শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৫৩ অপরাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।

হাজারে নেই একজনেরও মাস্ক, উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

Exif_JPEG_420

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলার পরে বেশ কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছিল দেশবাসী। দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে  দেশে করোনার শনাক্ত ও মৃত্যুর হার ছিল বেশ সন্তোষজনক।
ডেল্টাভ্যারিয়েন্টের ছোবল থেকে কিছুটা নিস্তার পেতে শুরু করলে আবার নতুন করে আশংকা হারে বাড়তে শুরু করেছে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন।
দেশে সর্বপ্রথম (১ ডিসেম্বর) জিম্বাবুয়ে থেকে ফেরত দুই নারী ক্রিকেটারের মধ্যে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হয়। এর কিছু দিন পর থেকেই তা ছড়িয়ে পরতে থাকে সারাদেশে যার ফলশ্রুতিতে দেশে করোনার শনাক্তের হার ৫ শতাংশ থেকে প্রায় ২৬ শতাংশে এসে পৌছেছে।
বর্তমানে করোনার এবং ওমিক্রনের শনাক্তের হার বাড়ছে।  এমন পরিস্থিতিতে দেশের ১২ জেলাকে রেড জোন হিসেবে ঘোষণা করে স্বাস্থ্য বিভাগ।  তার মধ্যে রয়েছে “পঞ্চগড় জেলা”।
পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায়ও বাড়ছে করোনার নতুন সংক্রামন।  বিভিন্ন হাট বাজারে ঘোরে দেখা যায় উপেক্ষিত হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি এবং মাস্ক না পরার প্রবণতা।
আটোয়ারীর ফকিরগঞ্জ গরুর হাটে যেন চলছে মাস্ক না পরার ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার প্রতিযোগিতা। সপ্তাহে দুটি (রবিবার, বৃহস্পতিবার) গরুর হাটে পাশ্ববর্তী জেলা সহ বিভিন্ন উপজেলার অনেক মানুষ আসে গরু কেনাবেচার জন্য। তাই করোনার সংক্রমণের ঝুঁকি থেকেই যায়।
গরু হাটের এমন খারাপ পরিস্থিতি নিয়ে গরু ক্রেতা মসলিমের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, হাটের মধ্যে অনেক ভীড়।  গরুর দাম বনাবনির জন্য মাস্ক খুলে কথা বলতে হচ্ছে নইলে ছত্রিশ হাজার টাকার গরু ত্রিশ হাজার শোনা যায়। তাই মাস্ক খুলে রাখতে হয়।
গরু বিক্রেতা আঃ জলিল বলেন, এই হাটে বহু দূর থেকে অনেক মানুষ আসে গরু কেনাবেচার জন্য।  তাই করোনাও বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। প্রশাসন যদি খোলা মাঠে বা ডিগ্রি কলেজের মাঠে গরুর হাট অস্থায়ী ভাবে স্থানান্তর করে তাহলে অনেক ভালো হতো।
অন্যদিকে,  কাঁচা ও  মাছের বাজার সহ বিভিন্ন স্থানেও চলে মাস্ক না পরা,  সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখা ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার প্রবণতা বেড়েছে ব্যাপক হারে।
তাই স্বাস্থ্য ও বিধিনিষেধ মানা সহ মাস্ক পরা ছাড়া আর কোন উপায় নেই বলে জানান আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য পঃ পঃ অফিসার ডা. হুমায়ুন কবির। তিনি আরো বলেন করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় উপজেলায় মানুষের মাঝে  উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সও জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে।
উপজেলার গরুর হাট সহ সব বাজারের স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত ও মাস্ক না পরার প্রবণতার সার্বিক বিষয় নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মুসফিকুল আলম হালিমের সাথে কথা বললে তিনি জানান, উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে প্রতিনিয়ত জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম হিসেবে লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ করা হচ্ছে।  তাছাড়া মাইকিংয়ের মাধ্যমে মানুষের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি করছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved