সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৬:২০ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
শিল্পী ফারদিন এবার ক্রীড়াঙ্গনে অভয়নগরে স্কুলে নিয়োগ বাণিজ্য সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন পুঠিয়ার বানেশ্বরে স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ও সভাপতির মারামারিতে সভাপতি আহত জয়পুরহাটে পৃথক ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু সরিষাবাড়ীতে ব্যাপক হারে চোখ ওঠা রোগী  বেড়ে চলছে  বিদেশি মদসহ সিএনজি ড্রাইভার আটক টেকনাফে ১২টি নবনির্মিত ক্লিনিকের উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী  সরিষাবাড়ীতে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হত্যার উদ্দেশ্যে হামলায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে  কালাম সরদার তিনজনকেই ফ্ল্যাট দিয়ে সুন্দর পরিবেশে রাখা উচিত যা বললেন ডিপজল

চুনোপুঁটিতেই স্বস্তি : হদিস নেই মাদক সম্রাটদের

প্রতীকী ছবি

দিন যায় দিন আসে, স্মৃতির পাতায় কথা ভাসে। তবুও কেউ কথা রাখেনি, কেউ কথা রাখেনা। এমনই হাজারো অজানা হতাশায় দিনাতিপাত করছেন মাদকমুক্ত ঈশ্বরদী গড়ার স্বপ্নে বিভোর সচেতন ঈশ্বরদী বাসী।
সারাদেশের ন্যায় ঈশ্বরদী থানার পুলিশের চৌকস দল প্রায় প্রতিদিনই মাদকের কোন না কোন চক্রের সদস্যদের গ্রেফতার করছে। কিন্তু আইনের প্রক্রিয়ায় রাত গড়িয়ে সকাল হলেই গ্রেফতার কৃতদের মুক্তি মিলছে অনায়াসে। মুক্তির পর ছোট্র কদিনের বিরতিরপর চিরচেনা সেই মাদকের কারবারে আবারো সক্রিয় হয়ে উঠছে সদস্যরা।
পাবনা জেলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা ঈশ্বরদী। ভৌগলিক আর স্থাপনার দিক দিকে গ্রহণযোগ্যতায় ঈশ্বরদী অনেক এগিয়ে থাকলেও মাদকের স্বর্গরাজ্য হিসেবে ইতোমধ্যে পরিচিতি পেয়েছে মডেল এ উপজেলা। পূর্বে এ উপজেলার কয়েকটি স্থান মাদকের জন্য পরিচিত থাকলেও বর্তমানে তা ছড়িয়েছে সর্বত্র। মাদক কারবারীদের দাপনে কোনঠাসা প্রতিবাদিরা।
তাদের এহেন দাপটের জেরে ভুক্ত ভোগীরা মনে করেন, প্রশাসনের কিছু অসাধু কর্মকর্তাদের যোগসাজশ আছে মাদক সম্রাটদের সাথে। ফলস্রুতিতে চুনোপুঁটিরা ধরা পড়লেও সন্ধান মেলেনা মাদকের গড ফাদারদের। আড়ালে থেকেই গডফাদাররা নিয়ন্ত্রন করছে সবাইকে। যারফলে মাদক নির্মূলের প্রতিশ্রæতি অধরাই থেকে যাচ্ছে।
দিনে দিনে ধবংসের দ্বারপ্রান্তে শিশু, যুবক এমনকি বৃদ্ধারাও। সামাজিক অবক্ষয় গুলো তাই রুপ নিচ্ছে মহামারীতে।
রাজাপুর ডিগ্রী কলেজের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক, মোঃ রাশেদুল আউয়াল রিজভী বলেন, বাংলাদেশের মধ্যে ঈশ্বরদী একটি গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা। এখানে যতবারই নতুন প্রশাসন বা নতুন নেতার আবির্ভাব হয়েছে তারা সবাই ঈশ্বরদীকে মাদকমুক্ত করার প্রতিশ্রæতি দিলেও কেউ কথা রাখেনা, কেউ কথা রাখেনি। বরং মাদক সম্রাটরা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের আর্শিবাদ পুষ্ঠ হয়ে তাদের কারবার চালনা করে চলেছেন দাম্ভিকতার সহীত। যার ফলে দু-এক জন চুনো পুঠিকে প্রশাসন পাকরাও করলেও ধরা ছোয়ার বাইরে থেকে যাচ্ছে মাদকের সম্রাটরা।
আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে অনুরোধ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, আগামীর সুন্দর বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ঈশ্বরদীর ন্যায় সারা দেশের মাদক সম্রাটদের চিন্হিত করে তাদের শিকড় উপরে ফেলুন। তাদের পরিচয় না লুকিয়ে তাদেরকে জন সম্মুখে আনতে হবে। সমাজের সর্বস্তরের মাদক কারবারীদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।
কেবল চুনোপুঁটিদের নিয়ে ব্যাস্ত থাকলে হবে না, মাদক নির্মূলে মাদক সম্রাটদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির ব্যাবস্থা করতে হবে ।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved