বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০২:৪৯ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
ডিজিটাল নিরাপত্তা একটি আধুনিক মৌচাক ইউনিয়ন পরিষদ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে চেয়ারম্যান পা দিয়ে লিখে এসএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে মাধবপুরে নবাগত ইউএনও’র সাথে উপজেলা প্রেসক্লাবের মতবিনিময় সভা গাজীপুর জেলা কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সভাপতি পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে এম এ লতিফ ক্ষে‌তেই বিক্রি হচ্ছে নতুন আলু, চা‌হিদার সা‌থে দামও বে‌শি পাথরঘাটায় হাত পা বেঁধে অস্ত্রে মুখে জিম্মি করে বিএনপি নেতার বাড়িতে ডাকাতি বগুড়ায় বিষাক্ত রং মেশানো মাছ বিক্রি, ব্যবসায়ীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা নওগাঁয় গভীর নলকূপের বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরির হিড়িক রাজবাড়ীতে আওয়ামী লীগ নেতার নেতৃত্বে  হামলা-ভাংচুর ও মারপিট প্রতারণার মাধ্যমে দ্বিতীয় বিবাহ:থানায় লিখিত অভিযোগ

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধ! আহত ৬

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে অবকাশ কালীন সময়ে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে ৬ জনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ উঠেছে সেনা সদস্য সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে।
৭ মে (শুক্রবার) পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ  উপজেলার চিলাহাটি ইউনিয়নের আদরপাড়া গ্রামে উক্ত ঘটনাটি ঘটেছে বলে সূত্র জানায়।
ভুক্তভোগী ও স্থানীয়দের দৈনিক বাংলাদেশ সমাচারকে বলেন, মইনুল ও তার প্রতিবেশী আসলাম হোসেনের মধ্যে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল দীর্ঘদিন যাবত। গত শুক্রবার উক্ত জমিতে আসলাম হোসেন আইল বাঁধতে শুরু করেন। তারই ফলপ্রসূতে বিষয়টি নিয়ে  ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হারুন অর রশিদের  উপস্থিতিতে দুই পক্ষের আলোচনার কথা থাকায় আসলামকে আইল বাধতে বাঁধা প্রদান মইনুল ইসলাম। এইসময় বাঁধা  উপেক্ষা করে মইনুল ইসলামকে মারধর শুরু করেন আসলাম ও তার ছেলে সেনা সদস্য মাহবুব হোসেনসহ আরো কয়েকজন। পরে মইনুল ইসলামকে রক্ষারর্থে  তার স্ত্রী, বড় মেয়ে মৌসুমী আক্তার, দুই ভাতিজা এগিয়ে এলে তাদেরকেও দেশীয় অস্ত্রদিয়ে আঘাত করা হয়। চিৎকার চেঁচামেচিতে এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে আসলাম হোসেন ও তার পরিবারের সদস্যরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে মইনুল ও তার পরিবারের সদস্যদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দেবীগঞ্জে নিয়ে ভর্তি করায়।
দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন মইনুল ইসলাম জানান, আসলাম ও তার ছেলে সেনা সদস্য মাহাবুব আমাদের জমিতে আইল বাঁধতে গেলে আমরা বাঁধা প্রদান করি। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদের উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে। এতে আমিসহ পরিবারের ৬ জন আহত হয়ে মাঠিতে লুটিয়ে পড়ি।  আমাদের চিৎকারে স্থানীয়া এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে। পরে আমাদেরকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দেবীগঞ্জ স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করায়।
এব্যাপারে ৭ জনকে আসামী করে দেবীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।
এদিকে সেনা সদস্য মাহবুব হোসেনের হাতে লাঠি নিয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলা করতে যাওয়ার একটি ভিডিও ক্লিপে পাওয়া গেছে।
এ বিষয়ে মাহবুব হোসেনের সাথে কথা বলার জন্য একাধীক বার যোগাযোগের চেষ্টা করা করেও তাকে পাওয়া যায় নাই।
দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. এনায়েতুর রহমান বলেন, গত শুক্রবার সকালে ৬জন আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়। তাদের চিকিৎসা চলছে।
দেবীগঞ্জ থানা পুলিশের এএসআই রিয়াজ বলেন, আমি খবর পেয়ে তদন্ত করে জানতে পারি আসলামের লোকজন তাদের মারপিট করেছে। এদিকে দেবীগঞ্জ থানার দায়িত্বরত কর্মকর্তা এসআই রাশেদুল ইসলাম বলেন, আমরা জমি সংক্রাত মারপিটের ঘটনায় উভয় পক্ষেরই দুটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved