মঙ্গলবার, ২৮ Jun ২০২২, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
দালাল ধরতে চট্টগ্রাম মহানগরীর কাট্টলী সার্কেল ভূমি অফিস ও আশেপাশের এলাকায় অভিযানঃএক দালালকে অর্থদণ্ড “অসহায় ও দরিদ্র বিচার প্রার্থী জনগণের শেষ আশ্রয়স্থল লিগ্যাল এইড:সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আজিজ আহমদ ভূঞা ২য় দিনের মত সুনামগঞ্জ জেলায় ত্রাণ ও নগদ অর্থ বিতরণ করলেন কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে কাউখালীতে আলোচনা সভা ও আনন্দ র‌্যালি শার্শা সাব-রেজিস্ট্রী অফিসের কর্মচারী ও দলিল লেখক গনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম রথ উৎসব ধামরাই শ্রীশ্রী যশোমাধব দেবের রথ উৎসব ও মাসব্যাপী রথমেলা শুরু হবে শুক্রবার ময়মনসিংহ কৃষি ব্যাংক বিভাগীয় মহাব্যবস্হাপকের বিশেষ উদ্যোগে বন্যা কবলিত ভানবাসি মানুষকে সহায়তা প্রদান করছেন। স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত এমপি মোতাহার হোসেন মাদক একেবারে নির্মূল করা না গেলেও সমন্বিত উদ্যোগে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব:চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার ময়মনসিংহের শম্ভুগঞ্জের রঘুরামপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মহিলা নিহতের ঘটনায় -আটক-৯

পঞ্চগড়ে নারী জয়িতার জীবন যুদ্ধে ভূমিদস্যুর হানা

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে জীবন যুদ্ধে সংগ্রামী নারীর একমাত্র অবলম্বন ছোট্ট দোকান ঘরে ভূমিদস্যু দ্বারা হুমকির শিকার বলে অভিযোগ উঠেছে।
উল্লেখ্য যে, পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার কাদেরের মোড় মেলা পাড়া গ্রামের বাসিন্দা রওশন আরা (৪১) নামে এক অদম্য জীবন যুদ্ধে হার না মানা এক নারী। তিনি তার সাত সদস্যের একমাত্র কর্মক্ষম ব্যক্তি। তিনি তার কষ্টার্জিত অর্থে ছেলেকে শিক্ষিত করেছেন বলে বিভিন্ন সূত্র জানায়।
এলাকাবাসী সূত্রে আরো জানা যায়, তিনি দীর্ঘ ২৫ বছর যাবত কাদেরের মোড় বাজারে দোকানদারি করে আসছেন।
কাদেরের মোড় বাজারটি ১৯৯৩/১৯৯৪ সালে তৎকালীন টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়ের চেয়ারম্যান মরহুম কাওছার আলম সরকার তার নিজ উদ্যোগে সরকারি খাশ জমির উপরে মাটি ভরাট করে স্থাপন করেন।
সরকারি খাশ জমির উপরে নির্মিত বাজারে একাধিক দোকানপাট গড়ে উঠে।
এরই ধারাবাহিকতায় দেবীগঞ্জ উপজেলার টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নের রামগঞ্জ বিলাসী মেলা পাড়া গ্রামের জনৈক আব্দুল হাকিমের সহধর্মিণী রওশন আরা একটি দোকান স্থাপন করে সংসার পরিচালনার হাল ধরেন।
ভুক্তভোগী রওশন আরা দৈনিক বাংলাদেশ সমাচারকে বলেন, আমি পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। আমার কষ্টার্জিত টাকায় পুরো পরিবার চলে।
আমার একমাত্র উপার্জনের পথ সরকারি  জমির খাশ উপর দোকান ঘরটি, কিন্তু এখন আমার সামনে উঁকি দিচ্ছে ঘোর অন্ধকার।
তিনি বলেন, স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী ভূমিদস্যু সরকারি খাশ জমিতে নির্মিত দোকান ঘরটির মালিকানা দাবী করছেন। পাশাপাশি রওশন আরা ও তার পরিবারকে বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করছেন বলে ভুক্তভোগী নিজে গণমাধ্যমকে জানান।
এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়,  রওশন আরা একজন দুস্থ নারী হওয়ায়,  স্থানীয় প্রভাবশালীরা দিনাজপুর বনবিভাগের অধীনস্থ কাদেরের মোড় বাজারে বিভিন্ন খাশ জমি নিজের বলে দাবী করে যাচ্ছেন।
জনৈক ষাটোর্ধ এক বৃদ্ধার সাথে কথা বলে জানা যায়, রওশন আরা একজন অদম্য নারী, তিনি বহু কষ্টে নিজের সংসার পরিচালনা করেন। তিনি আরো বলেন, রওশন আরা সরকারি জমিতে দোকানদারি করেন, এখানে অন্য কেউ মালিকানা দাবী করতে পারে না।
টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম রহমান সরকার দৈনিক বাংলাদেশ সমাচারকে বলেন, আমার জানামতে রওশন আরা প্রায় ২৫ বছর ধরে কাদেরের মোড়ে দোকান করে আসছেন। তিনি তার সাত সদস্যের পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি।
মিঃ সরকার আরো বলেন রওশন আরা সরকারি খাশ জমিতে দোকান করে সংসার পরিচালনা করেন। সরকারি জমির নিজ মালিকানা দাবী করা সম্পূর্ণ বেআইনি কাজ।
তিনি আরো বলেন আমরা স্থানীয় সরকারের বিভিন্ন সুবিধাদি প্রদান করতে চাইলে রওশন আরা নিরবে প্রত্যাখ্যান করেন।
আমার জানামতে তিনি কখনো সরকারি বা বেসরকারি কোন অনুদান গ্রহণ করেননি।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved