্তা : ভরা নদীর বুকে চালাচ্ছে সাইকেল, খেলছে ফুটবল নরসিংদীতে দুর্ঘটনার কবলে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ত্রাণবাহী পিকআপ ভ্যান

সাংবাদিক পরিচয়ে ১৭ বছর পলাতক হত্যা মামলার মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী কামাল গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
সাংবাদিক ছদ্মবেশে ১৭ বছর যাবত পলাতক হত্যা মামলার মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী মোঃ আশরাফ হোসেন ওরফে কামাল (৪৭)’কে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র্যাব-১১।

গতকাল বৃহস্পতিবার  ১৭ ফেব্রুয়ারি  রাতে ঢাকা জেলার সাভার এলাকা থেকে নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ থানা এলাকার মৃত নুরুল গনির ছেলে মোঃ আশরাফ হোসেন ওরফে কামাল (৪৭)কে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‍্যাব-১১ এর সহকারী পরিচালক মিডিয়া এন্ড লিগ্যাল উইং জানান ,২০২১ সালের ২১ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও থানা পুলিশ একটি অধিযাচনপত্রে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত ওয়ারেন্টভূক্ত আসামী মোঃ আশরাফ হোসেন ওরফে কামালকে গ্রেফতারে র‌্যাবের নিকট অনুরোধ করা হয়। এরই প্রেক্ষিতে আসামীকে গ্রেফতারে র‌্যাব গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করে। এরই ধারাবাহিকতায় মামলায় পাওয়া মোবাইল নম্বরের সুত্র ধরে বরিশালে একটি অভিযান চালানো হয়। কিন্তু মোবাইল নম্বরটি আসামীর নামেই রেজিস্ট্রেশনকৃত কিন্তু ব্যবহার করছেন অন্যজন। আসামী দীর্ঘদিন মোবাইল নম্বরটি ব্যবহার না করায় মোবাইল কর্তৃপক্ষ সিমটি অপর ব্যক্তির নিকট রিপ্লেসমেন্ট সিম হিসেবে বিক্রি করেছে। ফলশ্রুতিতে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামীকে সনাক্তপূর্বক গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। এরমধ্যে র‌্যাব সাইবার পেট্রলিং এর মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গ্রেফতারকৃত আসামীর ফুটপ্রিন্ট সনাক্ত করে এবং মাঠ পর্যায়ে তথ্যের সঠিকতা যাচাই করে।

তিনি জানান, গ্রেফতারকৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ এবং চার্জশীট পর্যালোচনায় জানা যায় যে, ২০০৫ সালের গত ১ ফেব্রুয়ারি রাতে পারিবারিক কলহের কারণে গ্রেফতারকৃত আশরাফ তার শিশুপুত্রের সামনে শ্বাসরোধ করে নিজ স্ত্রী সানজিদা আক্তারকে হত্যা করে। হত্যাকান্ডের ঘটনা গোপন করতে মৃতের ওড়না দিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে লাশ ঝুলিয়ে দেয় এবং আত্মহত্যা বলে প্রচার চালায়। এ সংক্রান্তে অপমৃত্যু মামলা হয়। ইতোমধ্যে ঘটনাটি সন্দেহমূলক হওয়ায় আসামীকে ফৌজদারী কার্যবিধি এর ৫৪ ধারা মোতাবেক গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়। সে ১২ দিন পর তার শশুরের সহায়তায় জামিন পায়। জামিন পাওয়ার পরপরই হঠাৎ করে একদিন সে আত্মগোপনে চলে যায়।

তিনি আরও জানান, ময়না তদন্তে শ্বাসরোধ করে সানজিদা আক্তারকে হত্যা করা হয়েছে জানা যায়। সোনারগাঁও থানা পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করে এবং মোঃ আশরাফ হোসেন ওরফে কামালকে আসামী করা হয়। পরে জেলা ও দায়রা জজ আদালত নারায়ণগঞ্জ বিচার শেষে মামলার পলাতক আসামীর বিরুদ্ধে অপরাধ সন্দেহাতীতভাবে প্রমানীত হওয়ায় তাকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেয়। মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী মোঃ আশরাফ হোসেন ওরফে কামাল ১৯৯৮ সালে হিসাব বিজ্ঞান বিষয়ে বি.কম (পাস) করে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও থানার একটি প্রতিষ্ঠিত সিমেন্ট কোম্পানীতে ২০০১ সাল হতে চাকুরী শুরু করে। পরবর্তীতে সে ২০০৩ সালে ভিকটিমের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে সস্ত্রীক কোম্পানীর স্টাফ কোয়ার্টারে বসবাস শুরু করে। ঘটনার পর সে ছদ্মবেশে আশুলিয়ায় বসবাস শুরু করে এবং প্রথম স্ত্রীর ঘটনা গোপন করে পুনরায় ২য় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। পাশাপাশি সাংবাদিকতা পেশাকে গ্রেফতার এড়ানোর ছদ্মবেশ হিসেবে বেছে নেয়।

র‍্যাব-১১ এর সহকারী পরিচালক মিডিয়া এন্ড লিগ্যাল উইং জানান, জিজ্ঞসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামী জানায় যে, আশুলিয়া এলাকায় সে ২০০৬ সালে সাপ্তাহিক মহানগর বার্তা এর সহকারী সম্পাদক হিসেবে যুক্ত হন। অতঃপর সে ২০০৯ সালে আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের সদস্যপদ লাভ করে। পরবর্তীতে সংবাদ প্রতিক্ষণ পত্রিকার সাথে সম্পৃক্ত হয়। সে ২০১৩-১৪ মেয়াদে আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নির্বাচন করে জয়লাভ করেন। ২০১৫-১৬ মেয়াদে আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের সহ-সম্পাদক পদে নির্বাচন করে পরাজিত হয়। সে উক্ত প্রেস ক্লাবের ২০১৬-১৭ মেয়াদে নির্বাহী সদস্য পদ লাভ করে। ২০২০ সালে দৈনিক সময়ের বাংলা পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কাজ করে। সে ২০২১-২২ মেয়াদে আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের পুনরায় সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নির্বাচন করে হেরে যায়। বর্তমানে সে আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের সদস্য এবং স্বদেশ বিচিত্রা পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কাজ করছে। এই দীর্ঘ সময়ে সে সংবাদিকতার পাশাপাশি বিভিন্ন গার্মেন্টস ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করে। নিজে Compliance Solutions নামে একটি কনসালটেন্সি ফার্ম খোলে। ফার্মটি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মপরিবেশ যাচাইয়ের নীরিক্ষার কনসালটেন্সি করত।

গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন আছে বলেও জানান এই র‍্যাব কর্মকর্তা।

বিএস/কেসিবি/সিটিজি/২ঃ৪০পিএম

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved