বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৬:৩৭ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
১৭ মে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা,গণতন্ত্রের অগ্নিবীণা ও উন্নয়ন-প্রগতির প্রত্যাবর্তনঃ তথ্যমন্ত্রী নাজিরপুর অঞ্চলের কৃষকের স্বপ্ন প্রতি বছর তলিয়ে যায় পানির নিচে কালিহাতীতে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন রাজশাহী জেলা সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের ভোট স্থগিত প্রফেসর ডাক্তার উত্তম কুমার বড়ুয়াকে সংবর্ধিত করলো মিলন-পুর্নিমা ফাউন্ডেশন ঈদগাঁওর ৫ ইউনিয়নে আওয়ামী রাজনৈতিক অঙ্গনে চাঙ্গাভাব: উচ্ছাস তৃনমূলে চট্টগ্রামের হিজরা সুমন মানবিক কাজে আত্ম তৃপ্তি পান সরিষাবাড়ীতে দুই শিশু শিক্ষার্থী হারানোকে কেন্দ্র করে মাদ্রাসায় হামলা ভাঙচুর ও শিক্ষককে লাঞ্ছিত নাটোরে ধর্ষণ মামলায় যুবক গ্রেফতার মনোহরদীতে নৌকার প্রার্থীর প্রচারণায় হামলা, ভাংচুর

ঈদগাঁও-ঈদগড় সড়কের পানেরছড়া ব্রীজের পাশে বড় গর্ত : দূর্ঘটনার আশংকা

পাহাড়ী আঁকাবাঁকা কক্সবাজারের ঈদগড়-ঈদগাঁও সড়কের পানেরছড়া ঢালার ভাঙনটি বর্তমানে অভিভাবকহীন অবস্থায় রয়েছে। যেকোন মুর্হুতে দূর্ঘটনার আশংকা প্রকাশ করেন পথচারীরা। কবে ঘুম ভাঙ্গবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের এমন প্রশ্নে ঘুরপাক খাচ্ছে সচেতন মহলের মাঝে।

জানা যায়, সড়কে পানেরছড়া পুর্বপাশে ব্রিজের পাশে বড় গর্তের কারণে বিভিন্ন যাত্রী সাধারণ ও পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল করতে ঝুঁকিপূর্ণ মনে করছে চালকরা।  এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন অসংখ্য যাত্রীবাহী ও হরেক রকমের পণ্য নিয়ে যানবাহন চলাচল করে থাকে। সিএনজি,জীপ,ডাম্পার,মিনিবাস,কভার ভ্যান,ইজিবাইক ও মোটর চালিত হোন্ডা নিয়মিত চলাচল করে থাকে। অধিকাংশ রাস্তা ঈদগড়-ঈদগাঁও খাল ঘেষা হওয়ায় বিভিন্ন জায়গায় ভাঙ্গনে সৃষ্টির পাশাপাশি ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।

কজন সিএনজি যাত্রীর সাথে কথা হলে তারা জানান, ব্রীজের একপাশে গর্ভটি বড় হয়ে যাচ্ছে। দিনের চেয়ে রাত্রীকালীন সময়ে গাড়ী চালানোর সময় যেকোন মুর্হুতে গর্তে পড়ে বড় ধরনের দূর্ঘটনা হতে পারে। এর থেকে পরিত্রান পেতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সিদ্বান্ত নেয়া অতীব জরুরী বলে মনে করেন।

প্রত্যাক্ষদর্শী ইমরান  জানান, ঈদগাঁও- ঈদগড় সড়কের পানের ব্রীজের একপাশে ভাঙ্গনকৃত বড় গর্তটির বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিলে যেকোন সময় দূর্ঘটনায় হতাহত হওয়ায় আশংকা প্রকাশ করেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved