মঙ্গলবার, ২৮ Jun ২০২২, ১২:৩৫ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
দালাল ধরতে চট্টগ্রাম মহানগরীর কাট্টলী সার্কেল ভূমি অফিস ও আশেপাশের এলাকায় অভিযানঃএক দালালকে অর্থদণ্ড “অসহায় ও দরিদ্র বিচার প্রার্থী জনগণের শেষ আশ্রয়স্থল লিগ্যাল এইড:সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আজিজ আহমদ ভূঞা ২য় দিনের মত সুনামগঞ্জ জেলায় ত্রাণ ও নগদ অর্থ বিতরণ করলেন কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে কাউখালীতে আলোচনা সভা ও আনন্দ র‌্যালি শার্শা সাব-রেজিস্ট্রী অফিসের কর্মচারী ও দলিল লেখক গনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম রথ উৎসব ধামরাই শ্রীশ্রী যশোমাধব দেবের রথ উৎসব ও মাসব্যাপী রথমেলা শুরু হবে শুক্রবার ময়মনসিংহ কৃষি ব্যাংক বিভাগীয় মহাব্যবস্হাপকের বিশেষ উদ্যোগে বন্যা কবলিত ভানবাসি মানুষকে সহায়তা প্রদান করছেন। স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত এমপি মোতাহার হোসেন মাদক একেবারে নির্মূল করা না গেলেও সমন্বিত উদ্যোগে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব:চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার ময়মনসিংহের শম্ভুগঞ্জের রঘুরামপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মহিলা নিহতের ঘটনায় -আটক-৯

পেট্রোল ও অকটেন সংকটে নীলফামারী

চাহিদা অনুযায়ী পেট্রোল ও অকটেনের সরবরাহ না পাওয়ায় নীলফামারী জেলায় তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে জ্বালানী তেলের। এতে বন্ধ হয়ে পড়েছে জেলার ছয় উপজেলার ৩৬টি তেল পাম্প। গত সাতদিন ধরে ওই পাম্পগুলোতে তেল বিক্রি বন্ধ রয়েছে। তবে ডিপো থেকে সরবরহ না থাকায় এমনটি হচ্ছে বলে দাবী পাম্প মালিকদের। গত কয়েক দিন ধরে পেট্রোল না থাকায় বেশী দামে অকটেন ব্যবহার করতে হচ্ছে চালকদের। আর এই অবস্থা চলতে থাকলে আগামী ২-৩ দিনের মধ্যে মজুদকৃত অকটেন শেষ হয়ে যাবে বলছেন, ব্যবসায়ীরা। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ নানান অজুহাত দেখিয়ে তেল কোম্পানিগুলো কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করেছে। তবে এখন পর্যন্ত ডিজেল ও কেরোসিনের সরবরাহ ঠিক রয়েছে।
এদিকে পাম্পগুলোতে পেট্রোল সংকট থাকায় চালকরা বিভিন্ন ষ্টেশন ঘুরে ঘুরে পেট্রোল না পেয়ে বাধ্য হয়ে গাড়িতে অকটেন ব্যবহার করেছেন। এ অবস্থায় খরচ বেড়ে যাওয়া আর পরিমান মতো জ্বালানী তেল না পাওয়ায় চালকসহ সাধারণ মানুষ পড়ছেন চরম বিপাকে।
মোটরসাইকেল চালক ইলিয়াস আলী  বলেন, পেট্রোল না পাওয়ায় আমরা চরম দূর্ভোগে আছি। আমাদের অনেক ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। আজ আমি ৫-৬ পাম্প ঘুরে একটি পাম্পে তেল নিলাম। তাও আবার পেট্রোল না অকটেন। ২শ’ টাকার বেশি দিচ্ছে না। এভাবে চলতে থাকলে গাড়ি চালানো দুষ্কর হয়ে যাবে। আমাদের এই দুর্ভোগ লাঘবে দ্রুত পেট্রোল ও অকটেন সরবরাহ করা হোক মানুষের জীবনযাত্রা স্বাভাবিক হোক।
জ্বালানী সংকটের কথা স্বীকার করলেও বিভিন্ন সিন্ডিকেটের কাছে নিজেদের নিরূপায় দাবী করছেন পাম্পের মালিকেরা।
ডালিয়া এলাকার তিস্তা ফিলিং ষ্টেশনের ম্যানেজার আলম জানান, গত ৭ দিন আগেই আমাদের পেট্রোলের ষ্টোক শেষ হয়েছ। এখন অকটেন বিক্রি করছি। অকটেনও শেষ হওয়ার পথে। আশা করছি আজকের মধ্যেই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। তেলের কোন সংকট থাকবে না।
নীলফামারী জেলা পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আকতার হোসেন স্বপন জানান, গত দুই সপ্তাহ ধরে তেলের জন্য ব্যাংকের মাধ্যমে পে-অর্ডার পাঠানোর পরও কোম্পানীর ডিপোগুলো থেকে পেট্রোল ও অকটেন সরবরাহ করছে না। বর্তমানে যতটুকু অকটেন আছে দু-একদিনে চলবে। এরপর পাম্পগুলো বন্ধ হয়ে যাবে। গত কয়েকদিন ধরে পাম্পগুলোতে পেট্রোল বিক্রি করতে পারেনি মজুদ না থাকার কারণে। এতে ব্যবসায়ী ও ভোক্তা দু’ পক্ষই ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছেন। তিনি আরো বলেন, ডিপো থেকে বিপিসি’র মাধ্যমে যদি তেল বন্টনের করা যেত তাহলে তেলের সংকট অনেকটাই কমে যেত।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved