শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০২:৪৫ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
এনজিও খেকে অন্যের নামে ঋণ উত্তোলন করে অর্থ আত্মসাৎ; স্বামী স্ত্রী আটক এনজিও খেকে অন্যের নামে ঋণ উত্তোলন করে অর্থ আত্মসাৎ; স্বামী স্ত্রী আটক পুলিশ সদস্যের কব্জি বিচ্ছিন্নের ঘটনায় সন্ত্রাসী কবির গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক সহযোগীসহ আটক নগরীর কোতোয়ালি থেকে ছিনতাইকৃত টাকাসহ ১ ছিনতাইকারী আটক বিচক্ষন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব,দক্ষ সংগঠক ও পরীক্ষিত রাজনীতিবিদ হিসাবে কেমন আ জ ম নাছির উদ্দিন? ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন  আসার পর ফুলপুরে পাল্টে গেছে দৃশ্যপট। ভুট্টা মাড়াই শেষে,  রাস্তার ধারে ভুট্টা গাছ পুড়ছে চাষীরা ।  ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে রাস্তার দু’ধারের নারিকেল গাছ  ।  গত কাল ছবিটি পোল্যাকান্দি প্রধান সড়ক থেকে তোলা ।  প্রেমের সম্পর্ক করে ধর্ষণ ও ব্ল্যাকমেইল;এক সাইবার প্রতারক আটক সিআরবি সাত রাস্তার মোড় থেকে চুরিকরা মোটরসাইকেলসহ আটক ১ আব্দুল গাফফার চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী

পিরোজপুরে অবহেলায় ডায়রিয়া রোগীর মৃত্যু

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় রবিবার (৮ মে) সকাল ১০ টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারের অবহেলায় সজিব উকিল (১৪) নামে এক ডায়রিয়ার রোগীর মৃত্যু অভিযোগ উঠেছে।
সজিব উকিল উপজেলার ২ নম্বর নদমূলা শিয়ালকাঠী ইউনিয়নের চরখালী গ্রামের মুজাম্মেল উকিলের পুত্র। সে দৃষ্টি প্রতিবন্ধি। শনিবার রাতে তিনি ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হন। রবিবার সকাল ৫ টায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সকাল দশটার দিকে তার মৃত্যু হয়।
মৃত সজিবের মা শিল্পি বেগম বলেন, ‘সজিবকে সকালে ভর্তির পরে হাসপাতাল থেকে শুধু একটি স্যালাইন দেওয়া হয়। বাকি সব ওষুধ বাইরে থেকে কিনতে হয়েছে। সকাল ৫ টা থেকে ১০ টা পর্যন্ত কোন ডাক্তার তাকে দেখতে আসেনি। স্যালাইন শেষ হলে আর কোন স্যালাইন দেয় নি। রোগী মারা যাওয়ার পরে স্যালাইন লাগানো হয়।
মৃত সজিবের পিতা মুজাম্মেল উকিল জানান, হাসপাতালে ভর্তি করার পরে আমার ছেলেকে কোন বেড দেয়নি। অন্য রোগী চলে যাবার পরে সেই বেডে আমরা গেলে নার্স আমাদের বেড থেকে নামিয়ে দেয়।
এ বিষয়ে সিনিয়র স্টাফ নার্স পার্বতী রুদ্র জানান, আমি সহ নার্স সনিয়া  আক্তার ও তানিয়া আক্তার রাত্রিকালিন দায়িত্ব পালন করি। ওই রোগী মহিলা ওয়ার্ডের বেডে গেলে সেই ওয়ার্ডের মহিলারা অভিযোগ দিলে আমরা তাদের কে পুরুষ ওয়ার্ডে যেতে বলি। আমাদের ডিউটি সকাল আটটায় শেষ হয়। তখন রোগীর অবস্থা ভাল ছিল। আমরা চলে আসার পরে শুনি রোগীর মৃত্যু হয়েছে।
এ বিষয়ে ভান্ডারিয়া পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ কামাল হোসেন মুফতি জানান, যে অভিযোগটি আসছে সেটি তদন্তাধীন ব্যপার। এঘটনায় ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠ করেছি। তদন্তের পরে দায়িত্বে গাফলতি থাকলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved