বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
ডিজিটাল নিরাপত্তা একটি আধুনিক মৌচাক ইউনিয়ন পরিষদ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে চেয়ারম্যান পা দিয়ে লিখে এসএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে মাধবপুরে নবাগত ইউএনও’র সাথে উপজেলা প্রেসক্লাবের মতবিনিময় সভা গাজীপুর জেলা কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সভাপতি পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে এম এ লতিফ ক্ষে‌তেই বিক্রি হচ্ছে নতুন আলু, চা‌হিদার সা‌থে দামও বে‌শি পাথরঘাটায় হাত পা বেঁধে অস্ত্রে মুখে জিম্মি করে বিএনপি নেতার বাড়িতে ডাকাতি বগুড়ায় বিষাক্ত রং মেশানো মাছ বিক্রি, ব্যবসায়ীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা নওগাঁয় গভীর নলকূপের বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরির হিড়িক রাজবাড়ীতে আওয়ামী লীগ নেতার নেতৃত্বে  হামলা-ভাংচুর ও মারপিট প্রতারণার মাধ্যমে দ্বিতীয় বিবাহ:থানায় লিখিত অভিযোগ

সুন্দরবনে বিলুপ্তপ্রায় কচ্ছপের ডিম থেকে ৩৩ বাচ্চার জন্ম

পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে বিলুপ্ত প্রজাতির কচ্ছপ ‘’বাটাগুর বাসকা’ এর ৩৩ টি বাচ্চা ফুটেছে।
আজ শনিবার (০৭ মে) সকালে এ বাচ্চাগুলো ডিম থেকে ফুটে বের হয়েছে। ডিম থেকে বের হওয়া বাচ্চাগুলো কচ্ছপের জন্য তৈরি ‘হ্যাচিং প্যানে’ রাখা হয়েছে।
করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির জানান, কচ্ছপটির ৩৪টি ডিমের মধ্যে ১টি ডিম নষ্ট হয়ে গেছে। কচ্ছপের বাচ্চাগুলোকে প্রজনন কেন্দ্রের হ্যাচিং প্যানের মধ্যে রাখা হয়েছে। ধীরে ধীরে এগুলোকে যত্মআত্তির মাধ্যমে বড় করা হবে। ৬ মাস পরে অন্য জায়গায় হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছেন সুন্দরবনের করমজল কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত এ কর্মকর্তা।
এর আগেও এই বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে পাঁচবার বাটাগুর বাচ্চা ফুটেছে। গত ৬ মার্চ একটি কচ্ছপের দেওয়া ৩৪ টি ডিম থেকে এই ৩৩ টি বাচ্চা ফুটলো।
২০১৪ সালে করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন ও লালনপালন কেন্দ্রে বিলুপ্তপ্রায় বাটাগুর বাসকা প্রকল্প চালু করা হয়। ২০১৭ সালে দুটি কচ্ছপ যথাক্রমে ৩১ ও ৩২ টি ডিম পাড়ে। তা থেকে ২৮ ও ২৯ টি বাচ্চা পাওয়া যায়। ২০১৮ সালে দুটি কচ্ছপ যথাক্রমে ২৬ ও ২০ ডিম পাড়ে। তা থেকে যথাক্রমে ৫ টি ও ১৬ টি বাচ্চা পাওয়া যায়। ২০১৯ সালে একটি কচ্ছপের ৩২ টি ডিম থেকে ৩২ টি বাচ্চাই পাওয়া যায়। সর্বশেষ ২০১৯ সালে একটি কচ্ছপের ৩২ টি ডিম থেকে ৩২ টি বাচ্চা পাওয়া যায়। এসব বাচ্চা বর্তমানে কেন্দ্রে বড় হচ্ছে।
সুন্দরবনের করমজল কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির বলেন, ‘গত ৬ মার্চ একটি কচ্ছপ ৩৪ টি ডিম পাড়ে। আমরা যথাযথ নিয়মে ডিমগুলোকে প্রাকৃতিক ইনকিউবেটরে রাখি। সেখান থেকে আজ ৩৩ টি বাচ্চা ফুটে বের হয়েছে। বাচ্চাগুলোকে ‘হ্যাচিং প্যানে’ রাখা হয়েছে। এখানে ওগুলোর পর্যাপ্ত খাদ্য ও যত্ন করা হবে। ৬ মাস পরে অন্য খাঁচায় নেওয়া হবে।
এ পর্যন্ত ৩২৭ টি ডিম থেকে ২৭৪ টি বাচ্চা পাওয়া গেছে। বর্তমানে এই ৩৩টি বাচ্চাসহ বিভিন্ন বয়সী মোট ৩৮৭ টি কচ্ছপ করমজল কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্রে রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved