বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:১২ পূর্বাহ্ন

বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকাতে আপনাকে স্বাগতম! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন,বিজ্ঞাপন দিন সহযোগী হোন! বাংলাদেশ সমাচার পড়ুন বেকারত্ব দূর করুন ।
শিরোনাম :
বিলস্ এর নব-নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে বিএল এফ চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগর কমিটির সংবর্ধনা বাবাকে হত্যার পর সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ছেলে নিজেই থানায় গিয়ে হত্যার কথা জানালেন পুলিশকে বিলস্ এর নব-নির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে বিএল এফ চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগর কমিটির সংবর্ধনা ভূমিকম্পে তুরস্ক ও প্রতিবেশী সিরিয়ায় নিহতের সংখ্যা ৫ হাজার ছাড়িয়েছে পিএসজিতে চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে পারেন লিওনেল মেসি মোঃ ইসমাইল হোসেন সাহেবকে শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন -মোঃ গোলাম মাওলা সাকিব বাবাকে হত্যার পর ছেলে নিজেই থানায় গিয়ে হত্যার কথা জানালেন পুলিশকে নবীনগরে নবনির্মিত শহীদ মিনারের শুভ উদ্বোধন ও মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত মানিকগঞ্জ সদর ও সিংগাইর উপজেলায় অভিযান চালিয়ে ১১ কেজি গাঁজাসহ আটক-৪ কোনো কাজী বাল্য বিবাহ সম্পাদন করলে লাইসেন্স বাতিল- জ্যোতি বিকাশ 

জাতীয় শোক দিবসের সভায় সেখ জুয়েল এমপি স্বাধীনতা বিরোধীরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে দেশের অগ্রগতিকে ব্যাহত করতে চেয়েছিল

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ৪৭তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের আয়োজনে শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় নগরীর ১৯নং ওয়ার্ড কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ¦ তালুকদার আব্দুল খালেক। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বলেন, ঘাতকরা স্বাধীন দেশে বঙ্গবন্ধুকে শুধু হত্যাই করেনি এ হত্যার বিচারকার্য না হয় সে জন্য খুনি মোস্তাক-জিয়া সরকার ইনডেমিনিটি আইন পাশ করেছিল। সেই সাথে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচারে সারা বাংলাদেশে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। তারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে দেশের সাড়ে ৭ কোটি মানুষের অর্জিত গনতন্ত্রকে হত্যা করেছিল। যারা এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছিলো তাদের দেশে-বিদেশে রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ পদে পুরষ্কৃত করেছিলো খুনি জিয়া। তবে ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করে না। এ বাংলার মাটিতে খুনিদের বিচারকার্য সম্পন্ন হয়ে। বাংলার মানুষ এ কলঙ্কিত অধ্যায়ের দায় থেকে মুক্ত পেয়েছে। তবে এদের পেতাত্বারা এখনও সমাজে লুকিয়ে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। তাদের এ ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে আমাদের সবাইকে সোচ্চার হতে হবে। আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে এখন থেকে তৃণমূলে কাজ করতে হবে।
সম্মানিত অতিথির বক্তৃতায় সেখ জুয়েল এমপি বলেন, স্বাধীনতা বিরোধীরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে এ দেশের অগ্রগতিকে ব্যাহত করতে চেয়েছিল। বাঙালির বুকে লালন করা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ষড়যন্ত্রকারী মুছে ফেলতে চেয়েছিল। আর জাতির পিতাকে যারা হত্যা করেছে তাদেরকে খুনি জিয়াউর রহমান আশ্রয় দিয়েছে। তাদের রাস্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে বসিয়েছে। এ বিএনপি-জামায়াত আইন জারি করে খুনিদের রক্ষা করে গোটা জাতিকে অসম্মান করেছে। এরা অপশক্তির সাথে হাত মিলিয়ে বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানানোর লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিলো। বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানানোর চেষ্টা চলছে এখনও।
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ যখন দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে তখন এরা দেশকে শ্রীলঙ্কা করার চিন্তা করে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়। মানুষকে উসকে দিয়ে নতুন করে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায়। এরা কখনো দেশের ভালো চায়না। হাওয়া ভবনের কর্ণধার এখনও বিদেশে বসে দেশের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে এবং তার সহযোগীরা সেই ষড়যন্ত্র বাস্তবায়নে দেশে অস্তিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করেছে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ঐক্যবদ্ধ করে এসব ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবার আহŸান জানান তিনি।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ^াস। এসময়ে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা, সহ-সভাপতি মল্লিক আবিদ হোসেন কবীর, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কামাল আজাদ কামাল, অধ্যাপক আলমগীর কবির, আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. খন্দকার মজিবর রহমান, মহানগর যুবলীগের আহŸায়ক মো. শফিকুর রহমান পলাশ, ১৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজ্বী মোতালেব মিয়া, মহানগর যুবলীগের সদস্য এ্যাড. আল আমিন উকিল, সোনাডাঙ্গা থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রুমান আহম্মেদ।
সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তসলিম আহমেদ আশার সঞ্চলনায় এসময়ে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা প্যানেল মেয়র আলী আকবর টিপু, মো. শাহাজাদা, কামরুল ইসলাম বাবলু, শেখ নুর মোহাম্মদ, মো. তরিকুল আলম খান, কাজী জাহিদ হোসেন, কাউন্সিলর হাফিজুর রহমান হাফিজ, এস এম আকিল উদ্দিন, শেখ আলাউদ্দিন আজাদ মিলন, মোঃ জাহিদ হোসেন, আমির হোসেন, জান্নাতুল ফেরদৌস পিকুল, আঃ কাইয়ুম গোরা, এস এম রাজুল হাসান রাজু, শরীফ এনামুল কবীর, কাউন্সিলর আমেনা হালিম বেবী, কাউন্সিলর মাহমুদা বেগম, নুরজাহান রুমি, এম এ নাসিম,শাহজালাল হোসেন সুজন, আসাদুজ্জামান রাসেল, মোক্তার হোসেন, কামরুজ্জামান, এজাজ পারভেজ বাপ্পি, এডঃ এনামুল হক, আলী আকবার, মোঃ রুহুল আমীন খান,এ ডঃ শামীম আহম্মেদ পলাশ, নুরিনা রহমান বিউটি, তোতা মিয়া ব্যাপারী, মেহজাবিন খান, শিপন চৌধুরী, এডঃ সোহেল পারভেজ, তৌহিদুর রহমান দিপু, খাজা মঈনুদ্দিন, এডঃ আসাদুজ্জামান মিলটন, নাসরিন ইসলাম তন্দ্রা, মোঃ রাজ্জাক হোসেন, মোঃ সবুর হোসেন, মুন্সি আইয়ুব আলী, চ ম মুজিবুর রহমান, শেখ আবিদউল্লাহ, মোঃ জাহিদুল ইসলাম, শেখ নুর মোহাম্মদ, মো. জাহিদুল হক, আঃ আজিজ, হাসান ইফতেখার চালু, ইউসুফ আলী খান, সরদার আঃ হালিম, মীর মোঃ লিটন, জাকির হোসেন, শেখ রুহুল আমীন, এ স এম হাজিফুর রহমান হাফিজ, রোজী ইসলাম নদী, সওকত হোসেন, মো. জিলহাজ¦ হাওলাদার, মোস্তফা শিকদার, মো. কামরুল ইসলাম, সোহেল চৌধুরী, আল মামুন চৌধুরী, কবিতা অসিরন, লুৎফুন্নাহার লিলি, মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, মনোয়ারা বেগম, শাহানারা নুর, সাবিহা ইসলাম আঙ্গুর, রেশমা আক্তার, সৈয়দা হেনা বেগম, আসমা খানম, তামান্না ইসলাম, লাকি আক্তার, কবিতা আহম্মেদ, মামুনারা জাকির খুকুমনি, এডঃ করবী আক্তার, আইরিন আক্তার, কাকলি নাহার, কামরুল ইসলাম, জাহাঙ্গির হোসেন, মাহমুদুর রহমান রাজেসসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
এর আগে দুপুরে কাষ্টমঘাট নুর জামে মসজিদে সেখ জুয়েল এমপি যোহরের নামাজ আদায় করেন। নামাজ শেষে শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে অংশগ্রহন করেন এবং সাধারণ মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করেন।

সিরিজ বোমা হামলা দিবস আজ
মহানগর আওয়ামী লীগের কর্মসূচী

আওয়ামী লীগ কার্যালয় : ১৬ আগস্ট ‘২২ খ্রি.
২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সারাদেশে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় জঙ্গী সন্ত্রাসীরা দেশব্যাপী একযোগে সিরিজ বোমা হামলা চালিয়ে বিচারক, আইনজীবী, সাংবাদিক, পুলিশ ও সাহিত্যিক সহ বুদ্ধিজীবীদের সুপরিকল্পিত হত্যার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারী ও নেপথ্যে কুশীলবদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আজ ১৭ আগস্ট বিকাল ৪টায় খুলনা মহানগর দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ এবং সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ কর্মসূচিতে সদর ও সোনাডাঙ্গা থানার সকল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের স্ব-স্ব মিছিল সহকারে অংশগ্রহণ করার আহŸান জানিয়েছেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ¦ তালুকদার আব্দুল খালেক এবং সাধারণ সম্পাদক এম ডি এ বাবুল রানা।
এছাড়া খালিশপুর, দৌলতপুর ও খানজাহান আলী থানা আওয়ামী লীগ স্ব স্ব থানায় অনুরূপ কর্মসূচি পালন করবে।


বিজ্ঞপ্তি

©দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার 2022All rights reserved