বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০২:২৭ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
ছাতকের পরিস্থিতি ভয়াবহ,সারা‌দে‌শে সঙ্গে সড়ক যোগা‌যোগ বন্ধ পিরোজপুরে বাস চাপায় কলেজ ছাত্র নিহত ১৭ মে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা,গণতন্ত্রের অগ্নিবীণা ও উন্নয়ন-প্রগতির প্রত্যাবর্তনঃ তথ্যমন্ত্রী নাজিরপুর অঞ্চলের কৃষকের স্বপ্ন প্রতি বছর তলিয়ে যায় পানির নিচে কালিহাতীতে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন রাজশাহী জেলা সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের ভোট স্থগিত প্রফেসর ডাক্তার উত্তম কুমার বড়ুয়াকে সংবর্ধিত করলো মিলন-পুর্নিমা ফাউন্ডেশন ঈদগাঁওর ৫ ইউনিয়নে আওয়ামী রাজনৈতিক অঙ্গনে চাঙ্গাভাব: উচ্ছাস তৃনমূলে চট্টগ্রামের হিজরা সুমন মানবিক কাজে আত্ম তৃপ্তি পান সরিষাবাড়ীতে দুই শিশু শিক্ষার্থী হারানোকে কেন্দ্র করে মাদ্রাসায় হামলা ভাঙচুর ও শিক্ষককে লাঞ্ছিত

রামগঞ্জে মাকে কুপিয়ে হত্যার পর লাশ পুড়িয়ে দিলো ছেলে

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে আমেনা বেগম বেলভা (৬০) নামের এক নারীকে কুপিয়ে হত্যা করে আগুনে পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে আপন সন্তান রেদওয়ান হোসেন মিলন (২২) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে রামগঞ্জ থানা পুলিশ।
এ ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আমেনা বেগমের ভাই টিপু সুলতান বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।
ঘটনাটি ঘটেছে রামগঞ্জ উপজেলার ২নং নোয়াগাঁও ইউনিয়নের আশারকোটা গ্রামের অহেদ আলী পাটোয়ারী বাড়ীর মৃত আকবর আলীর পাকা বসতঘরে। নিহত আমেনা বেগম বেলভো ঐ বাড়ীর মৃত আকবর আলীর স্ত্রী।
ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ এমদাদুল হক এমদাদ।
থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতের কোন এক সময়ে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে আমেনা বেগম বেলভোর ছোট ছেলে রেদওয়ান হোসেন মিলন ধারালো দা দিয়ে মাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে। পরে লাশ গুম করার জন্য মায়ের লাশ কম্বল মুড়িয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।
এপ্রসঙ্গে আমেনা বেগম বেলভোর ভাতিজা বোরহান উদ্দিন জানান, পাকা বসতঘরে তারা মা ছেলে দুজনেই ঘরে থাকতেন। মিলনের অন্য দুই ভাই দেশের বাহিরে রয়েছে। রাত প্রায় তিনটার দিকে ঘরের ভিতরে চিৎকার শুনে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি ঘরের বাহির থেকে রুমের ভিতরে আগুন জ্বলছে। খবরটি স্থানীয় গ্রাম পুলিশকে দেয়া হলে রামগঞ্জ থানা পুলিশ ভোর ৫টায় ঘটনাস্থলে আসে।
নিহতের ভাগিনা মোঃ আনিস জানান, আমরা খবর পেয়ে চাটখিল থেকে ছুটে আসি। তিনি আরও জানান, তার ফুফাতো ভাই রেদওয়ান হোসেন মিলনের সাথে একটি মেয়ের সাথে প্রেমের সর্ম্পক ছিলো। ঐ সর্ম্পকের জেরে এ হত্যাকান্ড ঘটতে পারে বলে ধারনা করছেন।
রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ এমদাদুল হক জানান, স্থানীয় গ্রাম পুলিশের মাধ্যমে খবর পেয়ে আমরা বৃহস্পতিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোর ৫টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পাই এরশাদ হোসেনের পাকা বসতঘরের একটি রুমে আমেনা বেগমের শরীরে আগুন জ্বলছে। এসময় ঘর তল্লাশী করে পাশের আরেকটি রুম থেকে মৃতের ছোট ছেলে রেদওয়ান হোসেন মিলনকে আটক করি। জিজ্ঞাসাবাদে সে স্বীকার করেছে তার মাকে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যার পর লাশটি কম্বল মুড়িয়ে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেয়। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হসপিটাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় আমেনা বেগম বেলভোর ভাই টিপু সুলতান বাদী হয়ে রামগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved