সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০২:৫৪ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
অভয়নগরে স্কুলে নিয়োগ বাণিজ্য সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন পুঠিয়ার বানেশ্বরে স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ও সভাপতির মারামারিতে সভাপতি আহত জয়পুরহাটে পৃথক ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু সরিষাবাড়ীতে ব্যাপক হারে চোখ ওঠা রোগী  বেড়ে চলছে  বিদেশি মদসহ সিএনজি ড্রাইভার আটক টেকনাফে ১২টি নবনির্মিত ক্লিনিকের উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী  সরিষাবাড়ীতে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হত্যার উদ্দেশ্যে হামলায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে  কালাম সরদার তিনজনকেই ফ্ল্যাট দিয়ে সুন্দর পরিবেশে রাখা উচিত যা বললেন ডিপজল মাধবপুরে গাছ ফেলে ডাকাতির চেষ্টা গুলি ছুড়ে ডাকাত আটক।

২০২২ সালে দু’মাসে সিলেটে সড়ক দুর্ঘটনার হার ৪.৮৩ !! প্রাণ হানি ৪.১৫

২০২২ সালের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি দুই মাসে সিলেট বিভাগে দুর্ঘটনা ৪ দশমিক ৮৩ শতাংশ, প্রাণহানি ৪ দশমিক ১৫ শতাংশ। সবচেয়ে কম সিলেট বিভাগে প্রাণহানী হয়েছে ৪২ জনের।
শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারী) স্বেচ্ছাসেবী সংগঠ রোড সেফটি ফাউন্ডেশন এ তথ্য প্রকাশ করেছে। ইতোমধ্যে গণমাধ্যমের তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি তৈরি করেছে সংগঠনটি।
প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, এই দুই মাসে শুধু মোটরসাইকেল দুর্ঘটনাই ঘটেছে ৩৫৮টি, যা মোট দুর্ঘটনার ৪২ দশমিক ২১ শতাংশ। এতে নিহত হয়েছেন ৪০৩ জন, যা মোট নিহতের ৩৯ দশমিক ৮২ শতাংশ। সড়ক দুর্ঘটনায় মোট মৃত্যু ১ হাজার ১২ জনের ২০২ জন পথচারী নিহত হয়েছেন, যা মোট নিহতের ১৯ দশমিক ৯৬ শতাংশ। আর যানবাহনের চালক ও সহকারী নিহত হয়েছেন ১৪৭ জন, অর্থাৎ ১৪ দশমিক ৫২ শতাংশ।
জানুয়ারি মাসে ৪৩১টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৫৪৩ জন নিহত হয়েছে। ফেব্রুয়ারী মাসে ৪১৭টি দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ৪৬৯ জন। এই হিসাবে জানুয়ারির তুলনায় ফেব্রুয়ারি মাসে দুর্ঘটনা বেড়েছে ৭ দশমিক ১২ শতাংশ এবং প্রাণহানি কমেছে ৪ দশমিক ৩৪ শতাংশ।
জানুয়ারি মাসে ১৮৭ মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২১৬ জন নিহত হয়েছিল। ফেব্রুয়ারী মাসে ১৭১ মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ১৮৭ জন।
দুর্ঘটনা সংঘটিত সড়কের ধরন : রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের পর্যবেক্ষণ ও বিশ্লেষণ বলছে, দুর্ঘটনা গুলোর মধ্যে ৩৫৩টি (৪১ দশমিক ৬২ শতাংশ) জাতীয় মহাসড়কে, ২৯৫টি (৩৪ দশমিক ৭৮ শতাংশ) আঞ্চলিক সড়কে, ১৪৩টি (১৬ দশমিক ৮৬ শতাংশ) গ্রামীণ সড়কে, ৪৬টি (৫ দশমিক ৪২ শতাংশ) শহরের সড়কে এবং অন্যান্য স্থানে ১১টি (১ দশমিক ২৯ শতাংশ) সংঘটিত হয়েছে।
সড়ক দুর্ঘটনার ধরন : দুর্ঘটনা গুলোর ১৫১টি (১৭ দশমিক ৮০ শতাংশ) মুখোমুখি সংঘর্ষ, ৩৭৯টি (৪৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ) নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে, ১৯৯টি (২৩ দশমিক ৪৬ শতাংশ) পথচারীকে চাপা/ধাক্কা দেওয়া, ৯৩টি (১০ দশমিক ৯৬ শতাংশ) যানবাহনের পেছনে আঘাত করা এবং ২৬টি (৩ দশমিক ০৬ শতাংশ) অন্যান্য কারণে ঘটেছে।
দুর্ঘটনার সময় বিশ্লেষণ : সিলেট বিভাগে দুর্ঘটনা ৪ দশমিক ৮৩ শতাংশ, প্রাণহানি ৪ দশমিক ১৫ শতাংশ।
দুর্ঘটনার প্রধান কারণ : দেশে সড়ক দুর্ঘটনার ১০টি প্রদান কারণ উল্লেখ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে, ত্রুটিপূর্ণ যানবাহন; বেপরোয়া গতি; চালকদের বেপরোয়া মানসিকতা, অদক্ষতা ও শারীরিক-মানসিক অসুস্থতা- বেতন ও কর্মঘন্টা নির্দিষ্ট না থাকা এবং মহাসড়কে স্বল্পগতির যানবাহন চলাচল।
এছাড়াও তরুণ ও যুবদের বেপরোয়া মোটরসাইকেল চালানো- জনসাধারণের মধ্যে ট্রাফিক আইন না জানা ও না মানার প্রবণতা; দুর্বল ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা- বিআরটিএ’র সক্ষমতার ঘাটতি এবং গণপরিবহন খাতে চাঁদাবাজিকে অন্যতম প্রধান কারণ হিসেবে তথ্য গবেষনায় উল্লেখ করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved