মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০১:৩৬ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ১৪ টাকা কমল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে শিমরন হেটমায়ারকে সরকারবিরোধী সমাবেশের ডাক দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী গাজীপুর মহানর আওয়ামী লীগে তোড়জোড়, যুবলীগে কালক্ষেপন, ছাত্রলীগে গুছিয়ে উঠার প্রক্রিয়া! ক্ষ্মীপুরে বাংলাদেশ ইউ,পি মেম্বার এসোসিয়েশনের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত নেতার আশির্বাদে বিজয়ের নিশ্চয়তা দিচ্ছেন জেলা পরিষদ সদস্য প্রার্থী বাকেরগঞ্জের মাসুদ দৌলতপুরে নির্বাচনের আগেই শতভাগ এমপিভূক্তি: এমপি বাদশাহ্ সোস্যাল মিডিয়ায় গুজব, প্রতিবাদ জানালেন প্রভাষক যশোরে কুকুরের মত মুখ নিয়ে গরুর বাছুরের জন্ম

রায়পুরে ডায়রিয়ায় একজনের মৃত্যু, আক্রান্ত ২৫

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়া মীম আক্তার (২২) শারীরিক প্রতিবন্ধী ছিলেন। তিনি উপজেলার কেরোয়া গ্রামের মালের বাড়ির খোকা মিয়ার মেয়ে। গত সোমবার দুপুরে তিনি মারা যান। এছাড়াও গত ৪-৫ দিনে কেরোয়া ইউনিয়ন থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন ২৫ জন। এখনো ৬ জন সেখানে ভর্তি রয়েছেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক মাহমুদ হাসান সিদ্দিকীসহ মেডিকেল টিম গিয়ে তরুণীর মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছেন। পরে তিনি বিভিন্ন বাড়িতে গিয়ে আক্রান্ত রোগীদের খোঁজ নেন এবং পরামর্শ দেন।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, লোকজন ডায়রিয়া নয়, কলেরায় আক্রান্ত হচ্ছেন। পুরোনো কলেরা রোগের মতোই এর ধরণ। এ কারণেই দ্রুত জীবানু ছড়িয়ে পড়ছে। আক্রান্ত ব্যক্তি অল্পতেই গুরুতর অসুস্থ হচ্ছেন। ৫-৬ ঘন্টার মধ্যেই আক্রান্ত ব্যক্তি মৃত্যু ঝুঁকির মুখে পড়ছেন। কয়েকজন চিকিৎসক এটিকে কলেরা হিসেবে অভিহিত করলেও নাম প্রকাশ করতে অনীহা দেখিয়েছেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) মোহাম্মদ কবির আহমেদ বলেন, প্রায় এক সপ্তাহ ধরে কেরোয়া ইউনিয়নে ডায়রিয়া আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। ইতোমধ্যে হাসপাতালে ২৫ জন রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। এখনো ৬ জন রোগী ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছেন। সাধারণ ডায়রিয়ার চাইতে এটির মাত্রা অনেক। রোগীকে ৫-৬ ঘন্টার মধ্যেই ঝুঁকিতে ফেলে দেয়। তাই রোগীদেরকে বাড়িতে না থেকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে আসতে আমাদের চেষ্টা রয়েছে। ইউনিয়নটিতে পর্যাপ্ত পরিমাণ খাওয়ার স্যালাইন ও পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট সরবরাহ করা হয়েছে। আজ সকাল (গতকাল মঙ্গলবার) থেকেই স্বাস্থ্য কর্মীরা বাড়ি বাড়ি এগুলো দিচ্ছেন। ডায়রিয়া সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রচারণা ও পরামর্শমূলক বিষয়গুলো তাঁরা গ্রামে গ্রামে প্রচার শুরু করেছেন।
রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বাহারুল আলম বলেন, প্রতিবন্ধী তরুণী মারা যাওয়ার আগে পেট খারাপ অসুখে ভুগছিলেন। পাতলা পায়খানার কারণে তিনি মারা গেছেন বলে তাঁর বাবা-মা আমাদেরকে জানিয়েছেন। তবে নিশ্চিত কী কারণে তিনি মারা গেছেন সেটা জানতে মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। ডায়রিয়া নিয়ন্ত্রণে আমাদের মেডিকেল টীম ও স্বাস্থ্য কর্মীরা দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছে।
চাঁদপুরের মতলব আইসিডিডিআর.বি হাসপাতালের চিকিৎসক চন্দ্র শিখর রায় বলেন, প্রায় প্রতিদিনই রায়পুর উপজেলাসহ লক্ষ্মীপুর জেলা থেকে ডায়রিয়ায় পানিশূণ্য অবস্থায় ৪০-৫০ জনের মতো রোগী আসছেন। আমরা আমাদের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আক্রান্তের ৫/৬ ঘন্টার মধ্যেই রোগী পানি শূণ্য হয়ে মৃত্যু ঝুঁকির মুখে পড়ে। তাই আক্রান্তদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে স্যালাইন লাগিয়ে এরপর আমাদের এখানে আসার অনুরোধ জানাচ্ছি।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved