বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ১০:৩২ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অভিযানে বিভিন্ন অনিয়মে ৯ ফিলিং স্টেশনকে অর্থদণ্ড ধামইরহাটে শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন বালুর ট্রাকের ভিতর থেকে মাদক উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৩ পত্নীতলায় নৈশপ্রহরীদের মাঝে বণিক সভাপতি’র ছাতা বিতরণ। মাইক্রোবাসে মাদক পাচার; পটিয়া বাইপাস রোডে ফেন্সিডিল ও গাঁজাসহ আটক ৩ সোনার বাংলা বিনির্মাণে নতুন প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস জানাতে হবেঃ এম.এ সালাম বঙ্গবন্ধুর অনুপ্রেরণা ও উদ্দীপনার উৎস ছিলেন বঙ্গমাতা-স্থানীয় সরকার মন্ত্রী পিরোজপুরে মাদ্রাসার সম্মুখের সংযোগ রাস্তা সংরক্ষণ করার দাবীতে মানববন্ধন ভান্ডারিয়ায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী পালিত বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিব এর ৯২তম জন্মবার্ষিকীতে হাসান মুরাদ বিপ্লব এর উদ্যোগে মিলাদ ও দোয়া এবং প্রতিকৃতিতে মাল্যদান

জয়পুরহাটে কিডনি বেচাকেনা দালাল চক্রের ২ সদস্য গ্রেফতার

অভাবী ও ঋণগ্রস্থ মানুষদের মোটা অর্থের প্রলোভন দেখিয়ে তাদের কিডনী বিক্রি করতে বাধ্য করা দালাল চক্রের আরো ২ জন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।
জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার ওই দালালদের ঢাকার বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেফতার করা হয় আজ মঙ্গলবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন পুলিশ সুপার মাছুম আহম্মদ ভূঞা।
গ্রেফতার কৃত দালালরা হলেন- কালাই উপজেলার টাকাহুত গ্রামের মৃত বেলায়েত হোসেন সরকারের ছেলে আব্দুল গোফফার সরকার (৪৫) ও জয়পুর-বহুতি গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে নূর আফতাব (৪২)
সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মাছুম আহম্মদ ভূঞা সাংবাদিকদের জানান।
গেফতার কৃত দালালরা দীর্ঘদিন ধরে জয়পুরহাট জেলাসহ পাশ্ববর্তী নওগাঁ গাইবান্ধা দিনাজপুর এলাকার নিরীহ,ঋণগ্রস্ত ও হত দরিদ্র নারী এবং পুরুষদের মোটা অংকের টাকার লোভ দেখিয়ে তাদের কিডনি বিক্রি করতে বাধ্য করে আসছিলেন।
এসব নিরীহ মানুষরা জীবনের ঝুকি নিয়ে দালালদের খপ্পরে পরে ৪/৫ লাখ টাকায় চুক্তিতে তাদের মূল্যবান কিডনি বিক্রি করে দেন ভারত ও দুবাই সহ বিভিন্ন দেশে গিয়ে তাদের কিডনি দিয়ে নাম মাত্র চিকিৎসা নিয়ে যখন দেশে ফিরেন।
তখন দালালরা বিমান বন্দরেই তাদের হাতে ১/২ লাখ টাকা হাতে ধরে দিয়ে বিদায় করেন কিডনি দাতারা নিজের অঙ্গ বিক্রি করে ঝুকি নিয়ে জীবন অতি বাহিত করলেও লাভবান হচ্ছেন এসব দালালরা।
আবার নিজের কিডনি বিক্রি করে প্রতারিত হয়ে নতুন করে দালাল বনে যাচ্ছেন এসব কিডনি দাতারা
তথ্য-প্রযুক্তি ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ওই দালালদের গ্রেফতার করা হয়।
অল্প সময়ের মধ্যে অবৈধ্য ভাবে কিডনি বিক্রি শতভাগ বন্ধ করা না গেলেও অনেক টাই বন্ধ করা সম্ভব হবে বলেও তিনি আশাবাদী
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস) ফারজানা হোসেন,সদর সার্কেল মোসফেকুর রহমান।
পাঁচবিবি সার্কেল ইশতিয়াক আলম সহ পুলিশের বিভিন্ন স্থরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved